ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বিএনপির বৈঠক শেষ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বিএনপির বৈঠক শেষ

image_printপ্রিন্ট করুন

file-44

নিউজ ডেক্স : নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বৈঠক শেষ হয়েছে। বিকাল সাড়ে চারটা থেকে বঙ্গভবনে বঙ্গভবনে প্রায় এক ঘণ্টা এই বৈঠক চলে। এরপর বিএনপির প্রতিনিধি দল বঙ্গভবন ছেড়ে যায়।

নির্ধারিত সময়ের কিছুক্ষণ আগে ১১ নেতাসহ বঙ্গভবনে যান খালেদা জিয়া। এরপর শুরু হয় বৈঠক। দুই পক্ষ কী নিয়ে কথা বলেছে, সে বিষয়ে বিএনপি আনুষ্ঠানিকভাবে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করবে বলে জানিয়েছেন নেতারা। বঙ্গভবন থেকেও এ বিষয়ে একটি বিবৃতি দেয়া হতে পারে বলে জানিয়েছে বঙ্গভবন সূত্র।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে রাষ্ট্রপতির এই সংলাপে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, মাহবুবুর রহমান, রফিকুল ইসলাম মিয়া,  গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। এই তালিকায় মির্জা আব্বাস ও তরিকুল ইসলামের নাম থাকলেও তারা বঙ্গবভন যাননি।

আগামী ফেব্রুয়ারির শুরুতে শেষ হচ্ছে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ। তার আগেই নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়োগ দেবেন রাষ্ট্রপতি।

নির্বাচন কমিশনে নিয়োগের বিষয়ে গত ১৮ নভেম্বর ১৩ দফা প্রস্তাব দেন খালেদা জিয়া। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তাৎক্ষণিকভাবে এই প্রস্তাব নাচক করলেও পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, রাষ্ট্রপতি যে সিদ্ধান্ত নেবেন তাই মেনে নেবেন তিনি।

গত ৩ ডিসেম্বর বিএনপি বঙ্গভবনে তাদের প্রস্তাব পৌঁছে দেয়। এর দুদিন পর রাষ্ট্রপতি বিভিন্ন দলকে আমন্ত্রণ জানান।

বিকালে বিএনপির সঙ্গে আলোচনার মধ্য দিয়ে রাষ্ট্রপতির সংলাপ শুরু হয়। মঙ্গলবার একইভাবে রাষ্ট্রপ্রধান জাতীয় পার্টি, পরদিন বিএনপির শরিক এলডিপি ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ এবং তারও পরদিন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের শরিক জাসদকে ডেকেছেন তিনি।

তবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকে এখনও সংলাপে ডাকেনি বঙ্গভবন। যদিও রাষ্ট্রপতির কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, পর্যায়ক্রমে সব দলকেই ডাকা হবে।

বিএনপি আশা করছে, রাষ্ট্রপতির এই উদ্যোগ নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে জটিলতার অবসান ঘটাবে। তবে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম সংলাপ শুরুর আগের দিন বলেছেন, রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বিএনপির সংলাপে কিছুই হবে না। বিএনপিকে চা খেয়ে চলে আসতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!