ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | ত্রাণ চাই না, টেকসই বেড়িবাঁধ চাই

ত্রাণ চাই না, টেকসই বেড়িবাঁধ চাই

Upokul-News-Pic-(4)20170429190805

নিউজ ডেক্স :  সেই ১৯৯১ সালের ২৯ এপ্রিল শোকাহত ও হাহাকার সৃষ্টিকারী একটি দিন। ২৬টির বছর পার হলো। সেই দিনের প্রলয়ংকারী ঘূর্ণিঝড়ের ভয়াল থাবা আমাদের এখনো তাড়া করে।

স্বজনদের কথা মনে হলে চলে বুক ফাটা কান্না। উপকূলবাসী এখনো অবহেলিত। দ্বীপের বেড়িবাঁধ সমূহ এখনো অরক্ষিত। ঝড়-তুফান ও ঘূর্ণিঝড়ের প্লাবন এখনো উপকূলবাসীকে তাড়া করে।

প্রতিরক্ষামূলক বেড়িবাঁধ এখনো নির্মিত হয়নি এখানে। বেড়িবাঁধের জন্য সরকারের বরাদ্দের কাজও যথা নিয়মে হয় না। আমরা ত্রাণ চাই না, টেকসই বেড়িবাঁধ চাই।

শনিবার সকাল থেকে দিনব্যাপী ভয়াল ২৯ এপ্রিল ১৯৯১ স্মরণে মানববন্ধনসহ নানা সমাবেশে বক্তারা এসব কথা প্রকাশ করেন।

কক্সবাজার আদালত সড়কে মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন উপকূলীয় (মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসন) এলাকার এমপি আশেক উল্লাহ রফিক।

উপকূলীয় এনজিও জোটের ব্যানারে আয়োজিত ‘উপকূলের জমি ও মানুষের সুরক্ষায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংস্কার জরুরি’ স্লোগান সংবলিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন কোস্ট ট্রাস্টের প্রকল্প সমন্বয়কারী মকবুল আহমেদ।

এতে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কুতুবজুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন খোকন, মাতারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাস্টার মোহাম্মদ উল্লাহ, সাংবাদিক ইউনিয়ন কক্সবাজারের সভাপতি প্রবীণ সাংবাদিক মুহম্মদ নুরুল ইসলাম, কালারমারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কবি রুহুল কাদের বাবুল, এক্সপাউরুলের প্রধান নির্বাহী ইঞ্জিনিয়ার কানন পাল।

কোস্টের প্রকল্প ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলমের পরিচালনায় সভায় সংহতি জানান, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সদস্য ইঞ্জিনিয়ার বদিউল আলম, এনজিও সংগঠক সাইফুল ইসলাম কলিম।

এতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বাঁধ সংস্কারসহ দ্বীপ ভাঙন ও প্লাবনরোধে স্থায়ী সমাধানে ৮টি দাবি পেশ করা হয়। আর বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজন করা হয় স্মরণসভার।

উপকূলীয় সমিতি এ স্মরণ সভার আয়োজন করে। এছাড়া কুতুবদিয়া, মহেশখালী, সদরের গোমাতলী, পোকখালী, পেকুয়াসহ উপকূলীয় এলাকার মসজিদে মসজিদে মিলাদ ও খতমে কোরআন আয়োজন করা হয়।

২৯ এপ্রিলের প্রলয়ংকারী ঘূর্ণিঝড়ে নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা ও জীবিতদের জানমাল রক্ষায় সৃষ্টিকর্তার অনুগ্রহ কামনা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*