Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | শিক্ষকের চরণধূলি নিলেন তথ্যমন্ত্রী

শিক্ষকের চরণধূলি নিলেন তথ্যমন্ত্রী

image_printপ্রিন্ট করুন
শিক্ষকের চরণধূলি নিচ্ছেন তথ্যমন্ত্রী। ছবি: সংগৃহীত

শিক্ষকের চরণধূলি নিচ্ছেন তথ্যমন্ত্রী। ছবি: সংগৃহীত

নিউজ ডেক্স : স্কুল জীবনের প্রিয় শিক্ষক মোহাম্মদ ইসহাক স্যারের খোঁজ নিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সেখানে গিয়ে তার পা ছুঁয়ে সালাম করেন তথ্যমন্ত্রী। চট্টগ্রামের সরকারি মুসলিম হাইস্কুলের ছাত্র ছিলেন তিনি।

১৯৭৮ সালে এই স্কুল থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে এসএসসি পাস করেন হাছান মাহমুদ। বয়সের ঘরে আশি বছর পার করা এই গুণী শিক্ষক ১৯৯৪ সালে প্রধান শিক্ষকের পদ থেকে অবসর নেন।

সময়ের পরিক্রমায় ড. হাছান মাহমুদ আজ তথ্যমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক। রাষ্ট্রীয় নানা গুরুত্বপূর্ণ কাজে দিন-রাত ব্যস্ত থাকলেও ভুলতে পারেননি মুসলিম হাইস্কুল এবং প্রিয় শিক্ষকের স্মৃতি।

ভালোবাসার টানে শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টায় শৈশবের স্মৃতি জড়ানো বিদ্যাপিঠ মুসলিম হাইস্কুলের ইংরেজির শিক্ষক মোহাম্মদ ইসহাককে তার বাসায় দেখতে যান তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

প্রিয় ছাত্রকে পায়ে ধরে সালাম করতে দেখার সঙ্গে সঙ্গে চোখ ভিজে যায় প্রবীণ শিক্ষক মোহাম্মদ ইসহাকের। প্রিয় শিক্ষকের সান্নিধ্যে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন তথ্যমন্ত্রীও। এ সময় একই ব্যাচের শিক্ষার্থী জামাল নাসের চৌধুরী ও এসএম ইলিয়াছ দুলালও তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

প্রিয় শিক্ষকের সঙ্গে স্কুলজীবনের স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, স্কুলজীবনে রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়ায় আপনি একবার আমার বাবাকে অভিযোগ দিয়ে বলেছিলেন আমি পড়ালেখার চেয়ে রাজনীতি নিয়ে ঘুরছি বেশি। এরপর বাবা আমাকে প্রচণ্ড পিটিয়েছিলেন। এ সময় প্রিয় ছাত্রের স্মৃতি রোমন্থনে শিক্ষক মো. ইসহাক আবারও আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

ফিরে যাওয়ার আগে আরেকবার প্রিয় শিক্ষকের পা ধরে সালাম করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। শিক্ষক মোহাম্মদ ইসহাকও মাথায় হাত বুলিয়ে দোয়া করেন তথ্যমন্ত্রীকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!