Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | বিএনপির মুখে গণতন্ত্র বেমানান : আওয়ামী লীগ

বিএনপির মুখে গণতন্ত্র বেমানান : আওয়ামী লীগ

image_printপ্রিন্ট করুন

নিউজ ডেক্স : বিএনপির মুখে গণতন্ত্র বেমানান বলে উল্লেখ করেছেন আওয়ামী লীগের নেতারা। তারা বলেন, ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি খালেদার জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপি ভোটারবিহীন প্রহসনের নির্বাচন করে ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায়ের সৃষ্টি করে। মানুষের ভোটের অধিকার হরণ করে, গণতন্ত্র নস্যাৎ করে। তাদের মুখে গণতন্ত্রের জন্য মায়াকান্না শোভা পায় না।

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) গণতন্ত্র নস্যাৎ দিবস পালন করে আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠন। এদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাজধানীর নানা স্পটে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মিছিল করা হয়।

এ সময় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের এক অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, সারাদেশে সেনাবাহিনী মোতায়েন করে ভোট করেন খালেদা জিয়া। ২ শতাংশ ভোটও পড়েনি, কিন্তু তিনি নিজেকে প্রধানমন্ত্রী দাবি করে বসেন। এটি বাংলাদেশের ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায়।

এছাড়া সকালে রাজধানীর রাসেল স্কয়ারে প্রতিবাদ সমাবেশ করে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ। এতে শাখা সভাপতি বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে অংশ নেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম মান্নান কচি প্রমুখ।

BNP-1.jpg

ওবায়দুল কাদের বলেন, ১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬ ভোট ডাকাতি করে বিএনপি গণতন্ত্রের ফেরিওয়ালা সেজেছে। এটি রাজনীতির ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায় হয়ে থাকবে।অপরদিকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের উদ্যোগে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আরেকটি সমাবেশ হয়।

এতে দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী বিএনপির উদ্দেশে বলেন, গণতন্ত্র না থাকলে বিভিন্ন যায়গায় মিছিল-মিটিং করেন কেমনে? আপনাদের সভায় লোক হয় না, এটাও কি আওয়ামী লীগের দোষ? এটা আপনাদের গণধিকৃত রাজনীতির ফল।

তিনি বলেন, গণতন্ত্র বিএনপির হাতে বিকৃত হয়েছে। শিক্ষা-দীক্ষা ও বিজ্ঞান চর্চা সবকিছুই তাদের হাতে বিকৃত হয়েছে। তাদের বিকৃতমনা রাজনীতি জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে। সারাদেশের মানুষ তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়ায় ষড়যন্ত্র ও বিভ্রান্তির পথ বেছে নিয়েছে।

দীপু মনি বলেন, যারা বাংলাদেশের গণতন্ত্র ধ্বংস করতে স্বাধীন দেশে সামরিক শাসন চালিয়েছিল, নির্বাচনী ব্যবস্থা ধ্বংস করেছিল, ভোটারবিহীন নির্বাচন শুধু করেনি, ১ কোটি ২০ লাখ ভুয়া ভোটার করে গণতন্ত্রকে নস্যাৎ করেছে। তাদের মুখে গণতন্ত্রের জন্য মায়াকান্না শোভা পায় না।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, যাদের জন্ম ক্যান্টনমেন্টের ভেতরে, তারা আবার গণতন্ত্রের কথা বলে। তাদের যারা এখন কথা বলে, সব দলছুট নেতা। জিয়াউর রহমানের বিলিয়ে দেয়া ক্ষমতার উচ্ছিষ্ট ভোগ করতে বিএনপিতে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!