ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | সাংবাদিক কন্যা রাইফার মৃত্যুর ঘটনায় দুই চিকিৎসককে চাকরিচ্যুত

সাংবাদিক কন্যা রাইফার মৃত্যুর ঘটনায় দুই চিকিৎসককে চাকরিচ্যুত

raifa_cht

নিউজ ডেক্স : চট্টগ্রামে আড়াই বছর বয়সি শিশু, সাংবাদিক কন্যা রাইফার মৃত্যুর ঘটনায় দুই চিকিৎসককে চাকরিচ্যুত করেছে চট্টগ্রামের বেরসরকারি ম্যাক্স হাসপাতাল। শুক্রবার রাতে তাদের অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। ম্যাক্স হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. লিয়াকত আলী খান আজ শনিবার দুপুরে বলেন, শিশু রাইফার মৃত্যুতে ওই দুই চিকিৎসকের অবহেলার অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তাদেরকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। চিকিৎসক দুজন হলেন- ডা. দেবাশীষ সেন গুপ্ত ও ডা. শুভ্র দেব।

গত ২৯ জুন চট্টগ্রামের বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালে ভুল চিকিৎসা ও অবহেলায় মারাযায় সমকাল চট্টগ্রাম ব্যুরোর স্টাফ রিপোর্টার রুবেল খানের আড়াই বছরের একমাত্র মেয়ে রাফিদা খান রাইফা। এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি ডাক্তার ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলার প্রমাণ পেয়েছে। সিভিল সার্জনের নেতৃত্বাধীন কমিটি বৃহস্পতিবার রাতে তাদের প্রতিবেদন দেয়, যাতে এই দুই চিকিৎসকের পাশাপাশি শিশু বিশেষজ্ঞ বিধান রায়কেও চিকিৎসায় অবহেলার দায়ে অভিযুক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়।

দুই পৃষ্ঠার ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, শিশু রাফিদা খান রাইফা যখন তীব্র খিঁচুনিতে আক্রান্ত হয়, তখন সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকের অনভিজ্ঞতা ও আন্তরিকতার অভাব পরিলক্ষিত হয়। ওই সময় দায়িত্বে থাকা সংশ্লিষ্ট নার্সদের আন্তরিকতার অভাব না থাকলেও এ রকম জটিল পরিস্থিতি মোকাবেলা করার মতো দক্ষতা বা জ্ঞান তাঁদের ছিল না। রাইফাকে ম্যাক্স হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা থেকে শুরু করে শেষ চিকিৎসা পাওয়া পর্যন্ত প্রতিটি ক্ষেত্রে তার অভিভাবকের ভোগান্তি চরমে ছিল।

প্রতিবেদনে আরো উল্লেখ করা হয়, শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. বিধান রায় চৌধুরী শিশুটিকে যথেষ্ট সময় ও মনোযোগসহকারে পরীক্ষা করে দেখেননি। ডা. দেবাশীষ সেনগুপ্ত ও ডা. শুভ্র দেব শিশুটির রোগ জটিলতার বিপদকালীন আন্তরিকতার সঙ্গে সেবা প্রদান করেননি বলে শিশুর পিতামাতা অভিযোগ উত্থাপন করেছেন, যা এই তিন চিকিত্সকের বেলায় সত্য বলে প্রতীয়মান হয়।

তদন্তে স্পষ্ট হয় যে হাসপাতালে রোগী ভর্তি প্রক্রিয়ায় ভোগান্তি প্রকট। চিকিত্সক নার্সদের সেবা প্রদানের সমন্বয়হীনতা ও চিকিৎসাকালীন মনিটরিংয়ের অভাব দেখা যায়। অদক্ষ নার্স ও অনভিজ্ঞ চিকিৎসক নিয়োগের ফলে কাঙ্ক্ষিত চিকিৎসা ব্যবস্থাপনা অনেক দুর্বল রয়েছে। বিশেষত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসা সেবায় বিশেষজ্ঞের সার্বক্ষণিক উপস্থিতির সংকটটি প্রবল।

তদন্ত কমিটিতে ছিলেন চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. মো. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের শিশুস্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. প্রণব কুমার চৌধুরী এবং চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ।

তদন্ত প্রতিবেদনে চারটি সুপারিশ করেছে কমিটি। সুপারিশগুলো হলো, ‘চিকিত্সায় অবহেলার অভিযোগে অভিযুক্ত তিনজন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন। ম্যাক্স হাসপাতালের সার্বিক ত্রুটিপূর্ণ চিকিৎসা ব্যবস্থাপনা অতিদ্রুত সংশোধন করা, কর্তব্যরত নার্সরা সরকারি নিয়ম অনুযায়ী ডিপ্লোমাধারী থাকার নিয়ম থাকলেও ওই হাসপাতালে তা নেই। ডিপ্লোমা নার্স দ্বারা চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে হবে। হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সার্বক্ষণিক দ্রুত ও আন্তরিক সেবা নিশ্চিত করতে হবে এবং রোগীর অভিভাবককে যথাসময়ে রোগীর অবস্থা ও চিকিৎসকের ব্যাপারে সর্বশেষ পরিস্থিতি অবগত করতে হবে।’

চট্টগ্রামে মানববন্ধন :  ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিত্সকের অবহেলায় শিশু রাইফা খানের মৃত্যুর ঘটনায় যেসব ডাক্তার দায়ী, তাঁদের শাস্তি পেতেই হবে বলে মন্তব্য করেছেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে এসব কথা বলেন তিনি।

মেয়র বলেন, তদন্তে যেসব ডাক্তারের অবহেলা প্রমাণিত হয়েছে তাঁদের শাস্তি পেতে হবে। নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মেয়র হিসেবে চিকিৎসকের অবহেলাজনিত কারণে রাইফার মৃত্যুর ঘটনায় সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হবে। কেউ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করলে তা কঠোরভাবে মোকাবেলা করা হবে।

আবৃত্তিকার রাশেদ হাসানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে সংহতি জানান চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি কলিম সরওয়ার, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সহসভাপতি শহীদ উল আলম প্রমুখ।

কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের মানববন্ধন ও সমাবেশ : ম্যাক্স হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় শিশু রাইফার মৃত্যুর প্রতিবাদ এবং জড়িত ডাক্তারের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়ন। গতকাল শুক্রবার সকালে কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি আবু তাহের।

সাংবাদিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক দীপক শর্মা দীপুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) কেন্দ্রীয় সদস্য আয়াছুর রহমান, সিবিইউজের সাধারণ সম্পাদক জাহেদ সরওয়ার সোহেল, সিনিয়র সাংবাদিক বিশ্বজিত সেন, এইচ এম এরশাদ, সিবিইউজের দপ্তর সম্পাদক ফরহাদ ইকবাল ও ক্রীড়া সম্পাদক আহসান সুমন

এ সময় কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু তাহের বলেন, ভুল চিকিৎসায় যেন আর কোনো মায়ের বুক খালি না হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় আর কোনো বাবাকে যেন রাস্তায় দাঁড়িয়ে চিৎকার করে কাঁদতে না হয়। ভবিষ্যতে শিশুদের অপমৃত্যুর হাত থেকে বাঁচাতেই রাইফা হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার হওয়া উচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*