বঙ্গবন্ধুর ৪ খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিল করে প্রজ্ঞাপন

নিউজ ডেক্স : বঙ্গবন্ধুর চার খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়। এখন এটি গেজেট আকারে প্রকাশিত হবে।

রোববার (৬ জুন) তাদের খেতাব বাতিল করে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। একই সঙ্গে গেজেট আকারে প্রকাশের জন্য বিজি প্রেসে পাঠানো হয়েছে। জাগো নিউজ

লেফটেন্যান্ট কর্নেল শরিফুল হক ডালিমের ‘বীর উত্তম (গেজেট নম্বর-২৫)’, লেফটেন্যান্ট কর্নেল এস এইচ এম বি নূর চৌধুরীর ‘বীর বিক্রম (গেজেট নম্বর-৯০)’, লেফটেন্যান্ট এ এম রাশেদ চৌধুরীর ‘বীর প্রতীক (গেজেট নম্বর-২৬৭)’ এবং নায়েক সুবেদার মোসলেম উদ্দিন খানের ‘বীর প্রতীক (গেজেট নম্বর-৩২৯)’ খেতাব বাতিল করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সরকার জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের ৭২তম সভার সিদ্ধান্তের আলোকে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ অন্য শহীদদের হত্যা মামলায় আত্মস্বীকৃত খুনি মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত এই চারজনের খেতাব বাতিল করল।

এর আগে গত ২ জুন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর চার খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে। এ বিষয়ে গেজেট প্রকাশ করলে আপনারা পাবেন। এর আগে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’




৯ ঘণ্টায় বজ্রপাতে প্রাণ গেল ২১ জনের

নিউজ ডেক্স : সারাদেশে বজ্রপাতে ২১ জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে চট্টগ্রামে চারজন, সিরাজগঞ্জে পাঁচজন, ফেনীতে দুজন, পটুয়াখালীতে দুজন, সাতক্ষীরায় দুজন এবং মাদারীপুর, নোয়াখালী, মুন্সিগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, বরিশাল ও চুয়াডাঙ্গায় একজন করে মোট ছয়জন নিহত হয়েছেন। রোববার (৬ জুন) সকাল ৯টা থেকে বিকেলে ৬টার মধ্যে এসব ঘটনা ঘটে। জাগো নিউজ

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামের মিরসরাই ও বোয়ালখালীতে বজ্রপাতে দুজন নিহত হয়েছেন। একইদিনে ফটিকছড়িতে মাঠে কাজ করার সময় বজ্রপাতে দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরও তিনজন। সকাল ৯টা থেকে সাড়ে ১০টার মধ্যে এ বজ্রপাতের ঘটনাগুলো ঘটে।

নিহতরা হলেন বোয়ালখালীর জ্যৈষ্ঠপুরা পাহাড়ের গরজংগিয়া এলাকার বাসিন্দা মোস্তফা কামালের ছেলে মো. জাহাঙ্গীর (৩৯), মিরসরাইয়ের সাহেরখালী ইউনিয়নের ৯ নম্বর পূর্ব ডোমখালী ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা স্কুলছাত্র সাজ্জাদ হোসেন (১৬), যোগেন্দ্র শীলের স্ত্রী ভানুমতি শীল (৪০) ও বানেশ্বর দাশের স্ত্রী লাকি রানি দাশ (৩৮)।

সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জে এক ঘণ্টার মধ্যে বজ্রপাতে স্কুলছাত্রসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন। রোববার বিকেল ৪টা থেকে ৫টার মধ্যে উল্লাপাড়া উপজেলার বাঙ্গালা ও উধুনিয়া, শাহজাদপুর উপজেলার কায়েমপুর ও নরিনা ইউনিয়ন এবং বেলকুচি উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতেরা হলেন- শাহজাদপুর উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের চর আঙ্গারু গ্রামের আমানত হোসেনের ছেলে আব্দুল্লাহ (২৬), নরিনা ইউনিয়নের বাতিয়া গ্রামের আলহাজ বাবুর্চি (৫০), সলঙ্গা ইউনিয়নের আঙ্গারু বাঘমারা গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৪৫), উল্লাপাড়া উপজেলার উধুনিয়া ইউনিয়নের আগদিঘল গ্রামের শাহেদ আলীর ছেলে স্কুলছাত্র ফরিদুল ইসলাম (১৫) ও বেলকুচি উপজেলার চর সমেশপুর গ্রামের লাইলি বেগম।

