Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | কক্সবাজারে এক মাদ্রাসা ছাত্রী পুরুষে রূপান্তর

কক্সবাজারে এক মাদ্রাসা ছাত্রী পুরুষে রূপান্তর

image_printপ্রিন্ট করুন

a-4

নিউজ ডেক্স : কক্সবাজার সদর উপজেলার পোকখালী ইউনিয়নের গোমাতলীতে এক মাদ্রাসার ছাত্রী পুরুষে রূপান্তর হওয়ার চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে। পুরুষে রূপান্তরিত ওই ছাত্রী গোমাতলী মুনছেহেরিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা হতে ২০১৮ সালের দাখিল পরীক্ষার্থী ।ওই ছাত্রীর নাম কাজল মণি তার পিতার নাম আবুল কালাম, মাতার নাম মৃত মোমেনা বেগম। বর্তমানে তার নাম রাখা হয়েছে মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসাইন তাহাসিন।

মেয়ে থেকে পুরুষে রূপান্তর হওয়ার চাঞ্চল্যকর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গোমাতলী মুনছেহেরিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সুপার মাওলানা নুরুল কবির  বলেন, পুরুষে রূপান্তরিত ছাত্রী ৬ষ্ঠ শ্রেণী হতে ১০ম শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্রী হিসাবেই আমার প্রতিষ্ঠানে পড়ালেখা করে আসছিল। সেই ছাত্রী হিসেবে খুব মেধাবী, পর্দানশীল নিয়মিত ছিল।

জানা গেছে, পুরুষে রূপান্তরিত ছাত্রীর সাথে কথা হলে জানা যায়, শিশু কাল থেকেই শিক্ষার্থীর কোন লিঙ্গ ছিল না। শিশুকালে শিক্ষার্থীর মা মারা যান। যার ফলে এ ব্যাপারে কেউ তার জন্য চিন্তা করেনি। ছাত্রী নিজেকে মেয়ে মনে করে মেয়ে হিসেবে জীবন-যাপন করে আসছিল এবং ছাত্রী হিসেবে লেখাপড়া করে আসছিল।

হঠাৎ তার এক ঘনিষ্ঠ আত্মীয় তার গোপন সমস্যার কথা চিন্তা করে তার প্রতি দয়াবান হয়ে তাকে চিকিৎসার জন্য আগ্রহী করে তুলেন। ফলে সম্প্রতি যথাযথ চিকিৎসার পর তার পুরুষাংগের উৎপত্তি ঘটে। সে বর্তমানে একজন পুরুষ হিসেবে চলাফেরা শুরু করেছে। সে নিজেকে এখন ছাত্রী নয় ছাত্র হিসেবেই পরিচিতি দিতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছে।

পিতা আবুল কালাম জানান, সে আগামী ২০১৮ সালের দাখিল পরীক্ষায় যাতে পুরুষ তথা ছাত্র হিসেবেই মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসাইন তাহাসিন নামে রেজিষ্ট্রেশন করার জন্য জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। -বিডিনিউজ রিভিউজ.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!