Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | সাতকানিয়ায় বাস চালক গ্রেপ্তার, চাকরির প্রলোভনে শিশুকে বলাৎকার

সাতকানিয়ায় বাস চালক গ্রেপ্তার, চাকরির প্রলোভনে শিশুকে বলাৎকার

image_printপ্রিন্ট করুন

নিউজ ডেক্স : সাতকানিয়ায় হেলপারের চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এক শিশুকে নিয়ে গিয়ে বলাৎকারের অভিযোগে এক লম্পট বাস চালককে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতের নাম মো. জসিম উদ্দিন (৪০)। গতকাল মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ছদাহা ইউনিয়নের ছোট ঢেমশা ব্রাক্ষ্মন পুকুর পাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, লোহাগাড়ার পদুয়া ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ছগিরা পাড়ার মৃত মহিউদ্দিনের পুত্র শিশু মো. ইমরান সাতকানিয়ার কেরানীহাট আশশেফা হাসপাতালের নিচে জাফর আহমদের চায়ের দোকানে চাকরি করত। সেখানে কষ্ট বেশি হওয়ায় কিছু দিন আগে ইমরান চাকরি ছেড়ে দেয়। এরপর থেকে শিশুটি বিভিন্ন জায়গায় চাকরি খুঁজছিল।

এদিকে, ঘটনার দিন সন্ধ্যার দিকে সাতকানিয়ার ছদাহা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ছোট ঢেমশা ফকির পাড়ার মৃত আবুল হোসেনের পুত্র ড্রাইভার মো. জসিম উদ্দিন সাতকানিয়া রাস্তার মাথা এলাকায় একটি গ্যারেজে বাস মেরামত করছিল। এ সময় শিশু ইমরান তাকে পেয়ে একটি চাকরি দেয়ার কথা বলে। তখন লম্পট জসিম শিশুটিকে তার বাসে হেলপারের চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে সাথে রেখে দেয়।

রাত একটার দিকে বাসযোগে শিশু ইমরানকে ছদাহা ইউনিয়নের ছোট ঢেমশা ব্রাহ্মণ পুকুর এলাকায় নিয়ে যায়। পরে বাসের পেছনে সিটের উপর শিশুটিকে বলাৎকার করে। এসময় তার চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে ড্রাইভার জসিম দ্রুত পালিয়ে যায়। শিশুটিকে উদ্ধার করে সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়। খবর পেয়ে সাতকানিয়া থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে আজ বুধবার (২ জুন) সকালে বাড়ির পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে ড্রাইভার জসিমকে গ্রেপ্তার করে।

সাতকানিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সুজন কুমার দে জানান, ড্রাইভার জসিম মূলত শিশুটিকে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে নিয়ে গিয়ে বলাৎকার করেছে। শিশুটিকে বলৎকারের বিষয়টি পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে জসিম।

এ ঘটনায় বলাৎকারের শিকার হওয়া শিশুটির মা বাদি হয়ে সাতকানিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেপ্তারকৃত আসামীকে আজ বুধবার আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ প্রদান করে। আজাদী অনলাইন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!