ফেনী : জেলার সোনাগাজীতে বজ্রপাতে দুই শিশু নিহত হয়েছে। বেলা ১১টায় উপজেলার বগাদানা ইউনিয়নের আলামপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, সাজেদা আক্তার (১২) ও আল আমীন (৬)। সাজেদা ওই গ্রামের আনু ফরায়েজি বাড়ির সোলেমান মিয়ার মেয়ে ও আল আমীন একই বাড়ির বাহার উদ্দিনের ছেলে। তারা দুজনই স্থানীয় কাটাখিলা ছমদিয়া দাখিল মাদরাসার শিক্ষার্থী।

পটুয়াখালী : পটুয়াখালী সদর ও মির্জাগঞ্জ উপজেলায় বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার বিকেলে মির্জাগঞ্জের মজিদবাড়িয়া ইউনিয়নের পশ্চিম তাড়াবুনিয়া গ্রামে আব্দুল জলিল ও সদর উপজেলার মরিচবুনিয়া গ্রামে মজিদ হাওলাদার বজ্রপাতে মারা যান।

সাতক্ষীরা : বিকেলে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ভোমরা ইউনিয়নের চৌবাড়িয়া ও তালা উপজেলার খলিশখালী ইউনিয়নে হরিণখোলা গ্রামে বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে আরও তিনজন।

মৃতরা হলেন- হরিণখোলা গ্রামের আশুতোষ মন্ডলের ছেলে কিশোর মন্ডল (৩৮) ও চৌবাড়িয়া গ্রামের বজলুর রহমানের মেয়ে রাবেয়া খাতুন (২০)। আহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

মাদারীপুর : জেলার শিবচরে বাদাম তুলতে গিয়ে বজ্রপাতে আয়েশা বেগম (৫০) নামের এক নারী নিহত হন। বিকেল ৪টায় উপজেলার চরজানাজাত ইউনিয়নের বালুরটেকে এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। নিহত আয়েশা একই এলাকার ছোরফান হাওলাদারের স্ত্রী।

নোয়াখালী : জেলার হাতিয়ায় ক্ষেতে কাজ করার সময় বজ্রপাতে মো. আবদুল মান্নান খোকন (৩৬) নামের এক কৃষক নিহত হয়েছেন। দুপুর সাড়ে ৩টায় উপজেলার সোনাদিয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব মাইসচরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত খোকন একই গ্রামের মৃত সৈয়দ আহমদ মুন্সীর ছেলে।

মুন্সিগঞ্জ : জেলার সিরাজদিখানে বৃষ্টির মধ্যে ফুটবল খেলতে গিয়ে বজ্রপাতে অপূর্ব বর্মন (১৯) নামের এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছেন। বিকেল ৪টায় উপজেলার শেখরননগর মাঠে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় আহত হয়েছেন আরও দুজন। নিহত অপূর্ব উপজেলার শেখরনগর ইউনিয়নের জেলেপাড়া গ্রামের স্বপন বর্মনের ছেলে ও আলী আজগর অ্যান্ড আব্দুল্লাহ কলেজের এইচএসসির পরীক্ষার্থী।

মানিকগঞ্জ : মানিকগঞ্জের ঘিওরে বজ্রপাতে মো.শাহীন হোসেন (১৮) নামে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ঘিওর উপজেলার বৈলট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহীন হোসেন ঘিওর সদর ইউনিয়নের মুক্তার হোসেনের ছেলে। তিনি শিবালয়ের মহাদেবপুর ইউনিয়ন ডিগ্রি কলেজে এইচএসসি প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ বিপ্লব।

বরিশাল : বিকেল বরিশালের উজিরপুর উপজেলার সাতলা ইউনিয়নের উত্তর সাতলা গ্রামে বজ্রপাতে নান্টু বালী (৩০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি ওই এলাকার ইউনুস বালীর ছেলে।

চুয়াডাঙ্গা : বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার রুইথনপুর গ্রামের দক্ষিণ মাঠে বজ্রপাতে কোরবান আলী (৪০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি একই উপজেলার রুইথনপুর গ্রামের মৃত ফকির আলীর ছেলে।




৯ থেকে ১১ জুন তুমুল বর্ষণের আভাস, ভূমিধসের আশঙ্কা

নিউজ ডেক্স : মৌসুমি বায়ু তথা বর্ষা দেশের উপকূল অতিক্রম করায় এবং লঘুচাপ আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত হওয়ায় আগামী কযেকদিনে বৃষ্টিপাত থামছে না। যারা ধারাবাহিকতায় ৯ থেকে ১১ জুন তুমুল বর্ষণের আভাস রয়েছে। এ অবস্থায় পাহাড়ি এলাকায় ভূমিধসের আশঙ্কা করছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, কয়েকদিন কমবেশি বৃষ্টিপাত হবে। এক্ষেত্রে দেশের বিভিন্ন স্থানে থেমে থেমে বর্ষণ হবে। আর ৯ থেকে ১১ জুন থাকবে তুমুল বর্ষণ।

