Home | ব্রেকিং নিউজ | পুটিবিলায় ডলুখাল ঘেষা সড়ক ভাঙ্গনের তিন বছরেও সংস্কার হয়নি, জনদূর্ভোগ

পুটিবিলায় ডলুখাল ঘেষা সড়ক ভাঙ্গনের তিন বছরেও সংস্কার হয়নি, জনদূর্ভোগ

image_printপ্রিন্ট করুন

এলনিউজ২৪ডটকম : লোহাগাড়ার পুটিবিলা ইউনিয়নের ছুটার পাড়ায় ডলুখাল ঘেষা সড়ক ভাঙ্গনের তিন বছরেও সংস্কার হয়নি। এতে এলাকাবাসীর দিন দিন দূর্ভোগ বাড়ছে। বর্ষায় খালের পানিতে রাস্তাটি ভেঙ্গে যোগাযোগ একেবারে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবার আতংকে দিনাতিপাত করছেন স্থানীয়রা। অনেক জনপ্রতিনিধি সড়কটি সংস্কারের প্রতিশ্র“তি দিয়ে নির্বাচনী বৈতরণী পার করেছেন। পরে আর কেউ খবর রাখেননি। এতে এলাকাবাসীর চোখের পানির সাথে ডলুখালের পানি মিশে একাকার হয়ে যাচ্ছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, রাস্তাটি ভাঙ্গনের ফলে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হাজী মো. ইউনুছকে একাধিকবার অবগত করেছেন। কিন্তু কাজের কাজ কিছু হয়নি। স্থানীয়রা নিজেদের অর্থায়নে কয়েকবার সড়কটি সংস্কার করেছেন। কিন্তু থিতু হয়নি। এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন চার গ্রামের প্রায় ১০ হাজার মানুষ ও স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসা পড়–য়া শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করেন। সড়কটির অবস্থায় এতোই নাজুক কোনমতে পায়ে হেঁটে যাতায়াত করা গেলেও তিন চাকার গাড়ি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। সড়কটির সিংহভাগ ডলু খালের গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বর্ষায় বৃষ্টির ফলে খালের পানি বেড়ে গেলে যে কোন সময় একেবারে বিলীন হয়ে যেতে পারে সড়কটি।

স্থানীয় মো. জাহেদুল হক জানান, উক্ত সড়কটি দিয়ে বর্তমানে হেঁটে চলা দায় হয়ে পড়েছে। জনপ্রতিনিধিরা সবসময় কথা দিয়ে থাকে। কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। বর্ষার শুরুতে আগাম বার্তা দিল ডলু খালের পাড় ঘেষা ছুটার পাড়া সড়কটি পাড় ভেঙে সড়ক ভাঙন। সড়কের প্রায় অংশ ইতোমধ্যে খালের গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। তিনি বরাদ্দ আসলে সড়কটি সংস্কার কথা দিয়েছিলেন। কিন্তু প্রতিশ্রতিতেই সীমাবদ্ধ থেকে গেছে সড়ক সংস্কারের কাজ।

বৃদ্ধ আবুল হাশেম জানান, প্রতি বছর বালু উত্তোলনের ফলে ডলু খালের গভীরতা বেড়ে গেছে। ফলে খাল ঘেষা সড়কগুলো খালের সাথে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান একবারের জন্যও আমাদের দেখতে আসেননি। সড়ক সংস্কার করবে কেমনে।

পুটিবিলা ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য ডা. সবুজ কান্তি নাথ জানান, উক্ত সড়কের ভাঙ্গন আমার ও পরিষদের নজরে আছে। ভাঙ্গনটি বড় হওয়ায় ও ইউনিয়ন পরিষদে বাজেট না থাকায় সড়কটি সংস্কার করা যায়নি। বরাদ্দ পেলে সড়কটি সংস্কার করা হবে।

পুটিবিলা ইউপি চেয়ারম্যান হাজী মো. ইউনুছকে মুঠোফোনে না পাওয়ায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। তবে প্যানেল চেয়ারম্যান সুজিত বড়ুয়া কাজল জানান, চেয়ারম্যানের নির্দেশে ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শন করেছি। জুলাই মাসের শুরুতে ছুটার পাড়ায় ডলু খালের পাড় ঘেষা সড়কের ভাঙ্গন রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

লোহাগাড়া উপজেলা প্রকৌশলী দিবাকর রায় ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. কামরুল হোসাইন জানান, পুটিবিলা ইউনিয়নের ছুটার পাড়ায় ডলুখাল ঘেষা সড়ক ভাঙ্গন রোধে কেউ লিখিত আবেদন করেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!