ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন পণ্ড

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন পণ্ড

56782_ctg

নিউজ ডেক্স : চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনে জামায়াত-শিবিরের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেওয়ার সময় ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে এক পর্যায়ে ছাত্রলীগের দুইপক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও ধাওয়া পাল্টা-ধাওযার ঘটনা ঘটে। সেইসঙ্গে সম্মেলন পণ্ড হয়ে যায়।

আজ মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১২টার দিকে নগরীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এ ঘটনা ঘটেছে। এ সময় পুলিশ ফাঁকা গুলি চালিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে।

এই অনুষ্ঠানে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ ছাড়াও রাউজানের সংসদ সদস্য ফজলে করিম চৌধুরী, রাঙ্গুনিয়ার সাংসদ হাছান মাহমুদ, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এম এ সালাম, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেনসহ জ্যেষ্ঠ নেতারা এ সময় অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত ছিলেন।

বেলা পৌনে ১২টার দিকে শুভেচ্ছা বক্তব্য দিতে আসেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন। তখনই শুরু হয় উত্তেজনা, পাল্টাপাল্টি স্লোগান। এ সময় প্রথমে চেয়ার ছোঁড়াছুড়ি এবং পরে সম্মেলন কক্ষের পশ্চিম-দক্ষিণ কোণায় আকস্মিক ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। একই সময়ে সম্মেলনের বাইরে রাউজানকেন্দ্রিক এক গ্রুপ আরেক গ্রুপের উপর হামলা চালায়।

ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার পর ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ ও ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ বারবার অনুষ্ঠানে শৃঙ্খলা ফেরানোর আহ্বান জানালেও কেউ কারও কথা শোনেনি। তিনি হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশকে নির্দেশ দেন। এক পর্যায়ে গণপূর্তমন্ত্রী মাইকে দাঁড়িয়ে বলেন, যারা এ হামলা করেছে তারা বহিরাগত। এরা সংগঠনের কেউ নয়।

এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে একপর্যায়ে সম্মেলনের বাইরে নিরাপত্তায় নিয়োজিত পুলিশ ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে। সংঘর্ষের কারণে পন্ড হয়ে যায় ছাত্রলীগের সম্মেলন। বেলা সাড়ে ১২টায় দিকে পুলিশের কড়া প্রহরায় অতিথিরা সম্মেলনস্থল ত্যাগ করে বেরিয়ে গেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কোতোয়ালী থানার ওসি জসিম উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, দু’পক্ষের মারামারির কারণে সম্মেলন বন্ধ হয়ে গেছে। পুলিশ ঘটনাস্থানে নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে। বড় কিছু হয়নি। তবে তিনি ফাঁকা গুলি চালানোর বিষয়টি অস্বীকার করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*