ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | ‘ষড়যন্ত্রের’ অভিযোগে আমির খসরুর বিরুদ্ধে মামলা

‘ষড়যন্ত্রের’ অভিযোগে আমির খসরুর বিরুদ্ধে মামলা

image-63817-1533383890

নিউজ ডেক্স : ইলেকট্রনিক ডিভাইজ ব্যবহার করে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার অভিযোগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম কোতুয়ালী থানায় এক ছাত্রলীগ নেতা মামলা দায়ের করেছেন। শনিবার (৪ আগস্ট) রাত সাড়ে ১১টার দিকে নগরের কোতোয়ালী থানায় এ মামলা দায়ের করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন সাংবাদিকদের বলেন, ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করে চলমান ছাত্র আন্দোলনে নাশকতার উস্কানি ও রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগে আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় আরও কয়েকজন অজ্ঞাতনামা আসামি রয়েছে।

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে চলমান আন্দোলনের মাঝেই বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর কথোপকথনের অডিও ক্লিপ ভাইরাল হয়। শনিবার (৪ আগস্ট) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া অডিও ক্লিপটি জন্ম দিয়েছে বিতর্কের।

অডিও ক্লিপে নওমি নামের সেই ব্যক্তিকে কুমিল্লা থেকে ঢাকায় এসে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সক্রিয় হতে অনুরোধ করেন আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

পাঠকদের জন্য অডিও কথপোকথন লিখিত আকারে দেওয়া হলো:

আমির খসরু: হ্যালো

নওমি: হ্যালো, আঙ্কেল, নওমি বলছিলাম

আমির খসরু: হ্যাঁ, নওমি ভালো আছো?

নওমি: আপনি ভালো আছেন?

আমির খসরু: হ্যাঁ, ভালো আছি। তোমরা কি একটু ইনভল্ড টিনভল্ড হচ্ছো এগুলোতে নাকি?

নওমি: জ্বি, জ্বি। আঙ্কেল, আমি তো এই যে কুমিল্লায় আসলাম।

আমির খসরু: কুমিল্লায় নামায় দাও না। তোমাদের মানুষজন সব নামায় দেও না।

নওমি: হ্যাঁ.. হ্যাঁ.. হ্যাঁ… হাইওয়েতে নামছিল।

আমির খসরু: মানুষজন নামায় দাও, হাইওয়েতে-টাইওয়েতে অসুবিধা নাই। ঢাকায় মানুষজন নামায় দাও ভালো করে। বুজছো? তোমাদের তো আর চেনে না।

নওমি: না… না… না…

আমির খসরু: তোমাদের বন্ধু-বান্ধব নিয়ে তোমরা সব নেমে পড়ো না ঢাকায়…

নওমি: জ্বি…জ্বি..জ্বি…, কনটাক্ট করতেছি সবার সঙ্গে

আমির খসরু: কন্টাক্ট করো না। কখন আর কন্টাক্ট করবা? এখনই তো টাইম। আর কবে? এখন নামতে না পারলে তো আবার ডাউন করে যাবে। তুমরা নাইমা যাও না একটু বন্ধু-বান্ধব নিয়ে…

নওমি: হ্যাঁ..হ্যাঁ..হাইওয়েতে নামছিল তো, ঢাকা-চিটাগাংয়ে। এখানে এসপি সাহেব ঝাড়ি দিছে সবাইকে। সবাইকে উঠায়ে দিছে…

আমির খসরু: হাইওয়ে টাইওয়ে অসুবিধা নাই। ঢাকায় নামায় দাও। ঢাকা হলে সারাদেশে এমনেই হবে। তোমরা ঢাকায় এসে…এখানে তো কুমিল্লা দরকার নাই আমার। তোমরা ঢাকায় এসে তোমাদের বন্ধু-বান্ধব নিয়ে ২০০-৫০০ জন ওদের সাথে জয়েন করে যাও।

নওমি: জ্বি আঙ্কেল। এমনে সবাই সংগঠিত হচ্ছে।

আমির খসরু: সংহতি দিয়ে কী হবে। তোমরা যারা আছো নাইমা যাও না।

নওমি: আঙ্কেল একটা ছোট্ট বিষয়।

আমির খসরু: ফেসবুক টেসবুকে পোস্টিং-টোস্টিং করো সিরিয়াসলি।

নওমি: হ্যাঁ, এইটা করতেছি। এটাতে অ্যকটিভ আছে সবাই। আমি আসতেছি।

আমির খসরু: হ্যাঁ করো। কুমিল্লা বসে থেকে লাভ কী! এখানে এসে জয়েন করো।

প্রসঙ্গত, গত ২৯ জুলাই রোববার রাজধানীর কুর্মিটোলায় বিমানবন্দর সড়কে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ওপর উঠে পড়ে জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় শহীদ রমিজউদ্দীন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম ওরফে রাজীব (১৭) এবং একই কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মীম (১৬)।

আর এরপর থেকেই রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের টানা আন্দোলনে অনেকটা অচল হয়ে পড়েছে রাজধানী। রাজধানী ছাড়াও দেশের কয়েকটি জেলায় এ আন্দোলন ছড়িয়ে পড়েছে। রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি সড়কে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনের সময় চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স পরীক্ষা করছে তারা। এর মধ্যে বেশ কিছু যানবাহনের ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনাও ঘটেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*