Home | উন্মুক্ত পাতা | বিজ্ঞপ্তি/বিজ্ঞাপন | লোহাগাড়ার দারুত তাওহীদ মাদ্রাসায় লায়লা বেগম স্মৃতি বৃত্তি প্রদান ও স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

লোহাগাড়ার দারুত তাওহীদ মাদ্রাসায় লায়লা বেগম স্মৃতি বৃত্তি প্রদান ও স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

image_printপ্রিন্ট করুন

616

লোহাগাড়া উপজেলায় শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারী)  বিকালে দারুত তাওহীদ আল ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা হেফজখানা ও এতিমখানা কনফারেন্স হল রুমে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা উপলক্ষে লায়লা বেগম স্মৃতি বৃত্তি প্রদান ও মরহুম শিক্ষক মওলানা নজাকত হোসেনের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম দারুল ইরফান একাডেমির চীফ কো-অর্ডিনেটর ও অত্র প্রতিষ্ঠানের স্বপ্নদ্রষ্ঠা মাষ্টার আলহাজ্ব মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম।

সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, দারুত তাওহীদ আল ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা ও হেফজখানা, এতিমখানাটিও দ্বীনি তালিমি তরিকার একটি অংশ। দ্বীনি খিদমত, তালিমাতে কোরআন ও সুন্নাহর প্রচার, প্রসার, তাবলীগ ও তারবিয়াতের সুমহান লক্ষ্যেই ১৯৯৪ সালে আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদের তৎকালিন খতিব আওলাদে রাসুল হযরত আলহাজ আল্লামা সৈয়দ আবদুল আহাদ আল মাদানী (রহঃ) এর নামকরণে এবং প্রখ্যাত হাদিস বিশারদ আল্লামা সুলতান জওক নদভীর পারর্মশক্রমে এ মাদ্রাসা দারুত তাওহীদ আল ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা ও হেফজখানা,এতিমখানা নামে নামকরণ করে এ দ্বীনি প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করা হয়। এ প্রতিষ্ঠানে চট্টগ্রাম-১৫ তথা লোহাগাড়া-সাতকানিয়া সংসদীয় আসনের এমপি, আল্লামা ফজলুল্লাহ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভীসহ অস্যংখ প্রখ্যাত আলেম ও হাদীস বিশারদগণ সভাপতিত্ব করে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করেন। বর্তমানে চট্টগ্রাম বাইতুশ শরফ আর্দশ কামিল এম,এ মাদ্রাসার অধ্যক্ষ প্রখ্যাত হাদিস বিশারদ ড.আল্লামা সৈয়দ আবু নোমান সাহেব এটির সভাপতি আছেন। তাই নিঃসন্দেহে এটি মকবুল প্রতিষ্ঠান। তিনি মরহুমা লায়লা বেগম,র স্মৃতি প্রজ্জলিত রাখার প্রেরণায় পরকালীন মুক্তির উদ্দেশ্যে ও শিক্ষা প্রসারে লক্ষ্যে তাঁর প্রথম সন্তান মুহাম্মদ ইব্রাহিম মা,র নামে “মরহুমা লায়লা বেগম স্মৃতি বৃত্তি” চালু করায় তিনি তাকে ধন্যবাদ প্রদান করেন। তিনি সভার শুরুতে মরহুম শিক্ষক মওলানা নজাকত হোসেনকে স্মরণ করেন এবং তার পরিবারের হাতে নগদ অর্থ সহায়তা দেন।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা কারাগারের চীফ মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান। তিনি বলেন, কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দেওয়া উত্তম কাজ। আর শিক্ষার্থীদের ভাল শিক্ষিত হতে চাইলে মাতা-পিতা, শিক্ষক ও গুরুজনকে পরম শ্রদ্ধার চোখে দেখা উচিৎ, পাশাপাশি তাদের ধর্মীয় শিক্ষাও অর্জন করতে হবে, কারণ আত্মার উৎকর্ষ সাধনে ধর্মীয় জ্ঞান, ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলা আবশ্যক। তিনিও মরহুম শিক্ষক মওলানা নজাকত হোসেনকে স্মরণ করেন এবং তার পরিবারের গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

