Home | ব্রেকিং নিউজ | লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জনবল সংকট, কাঙ্খিত সেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরা

লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জনবল সংকট, কাঙ্খিত সেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরা

image_printপ্রিন্ট করুন

এলনিউজ২৪ডটকম : লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকসহ মারাত্মক জনবল সংকট রয়েছে। এতে কাঙ্খিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন রোগীরা। ফলে উপজেলার দূর-দূরান্ত থেকে আসা রোগীদের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এছাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আওতাধীন আধুনগর, বড়হাতিয়া, চরম্বা ও পদুয়া সাব সেন্টারেও রয়েছে জনবল সংকট।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সরেজমিন পরিদর্শনে গিয়ে জানা যায়, হাসপাতালে চিকিৎসকের পদ রয়েছে ২১টি। বর্তমানে কর্মরত আছে ১৩ জন। এরমধ্যে ৩ জন সংযুক্তিতে অন্য হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ১০ জন থাকার কথা থাকলেও রয়েছেন ২ জন। তারমধ্যে শিশু বিশেষজ্ঞ সংযুক্তিতে নগরীর এক হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন। অন্যজন গাইনী বিশেষজ্ঞ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়মিত চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন। কয়েকমাস যাবত নষ্ট হয়ে পড়ে আছে এক্সরে মেশিন। লোকবলের অভাবে ফটোথেরাপি, ইনকিউবেটর ও আল্ট্রাসনোগ্রাফি মেশিন অকেজো হয়ে পড়ে আছে। এছাড়া ফার্মাসিস্ট, প্রধান সহকারি, অফিস এসিস্ট্যান্ট ও মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট পদে কোন লোকবল নেই। ৫০ শয্যার এ হাসপাতালে নিয়মিত ৪০-৫০ জন রোগী ভর্তি থাকেন। মাঝে মধ্যে ধারণ ক্ষমতার চেয়ে রোগী বৃদ্ধি পান। বর্হিবিভাগে প্রতিদিন সাড়ে ৩ থেকে ৪শ জন রোগী চিকিৎসাসেবা নেন। হাসপাতালে পর্যাপ্ত ঔষুধ সরবরাহ রয়েছে। ফলে বর্হিবিভাগ ও আন্তঃবিভাগে চিকিৎসা নেয়া রোগীদের বিনামূল্যে ঔষধ দেয়া হয়ে থাকে।

অপরদিকে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২০ জন নার্সের মধ্যে রয়েছে ১০ জন, ওয়ার্ডবয় ৪ জনের মধ্যে রয়েছে ২ জন, অফিস সহকারী ৪ জনের মধ্যে রয়েছে ১ জন ও নিরাপত্তা প্রহরী ২ জনের মধ্যে রয়েছে ১ জন। এছাড়া স্টোরকিপার, এন্টিল্যাব, কার্ডিওগ্রাফার, ফিজিওথেরাপিস্ট, ফার্মাসিস্ট, সিস্টার মিডওয়াইফ ও বাবুর্চি পদে দীর্ঘদিন যাবত কোন জনবল নেই।

এদিকে, প্রতিটি সাব সেন্টার একজন করে চিকিৎসক, ফার্মাসিস্ট, মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট ও এমএলএসএস থাকার কথা। কিন্তু পদুয়া সাব সেন্টারে রয়েছে শুধুমাত্র একজন এমএলএসএস, চরম্বা সাব সেন্টারে রয়েছে শুধুমাত্র চিকিৎসক, বড়হাতিয়া সাব সেন্টারে রয়েছে শুধুমাত্র মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট এবং আধুনগর সাব সেন্টারে রয়েছে মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট ও এমএলএসএস। তাও আগামী দুই মাস পর আধুনগর সাব সেন্টারের মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট অবসরে যাবেন বলে জানা গেছে।

পদুয়া থেকে চিকিৎসাসেবা নিতে আসা আরেফা বেগম জানান, চর্ম রোগে আক্রান্ত হয়ে সেবা নিতে হাসপাতালের বর্হিবিভাগ থেকে টিকেট সংগ্রহ করেন। পরে জানতে পারে হাসপাতালে চর্ম রোগ বিশেষজ্ঞ নেই। এতে কাঙ্খিত সেবা না পেয়ে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ হানিফ জানান, দীর্ঘদিন যাবত চিকিৎসকসহ জনবল সংকট রয়েছে হাসপাতালে। এ সংকট নিরসনের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার অবহিত করা হয়েছে। জনবল সংকটের কারণে রোগীদের কাঙ্খিত চিকিৎসাসেবা দেয়ার ইচ্ছে থাকলেও সম্ভব হয় না। জনবল সংকট নিরসন হলে রোগীরা মানসম্মত চিকিৎসাসেবা পাবেন বলে জানান তিনি।

এলাকার সচেতন মহল প্রত্যাশা করছেন, মানসম্মত চিকিৎসাসেবা প্রদানে লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রয়োজনীয় সংখ্যক চিকিৎসক ও জনবল নিয়োগ দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ দ্রুত পদক্ষেপ নিবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!