Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | ধসে পড়েছে বাংলাদেশের ব্যাটিং

ধসে পড়েছে বাংলাদেশের ব্যাটিং

ছবি: এএফপি

ছবি: এএফপি

নিউজ ডেক্স : খুব অসম্ভব কিছু না ঘটলে সিলেটে নিজেদের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ জয় দিয়ে স্মরণীয় করে রাখতে পারছে না বাংলাদেশ। ৬৯ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর ম্যাচের এই মুহূর্তে জয়ের আশা দূরাশাই মনে হচ্ছে। সৌম্য, মুশফিক, মিথুনের পর ফিরে গেছেন ওপেনার তামিম ইকবাল এবং আরিফুল হক। আমিলা আপনসোর বলে ধনাঞ্জয়ার তালুবন্দি হন ২৩ বলে ২৯ রান করা তামিম। এর পরেই ২ রানে আরিফুলকে এলবিডাব্লিউ করে দেন জীবন মেন্ডিস।

২১১ রানের পাহাড়সম টার্গেট চেজিংয়ে নেমে দলীয় ৮ রানে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। আগের ম্যাচে বিধ্বংসী ইনিংস খেলা ওপেনার সৌম্য সরকার আজ কোনো রান না করেই ধনাঞ্জয়ার বলে কুশল মেন্ডিসের তালুবন্দি হন। ইনিংসের তৃতীয় ওভার করতে এসে জোড়া আঘাত হানেন মাদুশাঙ্কা। তৃতীয় বলে মুশফিককে (৬) এবং শেষ বলে মোহাম্মদ মিথুনকে (৫) যথাক্রমে থিসারা পেরেরা আর কুশল মেন্ডিসের তালুবন্দি করেন তিনি। মহাবিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে শ্রীলঙ্কা। তামিম এবং মাহমুদ উল্লাহর ক্যাচ মিসের সৌজন্যে কুশল মেন্ডিস এবং দানুশকা ৯৮ রানের ওপেনিং জুটি গড়েন। শেষ পর্যন্ত পার্টটাইম বোলার সৌম্য সরকারের বলে গুনাথিলাকা (৪২) তামিম ইকবালের তালুবন্দি হলে ভাঙে এই জুটি।

তবে ২৯ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন কুশল মেন্ডিস। রানের গতি বাড়াতে তিন নম্বরে নামানো হয় থিসারা পেরেরাকে। ১৭ বলে ৩১ রান করার পর অভিষিক্ত আবু জায়েদের বলে সৌম্য সরকারের তালুবন্দি হন তিনি।

এরপর মঞ্চে আসেন ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজুর রহমান। ৪২ বলে ৬ চার ৩ ছক্কায় ৭০ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলা ওপেনার কুশল মেন্ডিসকে অভিষিক্ত মেহেদি হাসানের তালুবন্দি করেন তিনি। শেষ ওভারে উপুল থারাঙ্গা (২৫) সাইফ উদ্দিনের শিকার হলেও নির্ধারিত ২০ ওভারে ২১০ রানের পাহাড় গড়ে শ্রীলঙ্কা।

থারাঙ্গা আউট হলেও ১১ বলে ৩০ রান অপরাজিত থাকেন দাশুন শানাকা। আবু জায়েদ, মুস্তাফিজ, সাইফ উদ্দিন এবং সৌম্য ১টি করে উইকেট  নেন। অভিষিক্ত মেহেদি হাসান ২ ওভারে সবচেয়ে বেশি ২৫ রান দিয়ে কোনো  উইকেট পাননি।

সিরিজের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের একাদশে এসেছে চারটি পরিবর্তন। চোট কাটিয়ে ফিরেছেন দেশসেরা ওপেনার  তামিম ইকবাল। তাকে জায়গা দিতে দল থেকে বাদ পড়েছেন গত ম্যাচে অভিষিক্ত জাকির হাসান। গত ম্যাচে অপর অভিষিক্ত আফিফের জায়গায় সুযোগ পেয়েছেন মোহাম্মদ মিথুন। এছাড়া অভিষেক হয়েছে বিপিএল মাতানো অফ স্পিনিং অল-রাউন্ডার মেহেদি হাসান এবং পেসার আবু জায়েদ রাহির। গত ম্যাচেও চারজনের অভিষেক হয়েছিল।

বাংলাদেশ দল: সৌম্য সরকার, তামিম ইকবাল, মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদ উল্লাহ, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, আরিফুল হক, মেহেদি হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান, আবু জায়েদ, নাজমুল ইসলাম অপু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*