Home | অন্যান্য সংবাদ | ‘বন্ধু’ অসুস্থ, হাসপাতালের দরজায় চার কুকুর

‘বন্ধু’ অসুস্থ, হাসপাতালের দরজায় চার কুকুর

image-11033-1545043819

নিউজ ডেস্ক : হাপিত্যেশ নয়নে চার সারমেয় ঠায় দাঁড়িয়ে আছে দরজায়। সে দরজার এক পাশে হুইলচেয়ার। ভিতরে তাদের প্রভুর চিকিৎসা চলছে।

সম্প্রতি ব্রাজিলের এক হাসপাতালের এমনই এক ছবি মন ভরিয়ে দিয়েছে নেট দুনিয়ার। ছবিটি দিন কয়েক আগে শেয়ার করেছেন ওই হাসপাতালেরই এক নার্স।

অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে ভবঘুরে এক মানুষকে। পথেই তাঁর বাস। সে পথেই তাঁর কার্মকাণ্ড। আর সেই পথেই হয়ে গিয়েছিল তাঁর এই চার বন্ধু। ভবঘুরে মানুষটার বিপদে আপদে তারাই ছিল ভরসা।

ব্রাজিলের সেই হাসপাতালের নার্স ক্রিস মামপ্রিম ফেসবুকে লিখছেন, ‘‘আমি যে হাসপাতালে কাজ করি, দেখি রাত তিনটের সময় সেখানে চারটে কুকুর দাঁড়িয়ে আছে। ওদের প্রভু অসুস্থতার কারণে ভর্তি হয়েছে হাসপাতালে। আর ওরা সারাক্ষণ প্রভুর অপেক্ষায় হাসপাতালের দরজায় দাঁড়িয়ে রয়েছে।’’

৮০ হাজারেরও বেশি ইউজার ফেসবুকে এই পোস্টটিকে শেয়ার করেছেন। ক্রিস জানিয়েছেন, ভবঘুরে ওই ব্যক্তির নাম সিজার। ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘‘পথেই দিন গুজরান হয় সাধারণ ছাপোষা ওই মানুষটার। ক্ষুধা, ঠান্ডা, ব্যথা সব কিছু তাড়াতেই অন্য মানুষের সাহায্যের উপর নির্ভর করে থাকতে হয় মানুষটাকে। তাঁরই সব সময়ের সঙ্গী এই চার সারমেয়।’’

 e899aoie

ব্রাজিলের অল্টো ভেলের ওই হাসপাতালের এমন ছবি নাড়িয়ে দিয়েছিল সেখানকার চিকিত্সক থেকে কর্মীদের সকলকেই। ক্রিস জানিয়েছেন, সিজারের বন্ধুদের এমনতর ভালবাসা দেখে হাসপাতালের সকলেরই মন জুড়িয়ে গিয়েছে। হাসপাতালের তরফে যত্ন সহকারে খাওয়ানো হয় ওই সারমেয়দের।

নিজের জন্য দু’বেলা দু’মুঠো খাবার জোগাড় করতে গিয়েই নাস্তানাবুদ হতে হয় ভবঘুরে সিজারকে। তবে নিজের খাবার জুটুক আর না জুটুক, নিজের সারমেয় বন্ধুদের জন্য রোজ নিয়ম করে খাবারের বন্দোবস্ত করেন সিজার। ক্রিস মামপ্রিম বলছেন, ‘‘প্রত্যেকটা কুকুরেরই খুব যত্ন করা হয়। ওদের চেহারাই সে কথাটা বলে দিচ্ছে। আর ওদের দেখে আর একটা বিষয় পরিষ্কার যে, ওরা কতটা প্রভুকে ভালবাসে।’’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*