তিনি বলেন, সাধারণত এক নাগাড়ে বেশ কিছুদিন বর্ষা হলে পাহাড়ের মাটি নরম হয়ে যায়। তখন ভারী থেকে অতিভারী বর্ষা হলে ভূমিধস হয়। কয়েকদিন ধরে বৃষ্টি হচ্ছে। এটা যদি অব্যাহত থাকে এবং অতিভারী বর্ষণ হয়, তবে পাহাড়ে ভূমিধসের আশঙ্কা দেখা দিতে পারে।

অতীতে চট্টগ্রাম ও সিলেটের পাহাড়ি অঞ্চলে ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। তবে আমাদের দেশে ভূমিধসের ঘটনা যতটা না প্রাকৃতিক তার চেয়ে বেশি মানবসৃষ্ট। কেননা, অবাধে পাহাড় কাটা হয়। এরই মধ্যে চট্টগ্রাম, সিলেটে কয়েকদিন ধরেই বর্ষণ হচ্ছে। কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, টেকনাফে ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হচ্ছে।

আবহাওয়াবিদ মো. আব্দুর রহমান খান জানান, বর্তমানে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু চট্টগ্রাম, বরিশাল, সিলেট, ময়মনসিংহ ও ঢাকা বিভাগের পূর্বাংশ পর্যন্ত অগ্রসর হয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু আরো অগ্রসর হওয়ার জন্য আবহাওয়াগত পরিস্থিতি অনুকূলে রয়েছে। মঙ্গলবার নাগাদ সারাদেশের অবশিষ্টাংশে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বিস্তার লাভ করবে। বর্ধিত পাঁচদিনে বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি বাড়তে পারে।

এ অবস্থায় সোমবার (৭ জুন) ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। একই সঙ্গে দেশের পূর্বাঞ্চলে মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

এদিকে টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, রাজশাহী, পাবনা, তাড়াশ ও দিনাজপুর অঞ্চলসহ খুলনা বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং এটি কিছু এলাকা থেকে প্রশমিত হতে পারে। দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং দেশের অন্যত্র সামান্য বাড়তে পাবে। সারাদেশের রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। এসময় ঢাকায় দক্ষিণ/দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ থাকবে ১০-১৫ কিমি, যা অস্থায়ীভাবে দমকা আকারে ঘণ্টায় ২৫-৩৫ কিমিতে উঠে যেতে পারে।

রোববার দেশে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে সীতাকুণ্ডে, ১০০ মিলিমিটার। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে, ৩৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে যথাক্রমে ১৬ মিলিমিটার ও ৩৪ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাংলানিউজ




ফেসবুকের নিরাপত্তা শাখায় বাংলাদেশের মুন

নিউজ ডেক্স : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের নিরাপত্তা শাখায় যোগ দিয়েছেন শেরপুরের মেয়ে জারিন ফাইরোজ মুন। সম্প্রতি ফেসবুকের সিকিউরিটি ইঞ্জিনিয়ারিং টিমে ইন্টার্ন হিসেবে যোগ দিয়েছেন তিনি।

মুন শেরপুর জেলা শহরের গৌরীপুর মহল্লার বাসিন্দা। গত মাসের (মে) শেষ দিকে প্রতিষ্ঠানটির সিকিউরিটি ইঞ্জিনিয়ারিং টিমে ইন্টার্ন হিসেবে যোগ দিয়েছেন তিনি। তিন মাস পর তার নিয়োগ চূড়ান্ত হওয়ার কথা রয়েছে।

মুন ২০০৮ সালে শেরপুর শহরের দিশা প্রিপারেটরি অ্যান্ড হাই স্কুল থেকে এসএসসি পাস ও ২০১০ সালে শেরপুর সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। পরে খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) থেকে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা করেন মুন।  

বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকা অবস্থায়ই মুন অনেক সাফল্য অর্জন করেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক, বিশ্ববিদ্যালয় স্বর্ণপদকসহ নানা পদকে নিজেকে সমৃদ্ধ করেছেন। শুধু তাই নয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাজীবন শেষে সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার সুযোগও পেয়েছেন তিনি। তবে যুক্তরাস্ট্রে পিএইচডির সুযোগ পেয়ে তিনি সেখানে পাড়ি জমান।

