ব্রেকিং নিউজ
Home | লোহাগাড়ার সংবাদ | বাংলা বর্ষবরণে প্রস্তুত লোহাগাড়া

বাংলা বর্ষবরণে প্রস্তুত লোহাগাড়া

158

এলনিউজ২৪ডটকম : পহেলা বৈশাখ বাংলা সনের প্রথম দিন। এ দিনটি বাংলাদেশে নববর্ষ হিসেবে পালিত হয়। এটি বাঙালির একটি সর্বজনীন লোকউৎসব। এদিন আনন্দঘন পরিবেশে বরণ করে নেওয়া হয় নতুন বছরকে। কল্যাণ ও নতুন জীবনের প্রতীক হলো নববর্ষ। অতীতের ভুলত্রুটি ও ব্যর্থতার গ্লানি ভুলে নতুন করে সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধির কামনায় উদ্যাপিত হয় নববর্ষ।

সেই ধারাবাহিকতায় সারাদেশের মতো লোহাগাড়ায়ও ১৪২৪ নতুন বর্ষকে পালনের জন্য যেন অনেকটায় ব্যাস্ত হয়ে পড়েছে মানুষ। উপজেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নানা ধরনের আয়োজন হাতে নিয়েছে। জানা যায়, উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নেয়া কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পান্তা-পিয়া উল্লেখযোগ্য।

ইতিমধ্যে বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন গুলো পৃথকভাবে বর্ষবরণ করতে তৈরী করছে ব্যানার, ফেস্টুন। এছাড়া মঙ্গল শোভাযাত্রায় বাঙালির ঐতিহ্যকে তুলে ধরতে তৈরী করা হচ্ছে বিভিন্ন জিনিসপ্রত্র। এবার সরকার দেশের প্রতিটি প্রাথমিক, উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজ সমূহকে পহেলা বৈশাখ উদযাপনের নির্দেশ দিয়েছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, লোহাগাড়ার প্রায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পহেলা বৈশাখ উদযাপনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

এছাড়াও লোহাগাড়া অনলাইন প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে পহেলা বৈশাখ বরণ উপলক্ষে সন্ধ্যায় উপজেলা সদরের এক কমিউনিটি সেন্টারে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

উল্লেখ্য, বাংলা নববর্ষ পালনের সূচনা হয় মূলত আকবরের সময় থেকেই। আকবর ১৫৮৪ খ্রিস্টাব্দের ১০/১১ মার্চ বাংলা সন প্রবর্তন করেন এবং তা কার্যকর হয় তাঁর সিংহাসন-আরোহণের সময় থেকে (৫ নভেম্বর ১৫৫৬)। সে সময় বাংলার কৃষকরা চৈত্রমাসের শেষদিন পর্যন্ত জমিদার, তালুকদার এবং অন্যান্য ভূ-স্বামীর খাজনা পরিশোধ করত। পরদিন নববর্ষে ভূস্বামীরা তাদের মিষ্টিমুখ করাতেন। এ উপলক্ষে তখন মেলা এবং অন্যান্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হতো। ক্রমান্বয়ে পারিবারিক ও সামাজিক জীবনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে মিশে পহেলা বৈশাখ আনন্দময় ও উৎসবমুখী হয়ে ওঠে এবং বাংলা নববর্ষ শুভদিন হিসেবে পালিত হতে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*