Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | অভিযোগ তদন্তে গিয়ে ঘুষ দাবির অভিযোগ

অভিযোগ তদন্তে গিয়ে ঘুষ দাবির অভিযোগ

ঘুষ-1

নিউজ ডেক্স : অভিযোগ তদন্তে এসে একটি বেসরকারী উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যানের কাছে এক লাখ টাকা ঘুষ দাবির অভিযোগ উঠেছে নগরীর পাঁচলাইশ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ‍জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে।

চট্টগ্রামের কিংস্টন ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট এন্ড টেকনোলজির চেয়ারম্যান ড. মো.আশরাফুল আলম সজীব গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সিএমপি কমিশনার এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কাছে লিখিত এই ‍অভিযোগ করেছেন।

ড. সজীব অভিযোগ করেন, ২০১৫ সালে তার প্রতিষ্ঠান থেকে মো.মোসলেহ উদ্দিন ভূঁইয়া নামে একজন ছাত্র বিবিএ কোর্স সম্পন্ন করে কোর্স ফি বাবদ এক লাখ ‍২০ হাজার টাকা না নিয়ে চলে যান।  পাওনা টাকার জন্য বারবার তাগাদা দিয়ে তিনি ওই ছাত্রের রোষানলে পড়েন।  মিথ্যা মামলা করে তাকে হয়রানি করেন।

এরপর গত বছরের ২ নভেম্বর মোসলেহ উদ্দিন তার বিরুদ্ধে ‍পাঁচলাইশ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি দায়ের করেন।  এতে অভিযোগ করা হয়, নগরীর হামজারবাগ এলাকায় মোটর সাইকেলযোগে অজ্ঞাতনামা দুজন লোক এসে তাকে সজীবের বিরুদ্ধে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দেন।  না হলে তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন।

এই অভিযোগ তদন্তের দায়িত্ব পড়ে এসআই জাকিরের বিরুদ্ধে।  তিনি দণ্ডবিধির ৫০৬ ধারার অপরাধ প্রাথমিকভাবে সত্য বলে প্রমাণ হয়েছে দাবি করে গত ৩০ জানুয়ারি পাঁচলাইশ থানায় দায়ের হওয়া জিডিকে অধর্তব্য মামলায় রূপান্তরের সুপারিশ করেন।

সজীব বলেন, জিডি তদন্তের সময় আমার এলাকা কক্সবাজারের পেকুয়ায় গিয়েও তদন্ত করেন এসআই জাকির।  তবে কোন অভিযোগ পাননি।  জিডিতে আনা অভিযোগেরও কোন সত্যতা না পেয়ে তিনি একদিন আমার অফিসে আসেন।  আমাকে এক লাখ টাকা ঘুষ দিলে অভিযোগ মিথ্যা হিসেবে প্রতিবেদন দেবেন বলে জানান।  আমি ঘুষ দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে আমাকে মামলায় ফাঁসিয়ে দেন।

এই অভিযোগের বিষয়ে এস আই জাকিরের বক্তব্য জানার চেষ্টা করেও মোবাইল বন্ধ থাকায় সম্ভব হয়নি।  পাঁচলাইশ থানায় যোগাযোগ করা হলে জানানো হয়, প্রশিক্ষণের জন্য গত ২৮ জানুয়ারি পাঁচলাইশের কর্মস্থল থেকে বিদায় নিয়েছেন জাকির।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*