Home | ব্রেকিং নিউজ | কলাউজানে জরাজীর্ণ বাড়িতে অসহায় বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বসবাস

কলাউজানে জরাজীর্ণ বাড়িতে অসহায় বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বসবাস

image_printপ্রিন্ট করুন

এলনিউজ২৪ডটকম : লোহাগাড়া উপজেলার উত্তর কলাউজানের ৩নং ওয়ার্ডের নাথ পাড়ায় জরাজীর্ণ বাড়িতে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা হৃদয় মোহন নাথের অসহায় পরিবার বসবাস করছেন। মৃত্যুর সময় এই বীর মুক্তিযোদ্ধা জরাজীর্ণ একটি বাড়ি ছাড়া আর কিছুই রেখে যেতে পারেননি বলে জানিয়েছেন স্ত্রী শান্তি বালা নাথ (৭৪)।

তিনি আরো জানান, দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর ২০১৯ সনের ২১ জুন মারা গেছেন স্বামী বীর মুক্তিযোদ্ধা হৃদয় মোহন নাথ। পরে তাঁকে রাস্ট্রীয় মর্যাদায় দাহ করা হয়। নিজেদের ভিটেমাটিতে শুধু জরাজীর্ণ একটি বাড়ি ছাড়া আর কিছুই রেখে যেতে পারেননি। অভাবের সংসারে নুন আনতে পান্তা ফুরায়। যে কোন সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে জরাজীর্ণ বাড়িটি। এ নিয়ে দুঃচিন্তায় আতংকের নিয়ে ঘুমাতে পারেন না। সামনে ঝড়-বৃষ্টির দিনে আতংক আরো বেড়ে যাবে।

শান্তি বালা নাথ জানান, তাদের সংসারে ২ ছেলে ও ২ মেয়ে। দুই মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে। কিন্তু এক মেয়ে স্বামীর সংসারে সমস্যার কারণে বাপের জরাজর্ণী বাড়িতেই অবস্থান করছে। সংসারের হাল ধরতে দুই ছেলেকে ধার-কর্ব্জ করে বিদেশ পাঠান। কিন্তু সুখ ধরা দেয়নি। করোনার কারণে তারা সেখানে বেকার জীবন যাপন করছে। এর মধ্যে এক সন্তান অসুস্থ হয়ে সেখানে মানবতর জীবন অতিবাহিত করছে। মুক্তিযোদ্ধা ভাতা নিয়ে কোন মতে তাদের সংসার চলছে। দেশের জন্য যুদ্ধ করে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র উপহার দিয়েছেন তাঁর স্বামী। কিন্তু তাঁর পরিবারের জন্য কিছুই করে যেতে পারেননি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, শেষ সম্বল বলতে আছে শুধু ভিটেমাটি। এতে মাটির দেওয়াল ও টিনের ছাউনীযুক্ত জরাজীর্ণ একটি বসতঘর। এক পাশের মাটির দেওয়াল পড়ে গেছে। এছাড়া বাড়ির ভেতরে ও বাহিরে দেওয়ালের অনেক অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে। পাশে বাঁশের বেড়া ও টিনের ছাউনীযুক্ত রান্নাঘর রয়েছে। টিন ফুটো হয়ে বৃষ্টি পড়ে তাই দেয়া হয়েছে পলিথিনের ছাউনী। সংস্কারের অভাবে সেটার অবস্থা আরো বেশী করুণ। যে কোন সময় ভেঙ্গে যেতে পারে। পরে তিনি (স্ত্রী) স্বামীর রেখে যাওয়া মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বিভিন্ন কাগজপত্র দেখান। মানবিক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেন তার পরিবারে দিকে একটু সুদৃষ্টি দেন সেই কামনা করেন। এছাড়া মুজিববর্ষ উপলক্ষে যদি সরকার একটি বাড়ি উপহার দেন তাহলে দুঃখ অনেক লাঘব হবে, সেই সাথে বীর মুক্তিযোদ্ধা হৃদয় মোহন নাথের আত্মা শান্তি পাবে বলে জানান স্ত্রী শান্তি বালা নাথ।

স্থানীয় ইউপি সদস্য জামাল হোসেন জানান, বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত হৃদয় মোহন নাথের পরিবারের বসতঘরের বেহাল অবস্থার কথা জেনেছি। সরকারের পক্ষ থেকে একটি বাড়ি নির্মাণ করে দেয়া হলে তারা অনেক উপকৃত হবেন।

লোহাগাড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার আখতার আহমদ সিকদার জানান, প্রয়াত হৃদয় মোহন নাথ একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। তাঁর পরিবারের লোকজন বসবাস করার বাড়িটি একেবারে জরাজীর্ণ অবস্থায় আছে। ঝুঁকি নিয়ে তারা ওই বাড়িতে বসবাস করছেন।

লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আহসান হাবিব জিতু জানান, বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবার বাড়ির জন্য আবেদন করলে তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!