Home | উন্মুক্ত পাতা | ইসলাম ও মুসলমানের গর্ব ১৯দিন ব্যাপী সীরতুন্নবী (সঃ) মাহফিল

ইসলাম ও মুসলমানের গর্ব ১৯দিন ব্যাপী সীরতুন্নবী (সঃ) মাহফিল

image_printপ্রিন্ট করুন

55

(আলহাজ্ব মাওলানা) কাজী মুহাম্মদ নাছির উদ্দিন : বিশ্ব বরেণ্য অলিকুল সম্রাট আশেকে রাসুল (সঃ) হযরত আলহাজ্ব শাহ্ মাওলানা হাফেজ আহমদ (রহঃ) শাহ সাহেব কেবলা চুনতী ১৯৭২ ইংরেজী ১৩৯২ হিজরীর রবিউল আউয়াল মাসে জিয়াফতসহ সীরতুন্নবী (সঃ) মাহফিল শুরু করেন। যা পর্যায়ক্রমে ১৯৭৯ ইংরেজীতে ১৯ দিনে উন্নীত হয়।

এ মাহফিলের পূর্বে সীরতুন্নবী (সঃ) বই আকারে ছিল। যেমন আল্লামা ইদ্রীস কান্দলবী (রহঃ) এর সীরাত মুস্তফা, সীরাতে ইবনে হিশাম আল্লামা শিবলী নোমানীর সীরতুন্নবী ইত্যাদি গ্রন্থ সমূহ। হযরত শাহ্ সাহেব কেবলা (রহঃ) ই সীরতুন্নবী (সঃ) কে মাহফিলে বাস্তবে রূপদান করেন।

এখানে বক্তারা বাঁধাহীনভাবে নির্দ্দিদায় আলোচনার সুযোগ পায়। যা বাঘ, ভাল্লুক, সিংহ, হরিণ, গরু, ছাগল, সকল জীব এক জায়গায় পুকুরের পানি খাওয়ানোর মত অকল্পনীয় অসাধ্য কাজ। এ মাহফিলে আগত আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন প্রফেসর, ডক্টর, শিক্ষাবিদ, চিন্তাবিদ, গবেষক, আলেম-ওলামা, পীর-মশায়েকগণ এক বাক্যে বলেন, গবেষণার মাধ্যমে প্রমাণিত পৃথিবীর কোথাও জেয়াফতসহ এই রকম ১৯ দিন ব্যাপী ধর্মীয় মাহফিল হয় না। এমনকি অন্য ধর্মেও নয়।

তাই এ কথা নির্দ্দিদায় বলা যায় এ মাহফিল শুধু চুনতী, লোহাগাড়া, চট্টগ্রাম, বাংলাদেশের গর্ব নয়। বরং সারা দুনিয়ার ইসলাম-মুসলমানের গর্ব। আল্লাহ আমাদের সঠিক বুঝ ও আলম করার তাওফিক দান করুক। আমিন।

লেখক : খাদেম, হযরত শাহ সাহেব কেবলা (রহঃ), চুনতী, লোহাগাড়া, চট্টগ্রাম। সহ-সভাপতি, মতোয়াল্লী কমিটি, ১৯ দিন ব্যাপী সীরতুন্নবী (সঃ) মাহফিল, চুনতী, লোহাগাড়া, চট্টগ্রাম। প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, গভর্নিং বডি, চুনতী হাকিমিয়া কামিল (এমএ) মাদ্রাসা, লোহাগাড়া, চট্টগ্রাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!