ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | নতুন সিএমপি কমিশনারের দায়িত্ব গ্রহণ

নতুন সিএমপি কমিশনারের দায়িত্ব গ্রহণ

P-1-2-5

নিউজ ডেক্স : চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) নতুন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে এসেছেন ডিআইজি পদমর্যাদার মো. মাহাবুবুর রহমান। গতকাল তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। তিনটি টার্গেট সামনে রেখে সিএমপিতে যোগ দিয়েছেন তিনি। ১) মাদকবিরোধী অভিযান জোরালো করা, ২) জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখা এবং ৩) আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা। দুপুর ১২টার দিকে নতুন কমিশনার নগরীর লালদিঘীপাড়স্থ সিএমপি সদর দফতরে এসে পৌঁছান। সেখানে তিনি সিএমপির ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে গার্ড অব অনার গ্রহণ করেন। পরে বেলা আড়াইটার দিকে তিনি নগরীর দামপাড়াস্থ পুলিশ লাইনের কনফারেন্স হলে আয়োজিত পরিচিতি ও মতবিনিময় সভায় অংশ নেন। এর আগে তিনি রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

আজ বুধবার বেলা দেড়টায় নতুন সিএমপি কমিশনার দামপাড়া পুলিশ লাইন শেযে আসন্ন ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে সার্বিক নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় করবেন। গতকাল দায়িত্ব গ্রহণ কালে তিনি আজাদীকে বলেন, সিএমপির চেইন অব কমান্ড ঠিক আছে কিনা প্রথমে তা দেখবো। যদি ঠিক না থাকে, তবে সেটা ফিরিয়ে আনাই হবে প্রথম কাজ। কারণ শৃঙ্খলা না থাকলে তো কাজ করা যাবে না।

মতবিনিময় সভায় সিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, মাদক ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে চলমান অভিযানকে আরও গতিশীল করতে হবে। নগরীর ট্রাফিক ব্যবস্থা আরও বেগবান করে যানজট নিরসনে ট্রাফিক পুলিশকে আরও সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে হবে। নগরীর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি অবগত আছেন জানিয়ে বলেন, সার্বিক বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে তিনি সিএমপিতে এসেছেন।

অপরাধ প্রবণতা সারা দেশের সমস্যা আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, এটা শুধু চট্টগ্রাম নয়, সারাদেশের সমস্যা। তবে পেশাদার অপরাধী যারা আছে তাদের মামলাগুলোর খোঁজখবর নেব। কারা জেলে আছে, কারা বাইরে আছে সেটার বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা নিয়েই তারপর কাজ শুরু করব। যেসব মামলা তদন্তের পর্যায়ে আছে সেগুলোর যাতে দ্রুত তদন্ত শেষ করা হয়, সেই ব্যাপারে আমার স্পষ্ট অবস্থান থাকবে।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির বিষয়ে তিনি বলেন, এটা আমি যতটুকু জানতে পেরেছি, ভোরবেলার দিকে একটু বেশি ছিনতাই হয়। আমি ছিনতাইকারীদের তালিকা নিয়ে বসব। সার্বিক বিষয়টা বিশ্লেষণ করে মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের দিক নির্দেশনা দেব। আশা করি ছিনতাই রোধ করা কষ্টসাধ্য হবে না।

সভায় অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন ও অর্থ) মাসুদ উল হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) কুসুম দেওয়ান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) আমেনা বেগমসহ নগর পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।মাহাবুবুর রহমান এর আগে পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৭ সালের ১৩ আগস্ট থেকে তিনি রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। গত ২৭ মে মাহাবুবুর রহমানকে সিএমপিতে বদলির আদেশ দেয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

বিদায়ী কমিশনার ইকবাল বাহারকে গত ২৬ এপ্রিল বদলির আদেশ দিয়েছিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তাকে পুলিশ সদর দফতরের অতিরিক্ত আইজি (টেলিকম) হিসেবে চলতি দায়িত্বে বদলি করা হয়। গত ৯ মে তিনি বদলিজনিত দায়িত্ব হস্তান্তর করে সিএমপি ছাড়েন। ২৭ মে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব ফারজানা জেসমিন স্বাক্ষরিত এক আদেশে তাকে সিএমপি কমিশনার পদে নিয়োগ দেওয়া হয়।

জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন মাহবুবুর রহমান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রি নেন তিনি। ১৯৯৫ সালে তিনি ১৫তম বিসিএসে সহকারী পুলিশ সুপার পদে যোগ দেন। এএসপি (সদর দফতর) হিসেবে নরসিংদী জেলা পুলিশে, সার্কেল এএসপি হিসেবে কিশোরগঞ্জ জেলার সদর সার্কেল ও বাজিতপুর সার্কেলে ও এএসপি সদর সার্কেল হিসেবে নেত্রকোনা জেলায় দায়িত্ব পালন করেন। সহকারী পুলিশ কমিশনার (কোতোয়ালী) হিসেবে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশে দায়িত্ব পালন করেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন ও র‌্যাবে কর্মরত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*