Home | উন্মুক্ত পাতা | বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন | সাতকানিয়া অংশে সাঙ্গু নদীর ব্লকের উদ্বোধন

সাতকানিয়া অংশে সাঙ্গু নদীর ব্লকের উদ্বোধন

image_printপ্রিন্ট করুন

MMMM-01

দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার সাঙ্গু নদীর ভাঙন রোধে সরকার গৃহীত পাথর ব্লক বসানো শুরু হয়েছে। প্রকল্পের বাস্তবায়ন হলে সাতকানিয়ার চরতী ইউনিয়নের ৬টি গ্রাম নদী ভাঙ্গনমুক্ত হবে। রক্ষা পাবে হাজারো বসত ঘর, কবরস্থান, মসজিদ ও শত শত একর ফসলী জমি। সাঙ্গু নদীতে মোট ৬ টি প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ৭৬ কোটি টাকা। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতায় প্রকল্পের কাজ ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরের মধ্যে সমাপ্ত হওয়ার কথা রয়েছে। চট্টগ্রাম-১৫ সংসদ সদস্য প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী গতকাল বুধবার ৬ প্রকল্পের কাজের উদ্বোধন করেন।

পানি উন্নয়ন বোর্ড পটিয়া (পওর) শাখা-১ এর উপ-সহকারী প্রকৌশলী অনুপম দাশ জানান, সাতকানিয়া- লোহাগাড়ায় সাঙ্গু ও ডলু নদীর ভাঙ্গনরোধে ৩৩৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে ১১ কোটি ৫২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে দ্বীপ চরতীতে ৭ শ মিটার, দক্ষিণ চরতীতে ১শ ৫০ মিটার, নলুয়া ইউনিয়নের মখতেয়ারের কুম এলাকায় ৮ কোটি ৭৯ লক্ষ টাকায় ৬শ মিটার, আমিলাইশে ১৫ কোটি ১৫ লাখ টাকা ব্যয়ে ১ হাজার ১শ ৫০ মিটার, উত্তর ব্রাক্ষণডেঙ্গায় ১০ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৮শ মিটার, তুলাতলীতে ১২ কোটি ৫৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ৯শ মিটার ও নলুয়ার মৈশামুড়া এলাকায় ১৭ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ১ হাজার ৩শ মিটার মিলিয়ে মোট ৭৬ কোটি টাকা ব্যয়ে শুধুমাত্র সাতকানিয়ার সাঙ্গু নদীতে মোট ৫ হাজার ৬শ মিটার ভাঙ্গন কবলিত এলাকায় পাথর ব্লক বসানো উদ্বোধন করা হয়।

প্রকল্প উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন প্রকল্প পরিচালক ও নির্বাহী প্রকৌশলী বিদু্যুৎ কুমার সাহা, চরতি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাকিম চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রমিজ উদ্দীন, নলুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তছলিমা আক্তার, আমিলাইশ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এইচ এম হানিফ, আমিলাইশ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউর রহমান, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক হারেজ মোহাম্মদ, উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য সাইফুল ইসলাম, নুরুল মোস্তফা চৌধুরী, উপজেলা তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক রুহুল্লাহ চৌধুরী, ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুল মন্নান প্রমুখ।

সংসদ সদস্য প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী প্রকল্পগুলো উদ্বোধনকালে স্বতঃস্ফূর্ত জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে নদী ভাঙ্গন সমস্যা থেকে মুক্ত হবে লাখো মানুষ। পর্যায়ক্রমে সাতকানিয়া- লোহাগাড়ায় ৩৩৩ কোটি টাকার নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধ প্রকল্প বাস্তবায়ন হবে। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!