ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | চকরিয়ায় সংরক্ষিত পাহাড় কেটে তৈরি হচ্ছে রাস্তা

চকরিয়ায় সংরক্ষিত পাহাড় কেটে তৈরি হচ্ছে রাস্তা

235717

নিউজ ডেক্স : কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের চকরিয়া উপজেলার মানিকপুর বনবিট এলাকায় প্রকাশ্যে দুইটি স্কেভেটর দিয়ে বনবিভাগের পাহাড় কেটে এবার ইটভাটার রাস্তার তৈরি করার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি জানতে পেরে গত মঙ্গলবার দুপুরে বনবিভাগের কর্মকর্তারা ওই এলাকায় অভিযান চালাতে গেলে অভিযুক্ত ইটভাটা মালিকপক্ষের লোকজন তাদের উপর আক্রমণের চেষ্টা করে। এ ঘটনার পর থানা পুলিশের একটিদল ঘটনাস’লে পৌঁছে বনকর্মীদের সহায়তায় ইটভাটার দুইটি অবৈধ স’াপনা উচ্ছেদ ও মাটি কাটার বিপুল সরঞ্জাম উদ্ধার করে। বনবিভাগের ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মো.আবদুল মতিন ও থানার এসআই সুকান্ত চৌধুরীর নেতৃত্বে পুলিশ ও বনকর্মীরা উপজেলার মানিকপুর বনবিটের অধীন বাবুল চৌধুরী ও বশির আহমদ নামের দুই প্রভাবশালী ব্যক্তির ইটভাটায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। তবে অভিযানের সময় ইটভাটা মালিক ও কর্মচারীরা পালিয়ে যাওয়ায় তাৎক্ষণিক কাউকে আটক করা যায়নি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মো.আবদুল মতিন বলেন, সরকারিভাবে অনুমোদন না থাকলেও চকরিয়া পৌরসভার পুকপুকুরিয়া গ্রামের বাসিন্দা আবদুর রহমান ওরফে বাবুল চৌধুরী ও বশির আহমদ নামের দুই ব্যক্তির নেতৃত্বে ১০-১২জনের একটি চক্র মানিকপুর বনবিটের অধীন পাহাড়ি এলাকায় সম্প্রতি সময়ে অবৈধ ইটভাটা নির্মাণ কাজ শুরু করেন। ঘটনাটি জানার পর গত বুধবার দুপুরে ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। ওইসময় আমাদেরকে বাধা দেয়ার চেষ্টা করলেও পরে চকরিয়া থানা পুলিশের সহায়তায় পুনরায় অভিযান চালানো হয়। ওইসময় সংশ্লিষ্টরা পালিয়ে গেলেও পরে তাদের তৈরি করা দুইটি অবৈধ স’াপনা উচ্ছেদ এবং ঘটনাস’ল থেকে বিপুল পরিমাণ মাটি কাটার সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

রেঞ্জ কর্মকর্তা আবদুল মতিন বলেন, সরকারি বনাঞ্চলের পাহাড় কেটে ইটভাটার রাস্তার তৈরির এ ঘটনায় বনবিভাগের পক্ষ থেকে জড়িতদের বিরুদ্ধে চকরিয়া থানা ও উপজেলা আদালতে আলাদাভাবে দুইটি মামলা রুজু করা হচ্ছে। মামলার বাদি হবেন মানিকপুর বনবিট কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ। চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, বনবিভাগের পাহাড় কেটে অবৈধভাবে ইটভাটার রাস্তা তৈরির ঘটনায় অপ্রীতিকর সংঘাত এড়াতে গত বুধবার সকালে ঘটনাস’লে পুলিশের একটিদলকে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় রেঞ্জ কর্মকর্তা মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন। লিখিত এজাহার প্রাপ্তি সাপেক্ষে মামলা রুজু করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*