ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | সাতকানিয়ায় একজন গুলিবিদ্ধ

সাতকানিয়ায় একজন গুলিবিদ্ধ

guli2

নিউজ ডেক্স : সাতকানিয়ায় জামায়াত ক্যাডারের গুলিতে শিবির ক্যাডার গুলিবিদ্ধ হয়েছে। তার নাম দিদারুল ইসলাম (৩০)। গতকাল শুক্রবার রাতে উপজেলার এওচিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম গাটিয়াডেঙ্গা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, উপজেলার এওচিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়র্ডের পশ্চিম গাটিয়াডেঙ্গার ওয়াহেদের পাড়ার নুরুল ইসলামের পুত্র চিহ্নিত শিবির ক্যাডার দিদারুল ইসলাম ঘরে বসে টেলিভিশন দেখছিল। এ সময় জামায়াত ক্যাডার আবদুল মাবুদসহ ৪ জনের একটি দল ঘরে প্রবেশ করে টানা–হেঁচড়া করে দিদারুল ইসলামকে ঘরের উঠানে নিয়ে আসে এবং পায়ে পরপর দুই রাউন্ড গুলি করে পালিয়ে যায়। এসময় দিদারুল ইসলাম এবং তার পরিবারের সদস্যদের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সাতকানিয়া থানায় এবং পরে সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার মনজুরুল ইসলাম জানান, দিদারুল ইসলামের বাম পায়ের হাঁটুর সামান্য উপরে গুলি লেগেছে। সেটি পায়ের একপাশ দিয়ে ঢুকে অন্য পাশ দিয়ে বের হয়ে গেছে। আমরা তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেছি।

সাতকানিয়া থানার এসআই মিজানুর রহমান জানান, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যায়। ওই সময় দিদারুল ইসলামের ঘরে কেউ ছিল না। পরে আমরা আশপাশের লোকজনের সাথে কথা বলে জানতে পারলাম রাতে দিদারুল ঘরে বসে টেলিভিশন দেখছিল। এ সময় ৪ জনের এক দলটি ঘরে ঢুকে তাকে বের করে উঠানে নিয়ে আসে। এরপর পায়ে গুলি করে পালিয়ে যায়। দিদারের পায়ে একটি গুলি লেগেছে।

সাতকানিয়া থানার ওসি মো. রফিকুল হোসেন জানান, মূলত জামায়াত ক্যাডারের গুলিতে শিবির ক্যাডার গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গুলিবিদ্ধ দিদারুল ইসলাম ঘটনায় জড়িতদের চিনতে পেরেছে বলে জানিয়েছে। জামায়াত ক্যাডার আবদুল মাবুদ তাকে গুলি করেছে বলে সে জানিয়েছে। তার বিরুদ্ধে সাতকানিয়া থানায় ১৩টি মামলা রয়েছে। দিদারও চিহ্নিত শিবির ক্যাডার। তার বিরুদ্ধে সাতকানিয়া থানায় ৬টি মামলা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে জামায়াত শিবিরের অভ্যন্তরীন কোন বিষয় নিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে পুলিশ অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহন করবে। -দৈনিক আজাদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*