Home | শিক্ষাঙ্গন | ২০৩০ সালের মধ্যে শতভাগ শিক্ষা বাস্তবায়ন : শিক্ষামন্ত্রী

২০৩০ সালের মধ্যে শতভাগ শিক্ষা বাস্তবায়ন : শিক্ষামন্ত্রী

Education-Minister20170206152457

নিউজ ডেক্স :  জেন্ডার সমতা, ঝরে পড়া রোধ করা, উন্নত ও গুণগত শিক্ষার লক্ষ্যে কাজ করবে ই-নাইনভুক্ত নয় রাষ্ট্র। যা ২০৩০ সালে মধ্যে বাস্তবায়ন করতে হবে। আগামী দুই বছর এর নেতৃত্ব দেবেন বাংলাদেশের শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর হোটেল রেডিসন ব্লুতে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, ভারতের শিক্ষামন্ত্রী উপেন্দ্র কিশোর, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসেন, ইউনেস্কোর সহকারি পরিচালক কিয়ান তান।

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ইউনেস্কোর শিক্ষা বিষয়ক একটি বড় কার্যক্রম ই-৯। আগামী দুই বছর এর নেতৃত্ব দিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এই লক্ষ্যে আমরা ঢাকা ঘোষণা করেছি। এ লক্ষ্যমাত্রায় বাংলাদেশসহ ই-৯ভুক্ত দেশগুলোকে এগিয়ে যেতে হবে।

তিনি বলেন, উন্নত শিক্ষার মান অর্জনে বেশ কিছু কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। ২০৩০ সালের মধ্যে সেগুলো বাস্তায়ন করা হবে। বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার এটি একটি বড় সুযোগ। সেটিকে কাজে লাগিয়ে আমাদের কাঙ্খিত শিক্ষা ব্যবস্থায় পৌঁছাতে হবে। ই-৯ভুক্ত দেশগুলোর শিক্ষা ব্যবস্থায় সমস্যাগুলো চিহ্নিত করা হয়েছে। আমাদের দেশের সমস্যাগুলো অনেকটা কাটিয়ে উঠেছি মন্তব্য করে মন্ত্রী আরো বলেন, আমরা শতভাগ শিক্ষার্থীকে স্কুলে আনতে পারলেও ধরে রাখাটা হবে আমাদের প্রধান কাজ। ২০৩০ সালের মধ্যে শতভাগ শিক্ষা বাস্তবায়ন করা হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, আগামী শিক্ষায় বাজেট বাড়ানোর জন্য আমরা একটি প্রস্তাবনা দিয়েছি। তবে ই-নাইন প্রকল্পের জন্য আলাদা কোন বাজেট দরকার হবে না। পাশাপাশি ইউনেস্কো এ বিষয়ে সার্বিক সহায়তা করবে বলে আশ্বস্ত করেছে। ই-নাইনভুক্ত দেশসমুহে ৭০ শতাংশ বয়স্ক নিরক্ষর জনগোষ্ঠি। এই চ্যালেঞ্জকে সামনে নিয়েই আমরা এগিয়ে যাবে।

ইউনেস্কোর সহকারি পরিচালক কিয়ান তান বলেন, ‘শিক্ষা মানুষের মৌলিক অধিকার। এই অধিকারকে গুরুত্ব দিয়ে অধিক জনসংখ্যাভুক্ত নয়টি দেশকে ই-নাইনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এসব দেশে উন্নত শিক্ষা প্রদানে ইউনেস্কোর পক্ষ থেকে সকল সহায়তা অব্যাহত থাকবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ওয়াহেদুজ্জামান, ঢাকা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক মাহবুবুর রহমানসহ শিক্ষামন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কমকর্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*