Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | বৃষ্টিতে লন্ডভন্ড লবন মাঠ, চাষীদের ব্যাপক ক্ষতি

বৃষ্টিতে লন্ডভন্ড লবন মাঠ, চাষীদের ব্যাপক ক্ষতি

image_printপ্রিন্ট করুন

নিউজ ডেক্স : এক পশলা বৃষ্টিতে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেল বাঁশখালীর লবণ মাঠের চিত্র । তার সাথে কালবৈশাখী ও দমকা হাওয়ায় নুইয়ে পড়েছে বোরো ধানের ক্ষেত।

বাঁশখালীর উপকূল জুড়ে কর্মব্যস্ত লবণ চাষীরা জানান, হঠাৎ ঝড়ো হওয়া ও কালবৈশাখীর কারণে মুহূর্তের মধ্যে জমিতে থাকা লবণ মাটির সাথে মিশে যায়। তাছাড়া বেশ কিছু স্থানে লবণ মজুদ করার সময় বৃষ্টির কারণে তারা চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

অপরদিকে বাঁশখালীর অধিকাংশ স্থানে বর্তমানে বোরো ধান কাটার মৌসুম। হঠাৎ প্রবল বেগে প্রবাহিত কালবৈশাখীতে তারাও নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে জানান চাষীরা।

তবে এ ব্যাপাবে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা বিধান কান্তি দাশ বলেন, ‘এ বৃষ্টি ও বাতাসের কারণে তেমন ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা কম কারণ যখন ধানের মধ্যে ফুল আসে তখন যদি বাতাস প্রবাহিত হয় তখন ক্ষতি হয় প্রচুর।’

জানা যায়, বাঁশখালীতে চলতি মৌসুমে ৯ হাজার ৮শ’ ৫০ হেক্টর জমিতে বোরো চাষ হয়েছে। এদিকে, এবার বাঁশখালীতে ৬ হাজার ৬শ’ ২৮ একর জমিতে লবণ চাষ করা হয় যা বাঁশখালীর ছনুয়া পুঁইছড়ির কিছু এলাকা, গণ্ডামারার পশ্চিম বড়ঘোনা, পূর্ব বড়ঘোনা ও আলোকদিয়া এলাকায়, শীলকূপ ইউনিয়নের পশ্চিম মনকিচর এলাকা, সরল ইউনিয়নের পশ্চিম সাগর উপকূল, শেখেরখীলের কিছু অংশসহ বাঁশখালীর পশ্চিম এলাকায়।

চলতি মৌসুমে দেশে লবণের মোট চাহিদা রয়েছে ১৮ লক্ষ ৪৯ হাজার মেট্রিক টন। আর লবণ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে সাড়ে ১৮ লক্ষ মেট্রিক টন। ঝড় বৃষ্টি না হলে আগামী মে মাস পর্যন্ত এ লবণ উৎপাদন করা সম্ভব হবে বলে চাষীরা জানান।

তবে গত ১২ এপ্রিল থেকে বাঁশখালী থেকে সকল ধরনের লবণ পরিবহন বন্ধ রয়েছে লকডাউন ও করোনাভাইরাসের কারণে।

পশ্চিম গণ্ডামারা লবণ উৎপাদনকারী সমবায় সমিতির উপদেষ্টা সভাপতি ব্যবসায়ী আবু আহমদ বলেন, ‘চাষীরা এবং আমাদের লোকজন আগে থেকে প্রস্তুত ছিল না। হঠাৎ ঝড়ো হাওয়া ও কালবৈশাখী শুরু হওয়ায় মাঠের অধিকাংশ লবণ মাটির সাথে মিশে যায়। আমাদের প্রকল্পের প্রায় ১৫/১৬শ’ মণ এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’

সাগর উপকুলীয় ছনুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম হারুনুর রশিদ বলেন, ‘হঠাৎ ঝড়-বৃষ্টি শুরু হওয়ায় চাষীরা মাঠে যাওয়ার আগেই বৃষ্টিতে লবণগুলো মাটির সাথে মিশে যায়।’ তাছাড়া বেশ কিছু কাঁচা বাড়ির ঘরের চালাও উড়ে যায় বলে জানান তিনি। দৈনিক আজাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!