Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | মিথ্যা ধর্ষণ মামলা করে জেলে গেলেন দুই নারী

মিথ্যা ধর্ষণ মামলা করে জেলে গেলেন দুই নারী

image_printপ্রিন্ট করুন

নিউজ ডেক্স : ধর্ষণের মিথ্যা মামলা করায় রংপুরে দুই নারীকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন আদালত। আজ রবিবার বিকেলে আদালতে জামিনের আবেদন করলে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল-৩ এর বিচারক মোস্তফা পাভেল রায়হান জামিন নামঞ্জুর করে মিতু আক্তার ও নুরুন্নাহার বেগম নামে দুই নারীকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। 

আদালত ও  মামলা সূত্রে জানা যায়, রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার সয়ার ডারারপার গ্রামের কাজী সায়েদ আলীর ছেলে কাজী মিজানুর রহমান বাদী হয়ে ২০১৮ সালের ৪ জুন তার মেয়ে মিতু আক্তারকে ধর্ষণের অভিযোগে একই গ্রামের খলিল উদ্দিনের ছেলে মামুনুর রশিদ মামুনসহ তিনজনকে আসামি করে তারাগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন। মামুনুর রশিদ ওরফে মামুনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের ঘটনার সত্যতা না পাওয়ায় তারাগঞ্জ থানার ওসি মামুনুর রশিদ সকল আসামিকে মামলা থেকে অব্যহতি প্রদান করেন এবং ২০০৩ এর ১৭ ধারা মোতাবেক বাদীর বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নেওয়ার জন্য আদালতের কাছে সুপারিশ করেন।

মামুনুর রশিদ ওরফে মামুন মামলা থেকে অব্যহতি পাওয়ার পর মিথ্যা মামলা করায় মিজানুর রহমান, তার স্ত্রী মোছা. নুরুন্নাহার বেগম ও মেয়ে মিতু আক্তারকে আসামি করে নারী শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুানল-৩ এ একটি মামলা করেন। মামলায় আসামি মিজানুর রহমান দীর্ঘ হাজতবাস করার পর জমিন পেলেও মিতু আক্তার ও নুরুন্নাহার বেগম আজ আদালতে জামিনের আবেদন করলে আদালতের বিচারক তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। কালের কন্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!