Home | ব্রেকিং নিউজ | বড়হাতিয়ায় পুকুর থেকে এসএসসি পরীক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

বড়হাতিয়ায় পুকুর থেকে এসএসসি পরীক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

image_printপ্রিন্ট করুন

এলনিউজ২৪ডটকম : লোহাগাড়ার বড়হাতিয়ায় পুকুর থেকে জনি চন্দ্র দাশ (১৮) নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের কুসাঙ্গের পাড়া মহবোধি বৌদ্ধ বিহার সংলগ্ন পুকুর থেকে তার ভাসমান মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

জনি চন্দ্র দাশ একই ওয়ার্ডের ভবানীপুর ধুপি পাড়ার সুনীল চন্দ্র দাশের পুত্র ও মধ্যম বড়হাতিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। এছাড়া প্রায় এক মাস পূর্ব থেকে বড়হাতিয়া মনুফকির হাট বাজারে জনি লন্ড্রি নামে এক কাপড় ধোলাইয়ের দোকান পরিচালনা করত।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে পুকুরে একটি ভাসমান মরদেহ দেখতে পান তারা। এরপর জনৈক শিমুল বড়ুয়া জনি চন্দ্র দাশের পরিবারকে খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ শনাক্ত করেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে নিহতের ভাসমান মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

নিহতের পিতা সুনীল চন্দ্র দাশ জানান, গত শনিবার রাত ৮টার দিকে কে বা কারা তার ছেলে জনি চন্দ্র দাশকে মোবাইলে ফোন করে দোকান থেকে বের হতে বলে। এরপর থেকে তার ছেলে আর বাড়ি কিংবা দোকানে আসেনি। মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া যায়। এতে তিনি মনে করেন জনি তার বন্ধুদের সাথে কোথাও বেড়াতে গেছে। পরদিনও ফিরে না আসায় আত্মীয়-স্বজনসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করা হয় কিন্তু কোথাও তাকে পাওয়া যায়নি। পরে পুকুরে ভাসমান অবস্থায় তার ছেলের মরদেহ পাওয়া যায়। প্রায় তিন মাস পূর্বে তার মা বীণা বালা দাশও জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

নিহতের ছোট ভাই জনি চন্দ্র দাশ জানায়, সেও মধ্যম বড়হাতিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থী। লেখাপড়ার পাশাপাশি তার বড় ভাইয়ের কাপড় ধোলাইয়ের দোকানে সহযোগিতা করত। ঘটনার দিন শনিবার রাত ৮টার দিকে কে বা কারা ফোন করে তার ভাইকে ব্রিজের পাশে যেতে বলে। তবে কোন ব্রিজের পাশে যেতে বলে তা সে জানে না। কিছু না বলে তার ভাই দোকান থেকে বের হয়ে যায়। রাত ১০টায়ও ফিরে না আসায় সে দোকান বন্ধ করে বাড়িতে চলে যায়।

এদিকে, খবর পেয়ে সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকারিয়া রহমান জিকু ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ওসি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পুকুর থেকে একটি ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহের শরীরে পচন ধরেছে। মরদেহের মাথার পেছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে। প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের জন্য পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!