Home | লোহাগাড়ার সংবাদ | লোহাগাড়ায় শিশুকে শ্লীলতাহানির দায়ে ৪০ বছরের কারাদণ্ড

লোহাগাড়ায় শিশুকে শ্লীলতাহানির দায়ে ৪০ বছরের কারাদণ্ড

image_printপ্রিন্ট করুন

Karagar-Pic

নিউজ ডেক্স : শ্লীলতাহানির অভিযোগে করা মামলায় একজন আসামিকে একই আইনের দুটি ধারায় ৪০ বছর কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। গতকাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মোতাহির আলীর আদালত এ কারাদণ্ড দেন। আসামি হলেন মো.জসিম উদ্দিন। সে লোহাগাড়া উপজেলার সিকদার পাড়ার আবুল কাশেমের ছেলে।

সরকারি কৌঁসুলি এম এ নাসের বলেন, ২০০৩ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৭ ধারা অনুযায়ী আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ (১) ধারা অনুযায়ী ১০ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। তিনি আরও বলেন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন অনুযায়ী যাবজ্জীবনের সংজ্ঞায় ৩০ বছরের কথা বলা হয়েছে। তবে একই আইনের দুটি ধারায় যাবজ্জীবন ও ১০ বছরের সাজা একইসাথে কার্যকর হওয়ায় আসামিকে ৩০ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

জানা যায়, ৯ বছরের শিশুকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে ঘটনার দুদিন পর ২০০৩ সালের ২১ মে লোহাগাড়া থানায় মামলা করেন শিশুটির পিতা। মামলার পর লোহাগাড়া থানা পুলিশ আসামি জসিমকে গ্রেফতার করে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ২০০৩ সালের ২০ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করে। আদালত পরের বছর ২০০৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু করেন। ৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য শেষে আদালতে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আসামিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের একটি ধারায় যাবজ্জীবন ও অন্য একটি ধারায় ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয়।

জানা যায়, ২০০৩ সালের ১৯ জুলাই মাদ্রাসায় যাওয়ার সময় ৯ বছরের শিশুকে তুলে পাশের জমিতে নিয়ে শ্লীলতাহানি করা হয়। সাতকানিয়া উপজেলার কেওচিয়া ইউনিয়নের বাইতুল ইজ্জত এলাকায় শিশুটির বাড়ি। -সুপ্রভাত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!