Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | প্রস্তাবিত বাজেট দেশে আয় বৈষম্য বাড়াবে : ক্ষেতমজুর সমিতি

প্রস্তাবিত বাজেট দেশে আয় বৈষম্য বাড়াবে : ক্ষেতমজুর সমিতি

image_printপ্রিন্ট করুন

174050a

নিউজ ডেক্স : বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতির নেতৃবৃন্দ বলেছেন, প্রস্তাবিত বাজেট দেশে আয় বৈষম্যকে আরো বৃদ্ধি করে বড়লোকদের আরো বড়লোক করবে। অপরদিকে মধ্যবিত্ত ও গরিবদের নিঃস্ব করবে। কালো টাকার মালিক ও ধনিক শ্রেণির স্বার্থরক্ষাকারী এই বাজেট সংবিধানের মূলনীতি ও চেতনার পরিপন্থী। আজ শুক্রবার (১৪ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশে এসব কথা বলেন নেতৃবৃন্দ।

সংগঠনের সহ-সভাপতি ফজলুর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রেজা, সহ-সাধারণ সম্পাদক অর্ণব সরকার, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মোতালেব হোসেন ও আরিফুল ইসলাম নাদিম এবং কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় সম্পাদকম-লীর সদস্য মানবেন্দ্র দেব।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, গ্রামীণ মানুষের দীর্ঘদিনের দাবি পল্লী রেশন। বাজেটে আর্মি-পুলিশের জন্য রেশন বরাদ্দ করা হলেও দেশের উৎপাদনের চালিকা শক্তি গরিব শ্রমজীবী মানুষের জন্য কোন বরাদ্দ রাখা হয়নি। এই গ্রামীণ ক্ষেতমজুরসহ গ্রামীণ মজুরদের সারা বছর কাজ থাকে না। ক্ষেতমজুরদের সারা বছর কাজের নিশ্চয়তা তৈরির জন্য কর্মসৃজন কাজের দিন বৃদ্ধি করে সকল উপজেলায় এক শ দিনের কাজ ও পাঁচ শ টাকা মজুরির বরাদ্দর দাবি জানান নেতৃবন্দ।

দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ গ্রামীণ শ্রমজীবী মেহনতি মানুষ এ বাজেট প্রত্যাখ্যান করেছে উল্লেখ করে নেতৃবৃন্দ উত্থাপিত বাজেট অবিলম্বে সংশোধনের দাবি জানান। তাঁরা বলেন, বাজেটে গ্রামীণ ছয় কোটি মানুষের জন্য রেশন ও ‘১০০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচি’, পেনশনের এর জন্য বরাদ্দ দাবি করেন।

সমাবেশ থেকে অবিলম্বে ক্ষেতমজুরসহ গ্রামীণ মজুর ও গরিব মানুষের জন্য বরাদ্দের দাবিতে আগামী ২০ জুন দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!