Home | ব্রেকিং নিউজ | লোহাগাড়ায় সাংবাদিক আবদুল করিমকে হত্যার হুমকি, থানায় জিডি

লোহাগাড়ায় সাংবাদিক আবদুল করিমকে হত্যার হুমকি, থানায় জিডি

image_printপ্রিন্ট করুন

এলনিউজ২৪ডটকম : লোহাগাড়ায় পুলিশের অভিযানে আটক কুখ্যাত ইয়াবা সম্রাট ইরফানুল হক রনিকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশের জের ধরে লোহাগাড়া প্রেস ক্লাবের সদস্য দৈনিক আমাদের নতুন সময় ও জনপ্রিয় অনলাইন পোর্টাল বার্তা বাজার ডটকম’র স্থানীয় লোহাগাড়া উপজেলা প্রতিনিধি আবদুল করিমকে মুঠোফোনে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় তিনি মঙ্গলবার (১১ মে) রাতে লোহাগাড়া থানায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি নং-৪৫৮, তারিখ : ১১.০৫.২১) দায়ের করেছেন। একইদিন বিকেল ৩.৪৫ টায় অজ্ঞাত ব্যক্তি একটি মোবাইল নাম্বার থেকে তাঁকে হত্যার হুমকি দেন বলে নিশ্চিত করেছেন সাংবাদিক আবদুল করিম।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে সাংবাদিক আবদুল করিম বলেন, সোমবার রাতে বিশেষ অভিযান চালিয়ে লোহাগাড়া থানা পুলিশ উপজেলার বড়হাতিয়া ইউনিয়নের হাদুর পাড়ার তৈয়ব শাহের পুত্র ইরফানুল হক রনিকে ১০ হাজার পিস ট্যাবলেটসহ হাতেনাতে আটক করেন। পরদিন মঙ্গলবার দুপুরে অভিযানের বর্ণনা দিয়ে লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিং দেন ওসি জাকের হোসাইন মাহমুদ। এরপর আমি বিভিন্ন সোর্সের মাধ্যমে রনির ব্যাপারে এলাকায় তথ্যানুসন্ধান করে দেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল বার্তা বাজার ডটকমে “ক্রীড়ার আড়ালে ইয়াবা ব্যবসা করতেন রনি” শিরোনামে আমার একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। এর জের ধরে আমার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে একইদিন বিকেল পৌনে চারটায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তি একটি মোবাইল নম্বর থেকে আমার ব্যক্তিগত ফোন নম্বরে ফোন দিয়ে বলেন যে, “নিউজটি সরাই পেল, অন্যথায় তােমার অবস্থা খারাপ হবে। এই নিউজ তােরে কে করতে বলছে? এসব কথা বারবার উল্লেখ করে আমাকে হুমকি প্রদান করেন। এরপর থেকেই আমি জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এ ঘটনায় আমি আতœীয়-স্বজন ও আমার সংগঠন লোহাগাড়া প্রেস ক্লাব নেতৃবৃন্দের পরামর্শক্রমে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে একইদিন রাতেই থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি দায়ের করেছি।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকের হোসাইন মাহমুদ বলেন, মঙ্গলবার রাতে আবদুল করিম নামের স্থানীয় এক সাংবাদিক তাঁকে হুমকি প্রদানে বিষয়ে থানায় একটি জিডি করেছেন। আমরা বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকিদাতাকে শনাক্ত করার চেষ্টা করছি। সে যতোই প্রভাবশালী হউক না কেন তাকে অতিদ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!