Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | ‘দ্বিতীয় বউয়ের প্রতি ন্যায়বিচার করেননি মামুনুল হক’

‘দ্বিতীয় বউয়ের প্রতি ন্যায়বিচার করেননি মামুনুল হক’

image_printপ্রিন্ট করুন

নিউজ ডেক্স : সোনারগাঁয়ের রয়্যাল রিসোর্টে এক নারীসহ অবরুদ্ধ হওয়ার ঘটনায় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক পরবর্তীতে ঘোষণা দেওয়া ‘দ্বিতীয় বউয়ের প্রতি ন্যায়বিচার করেননি’ বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন।

শুক্রবার (৯ এপ্রিল) তিনি বলেন, ‘মামুনুল হক সাহেব ক্রমাগত হুমকি-ধামকির মাধ্যমে সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনায়। বাংলানিউজ

বৃহস্পতিবার নতুন হুমকি দিলেন তার ব্যক্তিগত গোপনীয়তায় যারা বিঘ্ন ঘটিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপের। অর্থাৎ তার টেলিসংলাপ যারা রেকর্ড করে প্রচার করেছেন তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন নিবেন’।

আমিনুল ইসলাম আমিন বলেন, ‘হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক এবং খেলাফত মজলিসের মহাসচিব মামুনুল হক বলেছেন-তিনি ৩/৪টা বিয়ে করতেই পারেন তাতে কার কি? আমার কথাও তাই। কিন্তু ঘাপলা অন্য জায়গায়। তার টেলিসংলাপ সত্য হলে তিনি তো জান্নাত ঝর্নাকে বিয়ে করেননি। কারণ বিয়ে করলে ১ম স্ত্রীকে বললেন কেন- এটা আমাদের শহিদুল ভাইয়ের স্ত্রী? তার বোনইবা কেন ১ম বউকে শিখিয়ে দিচ্ছেন তুমি বলবা “আমি সব জানি, শাশুড়ি বেঁচে থাকতে বিয়ে করিয়ে দিয়েছেন” স্বীকৃত বউ হলে তো কাউকে শিখিয়ে দেবার প্রয়োজন হয় না’।

‘আর সত্যি যদি বিয়ে করেন তাহলেও কি তিনি কোরানের নির্দেশনা মেনেছেন? পবিত্র কোরানে ৪টি পর্যন্ত বিয়ে করার যে আয়াত অবতীর্ণ হয়েছে সেখানে তো স্পষ্ট বলা আছে, “সবার প্রতি সমান আচরণের ব্যাপারে সংশয় থাকলে একটাই বিয়ে কর”। যে মেয়েটাকে ২য় বউ দাবি করছেন তাকে ২ বছরে মামুনুল সাহেব নিজের পরিবারের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেননি। অর্থাৎ পারিবারিক ও সামাজিক স্বীকৃতিটুকু দেননি। ২য় বউকে এই সামান্য স্বীকৃতি না দেয়াই প্রমাণ করে, তিনি ২য় বউয়ের প্রতি ন্যায়বিচার করেননি। যা স্পষ্টত পবিত্র কোরানের উক্ত আয়াতের লঙ্ঘন। তারপরও কি আমরা অন্ধত্ব আর কূপমণ্ডূকতায় নিমজ্জিত থাকবো?’

এর আগে বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হক ফেসবুক লাইভে এসে বলেন, স্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে, স্ত্রীকে খুশি করতে প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে সীমিত পরিসরে কোনো সত্যকে গোপন করারও অবকাশ রয়েছে। আমি একাধিক বিয়ে করেছি। একজন পুরুষ চারটি বিয়ে করতে পারেন। চারটি বিয়ে করলে কার কী?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!