Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | বিদ্যুৎস্পৃষ্টে হাতির মৃত্যুতে ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে হাতির মৃত্যুতে ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

Rangunia-

নিউজ ডেক্স : রাঙ্গুনিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে একটি হাতির মৃত্যু হয়েছে। হাতি তাড়াতে পেতে রাখা বৈদ্যুতিক ফাঁদে আটকে হাতিটির মৃত্যু হয়। উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের নারিশ্চা জয়নগর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। কাউকে কিছু না বলে গোপনে হাতিটিকে ৭ ফুট গভীর গর্ত করে পুতে ফেলা হয়। পরে খবর পেয়ে বন বিভাগের কর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে মঙ্গলবার বিকেলে হাতিটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করেন। এই ঘটনায় বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে হাতি হত্যার দায়ে ৪ জনের নাম উল্লেখএবং অজ্ঞাত আরও ১৫-২০ জনকে বিবাদী করে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

biman-ad

নারিশ্চা বিট কর্মকর্তা মুহাম্মাদ আব্দুল মান্নান জানান, পদুয়া জয়নগর এলাকার সায়ের আহমদের পুত্র আবুল হাসেম (৫০) তার বসতবাড়ি ও কলাগাছ হাতির তাণ্ডব থেকে রক্ষায় বাড়ির চারপাশে বৈদ্যুতিক তার দিয়ে ফাঁদ পেতে রাখে। সোমবার রাত ১২টার দিকে একটি হাতি ওই ফাঁদে জড়িয়ে মারা যায়। পরে কাউকে না জানিয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় হাতিটিকে তার বসতবাড়ি থেকে ১০০ গজ দূরে নিয়ে মাটিতে পুতে ফেলেন তিনি। গোপন সংবাদে খবর পেয়ে অভিযান চালান রাঙ্গুনিয়া বন অফিসের কর্মকর্তারা। অভিযানে হাতিটিকে মাটির ৭ ফুট গভীর থেকে উঠানো হয়। পরে উপজেলা প্রাণীসম্পদ অফিসের চিকিৎসক হারুনুর রশীদ, শেখ রাসেল, এভিয়ারী পার্কের সহকারী ভেটেরিনারি সার্জন ডা. আলিমুল রাজী হাতিটির ময়নাতদন্ত করেন।

উপজেলা রেঞ্জ কর্মকর্তা প্রহলাদ চন্দ্র রায় বলেন, ‘বৈদ্যুতিক ফাঁদ পেতে বন্য হাতি হত্যা করার খবরে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইনে পদুয়া জয়নগর এলাকার সায়ের আহম্মদের ছেলে আবুল হাসেম (৫০), তার ছেলে মহিউদ্দিন (২৮), সাহেব উদ্দিন (২৫) ও প্রতিবেশী মেরা মিয়ার ছেলে মো. জেবল হোসেনের (৪০) নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত ১৫-২০ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীরা বন কর্মকর্তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে পালিয়ে যায়।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!