Home | ব্রেকিং নিউজ | লোহাগাড়ায় ইটভাটায় ঝুঁকিপূর্ণ কাজে শিশুরা

লোহাগাড়ায় ইটভাটায় ঝুঁকিপূর্ণ কাজে শিশুরা

image_printপ্রিন্ট করুন
(ফাইল ছবি)

(ফাইল ছবি)

এলনিউজ২৪ডটকম : লোহাগাড়ায় একাধিক ইটভাটায় বহু শিশু শ্রমিকের কাজে নিয়োজিত আছেন। এতে শিক্ষার অধিকার থেকে বঞ্চিত হওয়ার পাশাপাশি ভাটার বিষাক্ত ধোঁয়া এবং ধুলা ময়লার কারণে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ছে এসব কোমলমতি শিশুরা। পরিবারের অসচেতনতা ও দরিদ্রতার কারণেই এ পরিস্থিতির শিকার বলে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে।

উপজেলার একাধিক ইটভাটায় গিয়ে দেখা গেছে, এসব শিশুরা বাবার সঙ্গে অথবা বাবা ছাড়াই ৮ থেকে ১৬ বছরের বহু শিশু ভাটার কাজে নিয়োজিত আছে। এসব শিশু এবং শিশুদের বাবার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অনেকটা বাবা-মায়ের অসচেতনতা এবং দরিদ্রতার কারণেই তাদের এই ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নামানো হচ্ছে।

অন্যদিকে ভাটার মালিকরা কম বেতনে বেশি কাজ করানোর জন্যই এসব কোমলমতি শিশুদের ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োজিত করছেন।

জানা গেছে, উপজেলায় ৪৯টি ইটভাটা রয়েছে। একটি ইটভাটায়ও অনুমোদন নেই। শুধুমাত্রা চরম্বা ইউনিয়নে ২০টি ইটভাটা রয়েছে। প্রায় প্রতিটি ইটভাটাতেই শিশুরা শ্রমিক হিসেবে কাজ করছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইটভাটায় কর্মরত এক শিশু শ্রমিক জানান, সে ৭ মাসের জন্য ৫৭ হাজার বিনিময়ে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে।

চিকিৎসকের মতে, ইটভাটায় কর্মরত শিশুরা মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে। ইটভাটায় দীর্ঘ সময় কাজ করার ফলে বিষাক্ত ধোঁয়া ও ধুলাবালিতে শিশুদের ত্বক ও নখ নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি রক্তস্বল্পতা, অ্যাজমা, হাঁপানি, ব্রঙ্কাইটিস রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

শ্রম আইন-২০০৬-এর ২৮৪ ধারা অনুযায়ী কোনো ব্যক্তি কোনো শিশু বা কিশোরকে চাকরিতে নিযুক্ত করলে অথবা আইনের কোনো বিধান লঙ্ঘন করে কোনো শিশুকে চাকরি করার অনুমতি দিলে, তিনি অর্থদণ্ডে দণ্ডনীয় হবেন।

সচেতন মহল জানান, শিশুশ্রম আইনগত ভাবে নিষিদ্ধ। খোঁজখবর নিয়ে শিশুদের ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিযুক্ত পাওয়া গেলে ইটভাটা মালিকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

লোহাগাড়া ব্রিকফিল্ড মালিক সমিতির সভাপতি শাহাব উদ্দিন চৌধুরীর কাছ থেকে মুঠোফোনে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি কোন মন্তব্য না করে ফোনের লাইন কেটে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!