Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | ২০১৪ সাল বাংলাদেশে আর কখনো ফিরে আসবে না : সাক্ষাতকারে অলি আহমদ

২০১৪ সাল বাংলাদেশে আর কখনো ফিরে আসবে না : সাক্ষাতকারে অলি আহমদ

image_printপ্রিন্ট করুন

aW1hZ2UtMTMwMDAtMTUwNDEwNzMxNS5qcGc

নিউজ ডেক্স : কর্নেল অলি আহমদ চট্টগ্রাম জেলার চন্দনাইশ উপজেলায় সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে ১৯৩৯ সালে ১৩ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা আহমদ ছফা, মাতা বদরুননেছা, স্ত্রী মমতাজ বেগম। তাঁর দুই ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে।

তিনি ১৯৭১ পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে কর্মরত ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধে সাহসিকতার জন্য বাংলাদেশ সরকার তাঁকে বীরবিক্রম খেতাব প্রদান করেন। জিয়াউর রহমান বিএনপি গঠন করলে তিনি সেনাবাহিনীর চাকুরি ছেড়ে রাজনীতিতে যোগদান করেন। তিনি ১৯৭৯ সালে উপনির্বাচনে অংশ নিয়ে এমপি নির্বাচিত হন। ১৯৮১ সালে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তী ১৯৯১ সালে নির্বাচনে অংশ নিয়ে নির্বাচিত হন এবং বিএনপি সরকার গঠন করলে যোগাযোগ মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।

এছাড়াও তিনি বিএনপি সরকারের খনিজসম্পদ মন্ত্রি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। দীর্ঘকাল বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত থাকার পর ২০০৬ সালে ২৬ অক্টোবর তিনি সাবেক রাষ্ট্রপতি একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর সাথে লিবারেল ডেমোগ্রেটিক পার্টি (এলডিপি) গঠন করেন। বর্তমানে তিনি এলডিপি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। আসন্ন নির্বাচন ও রাজনীতি নিয়ে তিনি কথা বলেছেন।

প্রশ্ন : কোন জোট থেকে নির্বাচন করবেন ?

অলি : জাতীয় নির্বাচন আদৌ হবে কিনা নিশ্চিত নয়। দেশের সার্বিক অবস্থা ভালো নয়। অর্থনীতিতে যে কোন সময় ধস নামতে পারে। প্রতিটি ব্যাংকে তারল্য সংকট। বিশ্বব্যাংক রিপোর্টেও বলেছে, সরকার যদি সবকিছু দক্ষভাবে ব্যবস্থা না নেয়, তাহলে অর্থনীতিতে ধস নামতে পারে।

প্রশ্ন : জোটগত নির্বাচনকে আপনি কিভাবে দেখছেন ?

অলি : বাংলাদেশে এটা নতুন কোন বিষয় নয়। ১৯৫৪ সালের পর থেকে একাধিকবার আওয়ামী লীগ জোটগতভাবে নির্বাচন করেছে। ১৯৯৬ সালের পরে বিএনপিও জোট করে নির্বাচন করেছে। বাংলাদেশ নয় এশিয়ার অনেকগুলো দেশে জোটগতভাবে নির্র্বাচন হয়েছে। সম্প্রতি জার্মানিসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে জোটগতভাবে নির্বাচন হয়েছে। জোটগতভাবে সরকার গঠন করা সহজ। এককভাবে অনেক সময় নির্বাচন করা সম্ভব হয় না। কোনো দলের পক্ষে এককভাবে নির্বাচন করে সরকার গঠন করা কঠিন। এটা অবশ্যই ইতিবাচক।

অপর একটি প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন নির্বাচন হচ্ছে কিনা তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। সুতরাং এখন এ ব্যাপারে মন্তব্য করার সময় আসে নাই। ২০১৪ সাল বাংলাদেশে আর কখনো ফিরে আসবে না। বিকাশের মাধ্যমে কেউ এমপি হওয়া সম্ভব হবে না। জনগণ তাদের রায় প্রদান করতে চায়। জনগণের রায়ের মাধ্যমে সরকার গঠন করা হোক। গণতন্ত্রকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন একান্ত অপরিহার্য। দেশকে এগিয়ে নিতে হলে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের জনগণের জন্য কাজ করতে হবে। সমস্যা আছে, সমস্যা থাকবে। প্রয়োজন সহনশীলতা, একে অপরের প্রতি সম্মান প্রদর্শন এবং পারস্পরিক আলোচনার মাধ্যমে ঐক্যমতে পৌঁছা। সময়ের দাবি, অবাধ নিরপেক্ষ, সুষ্ঠু এবং সকল রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠান। এর পূর্বশর্ত হিসেবে প্রত্যেকটা রাজনৈতিক দলের জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। অন্যথায় জনগণের আশা-আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটবে না। দেশে শান্তি ফিরে আসবে না।

সূত্র : দৈনিক পূর্বকোণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!