Home | ব্রেকিং নিউজ | কুমিরাঘোনায় ইছালে সওয়াব মাহফিলে ধর্মপ্রাণ লাখো মানুষের ঢল

কুমিরাঘোনায় ইছালে সওয়াব মাহফিলে ধর্মপ্রাণ লাখো মানুষের ঢল

100

এলনিউজ২৪ডটকম : দক্ষিণ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার ঐতিহাসিক বড়হাতিয়া আখতারাবাদ (কুমিরাঘোনা) বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স এলাকায় প্রতি বছরের ন্যায় এবারও আজ ২৬ জানুয়ারি শনিবার ৩ দিন ব্যাপী বিশাল ইছালে সওয়াব মাহফিল বিকেলে আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

biman-ad

গত ২৪ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার থেকে এ মাহফিলের কার্যক্রমের সূচনা হয়। মাহফিলে কঠোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে মোতায়েন ছিল বিপুল সংখ্যাক নিরাপত্তা কর্মী। প্রতি বছরের মত এ মাহফিলে দেশ-বিদেশ থেকে আগত লক্ষাধিক মানুষ আখেরী মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন।

এতে সাবেক মন্ত্রী, এমপি, সাবেক এমপি, রাষ্ট্রদূত, রাজনীতিবিদ, অর্থনীতিবিদ, শিল্পপতি, সরকারী- বেসরকারী পদস্থ কর্মকর্তা পেশাজীবী নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ার প্রধানসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আগত ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা এ মাহফিলের আখেরী মোনাজাতে অংশ গ্রহণ করেন।

লোহাগাড়া থানা সূত্রে জানা গেছে, আল্লাহর আউলিয়াদের এই ইছালে সওয়াব মাহফিলের পবিত্রতা, সৌন্দর্য্য ও শৃঙ্খলা রক্ষায় আমাদের প্রশাসনের পক্ষ থেকে সক্রিয়ভাবে দায়িত্ব পালন করা হয়েছে। নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পুলিশের একটি দল সার্বক্ষণিক দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন।

তথ্যানুসন্ধানে দেখা গেছে, মাহফিল শুরুর প্রথম দিন থেকে বাস, ট্রাক, মাইক্রো, কার, পাজেরো জীপ ভর্তি লোকজন দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা শুরু করছিল। মাহফিলের আশপাশ এলাকায় তাবু টাঙ্গিয়ে ভক্তানুরাগী অতিথিবৃন্দরা অবস্থান করেন। আখেরী মোনাজাত শেষে তারা স্থান ত্যাগ করতে দেখা গেছে। ঘন্টা ব্যাপী স্থায়ী মোনাজাতে অংশ নিতে আসা মাহফিলের চতুরপার্শ্বে অন্তত ৫ কিঃমিঃ জায়গা কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। প্রতি বছরের মত এ ইছালে সওয়াব মাহফিল উপলক্ষে লোহাগাড়া বটতলী ষ্টেশন হয়ে আরকান সড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়।

থানা প্রশাসন আরো জানিয়েছে, আরকান সড়কে ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন ছিল। বড়হাতিয়া ইউনিয়ন পরিষদ, আনসার বাহিনী ও স্বেচ্ছাসেবক দলের অসংখ্য লোকজন প্রশাসনের পাশাপাশি মাহফিলের শৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করেছে। তিন দিন ব্যাপী মাহফিলে অলিকূলের সম্রাট ও পীর আউলিয়াদের এই ইছালে সওয়াব মাহফিলে দূরদূরান্ত থেকে আগত হযরত ওলমায়েকেরাম, পীর মশায়েখ ও ইসলামী চিন্তাবিদগণ মূল্যবান তকরীর পেশ করেন।

বড় পীর গাউছুল আযম হযরত আবদুল কাদের জিলানী (রাহঃ), বায়তুশ শরফ আঞ্জুমনে ইত্তেহাদ বাংলাদেশ এর প্রতিষ্ঠাতা কুতুবুল আলম শাহ সুফী হযরত আলহাজ মাওলানা মীর মোহাম্মদ আখতার শাহ্ (রাহঃ) ও মরহুম পীর ছাহেব কেবলা হযরত শাহ্ সুফী আলহাজ মাওলানা আবদুল জব্বার শাহ্ (রাহঃ) এর বার্ষিক ইছালে সওয়াব মাহফিল অনুষ্ঠানে আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করেছেন বাহারুল উলুম চট্টগ্রাম বায়তুশ শরফের হযরত পীর ছাহেব কেবলা আলহাজ মাওলানা কুতুব উদ্দিন ছাহেব (মঃজিঃআঃ)।

এ মাহফিলে একমাত্র মহান আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টির জন্য পবিত্র কোরআন সুন্নাহ মোতাবেক ওয়াজ নসিহত, জিকির আজকার, তাহাজ্জুদ নামাজসহ বিভিন্ন ধর্মীয় কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। আখেরী মোনাজাতে অংশ নেওয়ার জন্য লোহাগাড়া উপজেলাধীন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানও অর্ধদিবসে ছুটি দেয়া হয়েছে বলে জানা যায়। জানা গেছে, বিগত ৫৯ বছরের অধিককাল হতে একই স্থানে ধর্মীয় এ মাহফিল অতিব শান্তি শৃঙ্খলার সাথে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। মাহফিলে আগত ৮ শতের অধিক যানবাহনের পার্কিং এর বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করেন মাহফিল কর্তৃপক্ষ।

অনুষ্ঠিত ইছালে সওয়াব মাহফিলে আখেরী মোনাজাতে দুনিয়া ও আখেরাতের শান্তি এবং মুসলিম উম্মাহর উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি, সংহতি, অগ্রগতি আর দেশ ও জাতির সার্বিক কল্যাণ কামনা করে ঘন্টা ব্যাপী স্থায়ী মুনাজাতে মুসল্লিরা নিজ নিজ গুনাহ মাফ ও আত্মাশুদ্ধির মাধ্যমে মহান রাব্বুল আলামীনের দরবারে রহমত ও হেদায়ত প্রার্থনা করেন। মোনাজাতের সময়ে মহান আল্লাহ পাকের প্রতি নিজেকে সমর্পণের মাধ্যমে জীবনের সমস্ত পাপ কর্মের জন্য ক্ষমা চেয়ে সমবেত মুসল্লিরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!