Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | চবিতে ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত

চবিতে ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত

image_printপ্রিন্ট করুন
1510581939
নিউজ ডেক্স : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। ছয় মাস আগে চবি ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত করা হয়েছিল। নতুন কমিটিতে আগ্রহী পদ প্রত্যাশীদের জীবন বৃত্তান্ত সংগ্রহের জন্য কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল এসেছেন।
সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের অডিটোরিয়ামে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের কাছে নিজেদের জীবনবৃত্তান্ত জমা দিয়েছেন চবি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।
চবি শাখা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি পদ প্রত্যাশীদের জীবনবৃত্তান্ত সংগ্রহকালে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সহ-সভাপতি মশিউর রহমান শরীফ, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ জমির উদ্দিন, দারুস সালাম শাকিল এবং উপ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মো. হোসাইন।
দারুস সালাম শাকিল বলেন, ‘বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সবগুলো ইউনিটের মধ্যে অন্যতম ইউনিট হলো চবি শাখা। আমরা অন্যান্য জায়গায় এই ইউনিটের গৌরব উজ্জ্বল অতীত মডেল হিসেবে তুলে ধরি।
তিনি আরও বলেন, চবি শাখা ছাত্রলীগ ক্যাম্পাসকে শিবির মুক্ত করেছে। নানা লড়াই সংগ্রামে এই ইউনিটের ভূমিকা অপরিসীম। আর তাই এই ধারাকে চালু রাখতে, চবি শাখাকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার লক্ষ্যে, পুরাতন কমিটিকে বিলুপ্ত করে দিয়ে নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে সকলের সহযোগিতা কমনা করছি।
জানা যায়, গত ৫ নভেম্বর বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি মাধ্যামে জানানো হয় যে, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখাকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার লক্ষ্যে আগামী ১৫ নভেম্বর তারিখের মধ্যে আগ্রহী পদ প্রত্যাশীদের “জীবন বৃত্তান্ত” বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সহ-সভাপতি কাজী এনায়েত, মশিউর রহমান শরীফ, সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ জমির উদ্দিন, দারুস সালাম শাকিল এবং উপ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক  মো: হোসাইনের নিকট জমা দেওয়ার আহ্বান করা হল।
নতুন কমিটির বিষয়ে চবি ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির সহ-সভাপতি মো. মামুন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক দিন ধরে কমিটি স্থগিত রয়েছে। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উদ্যোগের মাধ্যমে চবি আবার একটি নতুন কমিটি পেতে যাচ্ছি। তবে কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীদের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি যারা ক্যাম্পাস শিবির মুক্ত ও শ্রম দিয়েছে তাদেরকে যেন কমিটিতে রাখা হয়।
উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২০ জুলাই আলমগীর টিপুকে সভাপতি ও এইচএম ফজলে রাব্বী সুজনকে সাধারণ সম্পাদক করে কেন্দ্র থেকে দুই সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়। পরে ২০১৬ সালে আলমগীর টিপুকে সভাপতি ও এইচএম ফজলে রাব্বী সুজনকে সাধারণ সম্পাদক রেখে ২৬১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। তবে বারবার নিজেদের মধ্যে সংর্ঘষে জড়িয়ে পড়ায় কমিটি গঠনের পরে দুইবার স্থগিতাদেশ দেয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।
সর্বশেষ এ বছরের ৪ মে চবি ছাত্রলীগের দুপক্ষের সংর্ষের ঘটনায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ অনির্দিষ্টকালের জন্য এ শাখার কার্যক্রম স্থগিত করে দেয়। -ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!