ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | রোববার রাঙামাটিতে সড়ক ও নৌপথে সকাল-সন্ধ্যা অবরোধ

রোববার রাঙামাটিতে সড়ক ও নৌপথে সকাল-সন্ধ্যা অবরোধ

rangamati20170422183525

নিউজ ডেক্স : ইউপিডিএফ সমর্থনপুষ্ট ছাত্র সংগঠন বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের (পিসিপি) নানিয়ারচর থানার সাধারণ সম্পাদক রমেল চাকমার মৃত্যুকে হত্যাকাণ্ড বলে দাবি করছে সংগঠনটি। এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ এবং বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবিতে রোববার রাঙামাটি জেলায় সড়ক ও নৌপথে সকাল-সন্ধ্যা অবরোধ কর্মসূচি দিয়েছে তারা।

শনিবার এক বিবৃতিতে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ এবং রমেল চাকমা হত্যা প্রতিবাদ কমিটিসহ সাত আঞ্চলিক সংগঠন এই অবরোধ কর্মসূচির ঘোষণা দেয়।

রমেল চাকমা হত্যা প্রতিবাদ কমিটির আহ্বায়ক সুনন্দা তালুকদার ও বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিনয়ন চাকমা বিবৃতিতে ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, রমেল চাকমা নিরীহ ছাত্র ও এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। ৫ এপ্রিল আটকের পর তার ওপর অমানুষিক নির্যাতন চালিয়ে তাকে আহত করা হয়। এরপর গুরুতর অবস্থায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে দুই সপ্তাহ ধরে চিকিৎসাধীন থাকার পর ১৯ এপ্রিল তার মৃত্যু হয়।

বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়, বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে রমেল চাকমার মরদেহটি বাড়ির উদ্দেশ্যে নেয়া হলে রাত ৮টার সময় বুড়িঘাটবাজার এলাকার পরিবারের লোকজনের কাছ থেকে মরদেহটি জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়া হয়। শুক্রবার দুপুরে সামাজিক, ধর্মীয় রীতিনীতি তোয়াক্কা না করে পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতি ছাড়াই পেট্রল ঢেলে মরদেহটি পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ঘটনার প্রতিবাদে এবং বিচারবিভাগীয় তদন্তের দাবিতে রোববার রাঙামাটি জেলায় সকাল-সন্ধ্যা অবরোধ কর্মসূচি দেয়া হয়েছে। পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ এবং রমেল চাকমা হত্যার প্রতিবাদ কমিটি ছাড়াও কর্মসূচি ও দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়েছে গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম, পার্বত্য চট্টগ্রামের পাঁচ নারী সংগঠন হিল উইমেন্স ফেডারেশন, পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘ, ঘিলাছড়ি নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি, সাজেক নারী সমাজ ও নারী আত্মরক্ষা কমিটি।

বিবৃতিতে আগামী মঙ্গলবার (২৫ এপ্রিল) রাঙামাটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান ধর্মঘট এবং ২৬ এপ্রিল নানিয়ারচর বাজার বয়কটের কর্মসূচিও ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে, রাঙামাটির কুতুকছড়িতে বাস ভাঙচুর, চালক ও হেলপারকে মারধরের প্রতিবাদে শনিবার জেলার সবকটি সড়কে সকাল-সন্ধ্যা বাস ধর্মঘট পালন করেছেন রাঙামাটি বাস মালিক ও শ্রমিকরা।

উল্লেখ্য, ট্রাক পোড়ানো ও বাস লুটের অভিযোগে ৫ এপ্রিল রাঙমাটির নানিয়ারচর সদর থেকে রমেলকে আটক করে নিরাপত্তা বাহিনী। পরে তাকে অসুস্থ অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ভর্তি করা হয়। ১৯ এপ্রিল সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রমেল চাকমার মৃত্যু হয়। পরিবারসহ বিভিন্ন মহলের দাবি অতিরিক্ত নির্যাতনের কারণে রমেল চাকমার মৃত্যু হয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*