ব্রেকিং নিউজ
Home | সাহিত্য পাতা | ডাঃ ফরিদা ইয়াসমিন সুমি’র ২টি কবিতা

ডাঃ ফরিদা ইয়াসমিন সুমি’র ২টি কবিতা

523

প্রেম-গীতি

বুকের মধ্যিটায় মেখেছিলাম
শুকনো বকুলের সুরভি!

গলার পরে যত্নে পরেছিলাম
চালতা ফুলে গাঁথা চন্দ্রহার!

হাওয়ায় দোদুল দুলেছিলাম
অশ্বত্থ -শাখার দোলনে!

আকন্ঠ প্রেম পান করেছিলাম
ভিজে যাওয়া চন্দ্রালোকে!

চলনছন্দে চমকে উঠেছিলাম
ঘুঙুরের আনন্দ আন্দোলনে!

পদ্মপুকুরে ডুব দিয়েছিলাম
অঙ্গ জুড়ে ঘৃতকুমারী মেখে!

চঞ্চলা চোখ সাজিয়েছিলাম
কুপির পরে কাঁঠাল পাতার কালিতে!

প্রেমগীতি রচনা করেছিলাম
কাজল -ধোয়া চোখের জলে!

অপেক্ষাতে রাত ভোর করেছিলাম
চির -প্রেমী হবার তাগিদে!


তখন তুমি ভালবাসবে তো?

কেনো যেনো আমাকে ভালবাসতে চাওনা তুমি
কিংবা বলা যায় ভালবাসতে পারোনা,
হয়তোবা মুখোশ -ঢাকা সমাজের বাস্তবতায়
আমাকে ভালবাসা সম্ভবপর হয়ে ওঠেনা তোমার!

আচ্ছা,আমি যদি আকাশ হই,
যতটা জীবন্ত নারী তার চেয়ে
ঢের ঢের জীবন্ত নীল আকাশ,
তখন তুমি আমাকে ভালবাসবে তো?
তোমার সমস্ত আবেগ নিয়ে
ভেসে বেড়াবে আমার দেহে,
আবার কখনো ভারি বর্ষা হয়ে
ঝরে যাবে একটুখানি,
বাষ্প হয়ে বুকে ফেরার জন্যে,
ফিরবে তো?

কিংবা,আমি যদি অরণ্য হই?
যতটা জীবন্ত নারী তার চেয়ে
ঢের ঢের জীবন্ত ঘন অরণ্য,
তখন তুমি আমাকে ভালবাসবে তো?
তোমার সমস্ত প্রতীতি নিয়ে
ঘুরে বেড়াবে রহস্য উন্মোচনে,
আবার কখনো বুনো ঝোপে
গন্ধে-পানে বুঁদ রবে একটুখানি
মহুয়া-মাতালে বোধ হারাতে
হারাবে তো?

অথবা ধরো,আমি যদি সমুদ্র হই?
যতটা জীবন্ত নারী তার চেয়ে
ঢের ঢের জীবন্ত গভীর সমুদ্র,
তখন তুমি আমাকে ভালবাসবে তো?
তোমার সমস্ত অগ্নিস্ফুলিঙ্গ নিয়ে
ঝাঁপ দেবে আমার নোনাজলে,
আবার কখনো ডুবসাঁতারে ক্লান্ত হবে একটুখানি,
শীতল হবার জন্যে
হবে তো?

তুমি ভালবাসলেই কেবল
আমার আকাশ-নীল,অরণ্য-ঘনত্ব কিংবা সমুদ্র-গভীরতা সার্থক হবে!

চেনা সমাজের বাস্তবতায় তখন আমাকে
ভালবাসা সম্ভবপর হয়ে উঠবে তো?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*