অনুষ্ঠানে গেষ্ট অব অনার ছিলেন মরহুমা লায়লা বেগম স্মৃতি বৃত্তি ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্টাতা ও ডোনার এবং আরব বাংলাদেশ ব্যাংক লিমিটেড এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মরহুমা লায়লা বেগমের প্রথম সন্তান আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইব্রাহিম। তিনি বলেন ,তাঁর মাতা মরহুমা লায়লা বেগম একজন আর্দশ গৃহিণী হিসাবে জীবন অতিবাহিত করে ২০১৬ ইং সালে ইন্তেকাল করেন। তাঁর স্মৃতি প্রজ্জলিত রাখার প্রেরণায় পরকালীন মুক্তির উদ্দেশ্যে ও শিক্ষা প্রসারে উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে তিনি মার নামে “মরহুমা লায়লা বেগম স্মৃতি বৃত্তি” চালু করেন।

প্রধান আলোচক ছিলেন দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার লোহাগাড়া প্রতিনিধি ও লোহাগাড়া প্রেসকøাব সভাপতি সাংবাদিক মাওলানা আবদুল জব্বার ফিরোজ। তিনি বলেন, বিশ্বায়নের এ যুগে আমাদের সন্তানদেরকে মহান আল্লাহর প্রেরিত রাসুল (সঃ) এর আর্দশ ও তার পর্দশিত পথে পরিচালিত করতে পারলে অর্থাৎ আমাদের সন্তানদের নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করার চেষ্টা করলে তারা বিভিন্ন ধরনের মাদক, নেশা থেকে বেচে থাকতে পারবে। তাই পিতা-মাতা তথা শিক্ষক অবিভাবক সকলকে এব্যাপারে সর্তক দৃষ্টি রাখতে হবে, অন্যতায় পরে আফসোস করে কোন লাভ হবেনা।

অনুষ্টানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত সুপার মাওলানা নুরুল কাদের। বিশেষ অতিথি ছিলেন কলাউজান ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল ওয়াহেদ, অগ্রণী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এর সিনিয়র অফিসার সাইফুল ইসলাম। অত্র মাদ্রাসার সেক্রেটারী ও জাবেদ ক্লথ স্টোর টেরিবাজার চট্টগ্রাম এর পরিচালক আলহাজ্ব জয়নুল আবেদীন, আইটি ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন, শিক্ষাবিদ ও ব্যবসায়ী বেলাল মোহাম্মদ, মাওলানা আহমদ কবির পীর সাহেব কলাউজান, শিক্ষাবিদ ও ব্যবসায়ী খালাদাদ খান দাখিল মাদ্রাসার সেক্রেটারী আবদুল মালেক শিক্ষাবিদ ও ব্যবসায়ী মাওলানা মাইনুদ্দিন, সাবেক ইউপি সদস্য শামসুল ইসলাম, আল মোস্তাফা হজ্ব কাফেলার পরিচালক আলহাজ্ব মহিউদ্দিন, প্রবাসী ছিদ্দিক আহমদ, সৈয়দ আহমদ, মোস্তাফা ক্লথ ষ্টোরের মালিক মাওলানা কুতুব উদ্দিন মোঃ ফারুক, এডভোকেট মোঃ হেলাল উদ্দিন, এডভোকেট মোঃ সাইফুল ইসলাম সায়েম, এফএস ডাব্লিউ অফিসার শাহজাহান বিন কবির, সমাজ সেবক আবদুল মোনাফ সিকদার। ব্যবসায়ী সেলিম উদ্দিন,প্রবাসী আবুল মনছুর, মাওলানা নুরুল ইসলাম। অন্যান্যদের মধ্যে এতিমখানার শিক্ষক মওলানা ফখরুল ইসলাম শাহেদ,মাওলানা রেজাউল করিম, মাওলানা রুহুল আমিন, মাওলানা আবদুল মোমেন, হাফেজ মোঃ আমির হোসেন, হাফেজ মোঃ মামুন, মাষ্টার সাইফুল ইসলাম, মাষ্টার সাইফুল ইসলাম, শিক্ষিকা নাজমা খানম, জেসমিন আক্তার ও আসমা ছিদ্দিকা, শিক্ষার্থী, জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরামের যুগ্ম সদস্য সচিব মোঃ জয়নাল আবেদীন বাবু, সদস্য যুবনেতা আসহাব উদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা কারাগারের চীফ মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমানকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন অতিথিবৃন্দ। এছাড়া অনুষ্ঠানে দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার লোহাগাড়া প্রতিনিধি সাংবাদিক এম.আবদুল জব্বার ফিরোজ এর ১ম ও ২য় কন্যা ৮ম ও ৭ম শ্রেণীর কৃতি ছাত্রী তাহাছিন তামান্না তাছনীম ও মাহাছিন ফাতিমা নাজনীনসহ ১৮ জন কৃতি শির্ক্ষাথীদের মাঝে সনদ ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। -খবর প্রেস বিজ্ঞপ্তির

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!