ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | চট্টগ্রামে ভোটকেন্দ্র বেড়েছে ৫৮টি

চট্টগ্রামে ভোটকেন্দ্র বেড়েছে ৫৮টি

Li3IBv_1503572374 (1)

নিউজ ডেক্স : আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের লক্ষ্যে ভোটকেন্দ্র, ভোটকক্ষ ও ভোটার তালিকা চূড়ান্তভাবে প্রকাশ করেছে ইসি। গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চেয়ে এবার ভোটকেন্দ্র ৫৮টি ও ভোটকক্ষ বেড়েছে ৮১৬টি। নির্বাচনে ভোট দেবেন ৫৬ লাখ ৩৯,৩৬৩ জন।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামে এক হাজার ৮৯৮টি ভোটকেন্দ্র ও ১০ হাজার ৬৮৩টি ভোটকক্ষ চূড়ান্ত করা হয়েছে। গত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চেয়ে আগামী নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র বেড়েছে ৫৮টি। ভোটকক্ষ বেড়েছে ৮১৬টি।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মুনীর হোসাইন খান বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য ভোটার তালিকা, ভোটকেন্দ্র ও ভোটকক্ষের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এই তালিকার ভিত্তিতে নির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হবে।

ইসির তালিকায় দেখা যায়, নগরীর পাঁচলাইশে একটি কক্ষ বেড়ে ১০১টি ভোটকেন্দ্র চূড়ান্ত করা হয়েছে। ভোটকক্ষ আগের চেয়ে ২০টি কমে হয়েছে ৫৬৭টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ৪৪ হাজার ৪৫৯ জন। চান্দগাঁও থানায় পূর্বের একশটি ভোটকেন্দ্র অপরিবর্তিত রয়েছে। ভোটকক্ষ ৬৩টি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৯৮টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ এক হাজার ৬৯১ জন। কোতোয়ালীতে একটি কেন্দ্র বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৯টি। ভোটকক্ষ ৩৩টি বেড়ে হয়েছে ৪৪৯টি। ভোটার হচ্ছে দুই লাখ ৩৯ হাজার ৯১৪ জন। ডবলমুরিং এ ১০৩টি ভোটকেন্দ্র অপরিবর্তিত রয়েছে। ভোটকক্ষ ১৬টি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৪৩টি। ভোটার হচ্ছে চার লাখ ৮ হাজার ৫০ জন। পাহাড়তলীতে আটটি ভোটকেন্দ্র বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬১টি। ভোটকক্ষ ৬৮টি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৮৬টি। ভোটার হচ্ছে দুই লাখ ৫২ হাজার ৯০৪ জন। বন্দর থানায় একটি কেন্দ্র বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০১টিতে। ১২টি ভোটকক্ষ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৩৬টিতে। ভোটার হচ্ছে তিন লাখ ৫৬ হাজার ৬৬৭ জন।

সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ভোটকেন্দ্র বেড়েছে ১১টি আর ভোটকক্ষ বেড়েছে ১৭২টি। ভোটার হচ্ছে ১৯ লাখ তিন হাজার ৬৮৫জন।

এদিকে জেলার মিরসরাই উপজেলায় দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চেয়ে ৭টি ভোটকেন্দ্র বেড়ে আগামী নির্বাচনের জন্য ১০৩টি ভোটকেন্দ্র চূড়ান্ত করা হয়েছে। ভোটকক্ষ ৮০টি বেড়ে করা হয়েছে ৬৫০টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ১৪ হাজার ৭৪৩টি। ফটিকছড়ি উপজেলায় তিনটি ভোটকেন্দ্র বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৬টি। ৯৩টি ভোটকক্ষ বেড়েছে দাঁড়িয়েছে ৬৯০টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ৭৫ হাজার ২৭৮টি। সন্দ্বীপ উপজেলায় ৭৯টি ভোটকেন্দ্রের পরিবর্তন হয়নি। ৫টি কক্ষ বেড়ে হয়েছে ৩৬৫টি। ভোটার সংখ্যা দুই লাখ তিন হাজার ২৮৫ জন। সীতাকু- উপজেলায় ৮২টি ভোটকেন্দ্র ও ৫০৪টি ভোটকক্ষ অপরিবর্তিত রয়েছে। ভোটার সংখ্যা দুই লাখ ৯১ হাজার ৬১৪ জন। হাটহাজারী উপজেলা ১০৬টি ভোটকেন্দ্র বহাল রয়েছে। ৫৮টি ভোটকক্ষ বেড়ে হয়েছে ৫৫৯টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ৭ হাজার ৯৪০ জন। রাউজানে একটি কেন্দ্রে বেড়ে হয়েছে ৮৪টি। ভোটকক্ষ ৪৫৫টি অপরিবর্তিত রয়েছে। ভোটার সংখ্যা দুই লাখ ৭৬ হাজার ৪৮২ জন। রাঙ্গুনিয়ায় তিনটি ভোটকেন্দ্র বেড়ে ৮৮ টিতে দাঁড়িয়েছে। ভোটকক্ষ ২১টি বেড়ে হয়েছে ৪৪৩টি। ভোটার সংখ্যা দুই লাখ ৫৩ হাজার ১২২ জন। বোয়ালখালীতে ৭৭টি ভোটকেন্দ্র বহাল রয়েছে। ভোটকক্ষ ৫৩টি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩১১টি। ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৮০ হাজার ২৪৭ জন। পটিয়ায় ১২টি ভোটকেন্দ্র বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১১টি। ভোটকক্ষ ১৫০টি বেড়ে হয়েছে ৬৭৯টি। ভোটার হচ্ছে দুই লাখ ৮৩ হাজার ৬৭৭ জন। কর্ণফুলী উপজেলায় ভোটকেন্দ্র ৩২টি থেকে বেড়ে হয়েছে ৩৯ টি। আর ভোটকক্ষ ৬৬টি থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫৫টি। ভোটার সংখ্যা এক লাখ ১০ হাজার ৭৫৭ জন। আনোয়ারায় একটি ভোটকেন্দ্র বেড়ে হয়েছে ৬৭টি। ১৫টি ভোটকক্ষ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪০১টি। ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৯৮ হাজার ৬৪২ জন। চন্দনাইশ উপজেলায় একটি কেন্দ্র বেড়ে হয়েছে ৬৮টি। ভোটকক্ষ ৩৫৫টি অপরিবর্তিত রয়েছে। ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৬৩ হাজার ৯৫ জন। সাতকানিয়ায় ১৩টি ভোটকেন্দ্র বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২৪টি। ভোটকক্ষ ২৮টি বেড়ে হয়েছে ৫৭০টি। ভোটার সংখ্যা দুই লাখ ৮৩ হাজার ৪৬৭ জন। লোহাগাড়ায় একটি কেন্দ্রে কমে হয়েছে ৫৯টি। ৪০টি কক্ষ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৭৭টি। ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৯০ হাজার ৩২০ জন। বাঁশখালীতে ১১০টি ভোটকেন্দ্র অপরিবর্তিত রয়েছে। ৩৫টি ভোটকক্ষ বেড়ে হয়েছে ৫৯০টি। ভোটার সংখ্যা তিন লাখ তিন হাজার ৯ জন।

সূত্র : দৈনিক পূর্বকোণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*