ব্রেকিং নিউজ
Home | লোহাগাড়ার সংবাদ | প্রেমের টানে পুটিবিলার স্কুল ছাত্র-ছাত্রীর পলায়ন : বাল্যবিয়ে বন্ধে মুছলেখা

প্রেমের টানে পুটিবিলার স্কুল ছাত্র-ছাত্রীর পলায়ন : বাল্যবিয়ে বন্ধে মুছলেখা

news_picture_48750_19

এলনিউজ২৪ডটকম : প্রেমের টানে লোহাগাড়া উপজেলার পুটিবিলা ইউনিয়নের গৌড়স্থান উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রের সাথে একই স্কুলের ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রী পালিয়ে যাওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে। গত ২০ আগষ্ট তারা বান্দরবানে গিয়ে অবস্থান করে। পরদিন স্থানীয়দের সন্দেহ হলে বান্দরবান থানা পুলিশকে খবর দেয়।

পুলিশ ছাত্রীকে আটক করে অভিভাবকের হাতে তুলে দেয়। ছাত্রকে তুলে দেয়া হয় পুটিবিলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের হাতে। পুটিবিলা ইউপি চেয়ারম্যান প্রেমিক যুগল অপ্রাপ্ত বয়স্ক বিধায় তাদের বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ করতে অপরাগতা প্রকাশ করেন এবং তাদেরকে প্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ার পর বিয়ে করার সিদ্ধান্ত দেয়। কিন্তু উভয় পক্ষ এ সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ।

ফলে ইউপি চেয়ারম্যান তাদেরকে ২৪ আগষ্ট সকালে লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহবুব আলমের নিকট সোপর্দ করেন। ইউএনও উভয়ের অভিভাবকদের ডাকেন এবং প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবে না মর্মে মুছলেখা নেন।

কিন্তু ছাত্রী নিজ বাবার সাথে ঘরে ফিরতে অনিহা প্রকাশ করে। আগ্রহ প্রকাশ করে প্রেমিকের বাড়িতে যাবার। তাই বাধ্য হয়ে প্রেমিকের বাবা ওই ছাত্রীকে তাদের বাড়িতে নিয়ে যায়।

প্রেমিক মোকতার হোসেন (১৬) গৌড়স্থান উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্র এবং পুটিবিলা ইউনিয়নের সরইয়া দক্ষিণ পাড়ার সামশুল আলমের পুত্র। প্রেমিকা (১৩) একই স্কুলের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী এবং গৌড়স্থান নয়া পাড়ার বাসিন্দা

এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। এ প্রেমিক যুগলের শেষ পরিণতি কি  হবে সেটা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*