Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | দক্ষিণ চট্টগ্রামে বিএনপির নতুন ইউনিট ‘উত্তর সাতকানিয়া’

দক্ষিণ চট্টগ্রামে বিএনপির নতুন ইউনিট ‘উত্তর সাতকানিয়া’

image_printপ্রিন্ট করুন

নিউজ ডেক্স : চট্টগ্রামে আরো একটি সাংগঠনিক ইউনিট হলো বিএনপির। ছয়টি ইউনিয়ন নিয়ে উপজেলা মর্যাদায় ‘উত্তর সাতকানিয়া’ নামে এ সাংগঠনিক ইউনিটের অনুমোদন দিয়েছে দলটির স্থায়ী কমিটি। এর মধ্য দিয়ে দক্ষিণ চট্টগ্রাম সাংগঠনিক জেলার আওতায় বিএনপির সাংগাঠনিক ইউনিট হয়েছে ১৪টি। নতুন সাংগঠনিক ইউনিটের আওতাভুক্ত ইউনিয়নগুলো হচ্ছে- কেওচিয়া, বাজালিয়া, পুরানগড়, ধর্মপুর, কালিয়াইশ ও খাগরিয়া।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সাতকানিয়া ও চন্দনাইশ উপজেলা নিয়ে গঠিত সংসদীয় আসন চট্টগ্রাম-১৪। এর মধ্যে সাতকানিয়ার ৬টি ইউনিয়নের বাসিন্দারা গত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে পৃথক উপজেলা গঠনের দাবি জানিয়ে আসছিল। প্রশাসনিক থানা গঠনে বিভিন্ন সময় উদ্যোগও নেয়া সরকারিভাবে। হয়েছে শুনানিও। কিন্তু নামকরণ জটিলতায় সেটি আটকে আছে।

এদিকে স্থানীয় বিএনপি নেতারাও বিভিন্ন সময়ে চেষ্টা করেছে সাতকানিয়ার ছয়টি ইউনিয়ন নিয়ে সাংগঠনিক ইউনিট করার। এর মধ্যে দক্ষিণ জেলা বিএনপি’র সাবেক সহ-সভাপতি এডভোকেট মিজানুল হক চৌধুরী, সাতকনিয়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী এবং ছাত্রদল নেতা আকিল উদ্দীন বিভিন্ন সময়ে তদবিরও করে। কিন্তু কেন্দ্রীয় বিএনপি সাংগঠনিট ইউনিট গঠনে সম্মতি দেয়নি।

এর পর গত ১ নভেম্বর দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি শফিকুল ইসলাম রাহী সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর আবেদন করে। এতে তিনি লিখেন- ‘সাতকানিয়া উপজেলা ১৭টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত। এর মধ্যে কেওচিয়া, বাজালিয়া, পুরানগড়, ধর্মপুর, কালিয়াইশ ও খাগরিয়া ইউনিয়ন উপজেলার একপাশে তথা উত্তরে অবস্থিত। ইউনিয়নগুলো নিয়ে আলাদা আলাদা স্বতন্ত্র উপজেলা ও থানা ঘোষণা হয়েছে, শুধু মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বাস্তবায়ন বাকি। এখানে অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সাংগঠনিক কমিটি গঠন কার্যক্রম চলমান আছে।’ তাই সেখানে দলীয় ও সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনার স্বার্থে ছয় ইউনিয়ন নিয়ে থানা ও উপজেলা মানের সাংগঠনিক ইউনিট করার প্রস্তাব করেন তিনি। লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কাছেও এ বিষয়ে দলের সিনিয়র নেতাদের মাধ্যমে বার্তা দেন তিনি।

এদিকে গত ৫ ডিসেম্বর তারেক রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল সভায় নতুন সাংগঠনিক ইউনিট প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব গৃহীত হয়। তবে নতুন ইউনিটের নাম কি হবে তা সংশ্লিষ্ট এলাকার নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনার মাধ্যমে ঠিক করার সিদ্ধান্ত হয়।

এর প্রেক্ষিতে গত ৯ ডিসেম্বর দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান, যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ আলী আব্বাস এবং সদস্য সচিব মোস্তাক আহমদ খান লিখিতভাবে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছে নতুন ইউনিটের নাম প্রস্তাব করে ‘উত্তর সাতকানিয়া’।

সর্বশেষ গত ১৯ ডিসেম্বর দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীমের কাছে চিঠি দিয়ে ‘উত্তর সাতকানিয়া’ নামে নতুন সাংগঠনিক ইউনিটের অনুমোদন হয়েছে উল্লেখ প্রয়োজনীয় প্রদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দেন সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মাহবুবের রহমান শামীম বলেন, আলাদা সাংগঠনিক ইউনিট করার জন্য স্থানীয় নেতৃবৃন্দ আবেদন করেছিল। এরপ্রেক্ষিতে স্থায়ী কমিটির সভায় তা অনুমোদন দেয়া হয়। এখন সেখানে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের কমিটি গঠন করা হবে।

দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি শফিকুল ইসলাম রাহী বলেন, ছয় ইউনিয়নের বাসিন্দারা উপজেলার নির্বাচনে আমরা সাতকানিয়া এবং সংসদ নির্বাচনে চন্দনাইশের দিকে চেয়ে থাকি। মাঝখানে সাংগঠনিকভাবে আমরা অবমূল্যায়িত ছিলাম। সাংগঠনিক ইউনিট করার জন্য আগেও তিনজন চেষ্টা করেছিলেন। হয়নি। সর্বশেষ আমার আবেদনে সাড়া দিয়েছে কেন্দ্র। খবরটি পেয়ে এলাকার দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে আনন্দের জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এখন দলীয় নেতাকর্মীদের জন্য আরো বেশি কাজ করার সুযোগ হয়েছে।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির অধীন এতদিন ১৩টি সাংগঠনিক ইউনিট ছিল। এরমধ্যে ৭টি উপজেলা, ৫টি পৌরসভা ও একটি থানা রয়েছে। এগুলো হচ্ছে- বাঁশখালী উপজেলা ও পৌরসভা, চন্দনাইশ উপজেলা ও পৌরসভা, লোহাগাড়া উপজেলা, বোয়ালখালী উপজেলা ও পৌরসভা, পটিয়া উপজেলা ও পৌরসভা, সাতকানিয়া উপজেলা ও পৌরসভা, আনোয়ারা উপজেলা এবং কর্ণফুলী থানা। দৈনিক আজাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!