জারিন ফাইরোজ মুনের বড় ভাই ফাহাদ বিন সাঈদ পিয়াস বলেন, বছরের শুরুর দিকে ফেসবুকের নিয়োগ কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর মার্চের শুরুতে তিন ধাপে মুনের ইন্টারভিউ নেয় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। ইন্টারভিউয়ে উত্তীর্ণ হওয়ার পর মে মাসের শেষের দিকে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ যোগদানের বিষয়টি নিশ্চিত করে। বাংলানিউজ




সৌদি প্রবাসীদের কোয়ারেন্টিনের ২৫ হাজার টাকা যাবে ব্যাংকে

নিউজ ডেক্স : সৌদি আরবগামী প্রবাসী কর্মীদের হোটেল কোয়ারেন্টিন খরচের সরকারি ভর্তুকির ২৫ হাজার টাকা প্রবাসী কর্মী বা মনোনীত প্রতিনিধির ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। এ লক্ষ্যে সোমবার (৭ জুন) থেকে আবেদনের আহ্বান করা হয়েছে।

রোববার (৬ জুন) প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বাংলানিউজ

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মহামারি কোভিড-১৯ বিস্তার রোধকল্পে সৌদি আরব সরকার জারি করা নির্দেশনা অনুযায়ী ২০ মে ২০২১ থেকে ৩০ জুন ২০২১ পর্যন্ত যেসব সৌদি আরব প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মী নিজ খরচে বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন পালন করেছে বা করবে, তাদের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড থেকে কর্মীপ্রতি ২৫ হাজার টাকা করে ভর্তুকি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই ভর্তুকি সংশ্লিষ্ট কর্মী বা তার মনোনীত প্রতিনিধির ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সংশ্লিষ্ট কর্মীরা প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট (www.probashi.gov.bd) অথবা ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের ওয়েবসাইট (www.wewb.gov.bd) অথবা জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর ওয়েবসাইট (www.bmet.gov.bd) থেকে আবেদনপত্র ডাউনলোড করে কিংবা দেশের তিনটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবস্থিত প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক থেকে সংগ্রহ করে তা পূরণের আগে নিম্নলিখিত কাগজপত্রসহ আগামী ৭ জুন থেকে ফ্লাইটের দিন বহির্গমনের আগে বিমানবন্দরে প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কে জমা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

যেসব কাগজপত্র লাগবে : জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটি) প্রদত্ত স্মার্টকার্ড বা ইমিগ্রেশন ক্লিয়ারেন্স কার্ডের ফটোকপি, পাসপোর্টের প্রথম চার পৃষ্ঠার ফটোকপি, পাসপোর্টের সঙ্গে সংযুক্ত ভিসার ফটোকপি। টিকিটের ফটোকপি। হোটেল বুকিংয়ের ডকুমেন্টের ফটোকপি।

এছাড়া সৌদি আরব প্রবাসী যেসব কর্মী এরইমধ্যে দেশটিতে চলে গেছেন এবং নিজ খরচে কোয়ারেন্টিন সম্পন্ন করেছেন বা করছেন তাদের একই নিয়মে সংশ্লিষ্ট আবেদনপত্র পূরণ করে ৩০ জুন ২০২১ তারিখের মধ্যে সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাস, রিয়াদ অথবা বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল, জেদ্দায় ডাকযোগে জমা দিতে হবে।




অতিভারী বৃষ্টিতে নাকাল চট্টগ্রাম!

নিউজ ডেক্স : ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টিতে বেহাল দশা হয়েছে চট্টগ্রাম নগরের নিচু এলাকায়। হাঁটু-পানি, বুক-পানি পেরিয়ে কোথাও কোথাও গলা সমান পানিতে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে মানুষকে। কিছু কিছু এলাকা পানিবন্দী হওয়ায় দিনভর ছিল অচলাবস্থা।

রোববার (৬ জুন) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ৯৮ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করেছে পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিস। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আবহাওয়াবিদ ড. মু. শহিদুল ইসলাম। বাংলানিউজ 

তিনি জানান, চট্টগ্রাম নদী বন্দরকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। সোমবার (৭ জুন) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম ও পাশ্ববর্তী এলাকায় অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। বিকেল ৩টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছিল ৭৯ দশমিক ৪ মিলিমিটার।  

বহদ্দারহাট থেকে জিইসি পর্যন্ত ডুবে ছিল দিনের বেশিরভাগ সময়। এ সময় পানির তীব্র স্রোতে বেকায়দায় পড়েন পথচারীরা। পানি ঢুকে বিকল হয়ে যায় অনেক গাড়ির ইঞ্জিন। বেশি ভাড়ায় রিকশা, ভ্যানগাড়িতে চড়ে পানি ভাঙেন অনেকে। এ সময় বেশ কয়েকজন নারীসহ পথচারী নালায় পড়ে যান। পানি ঢুকে যায় জলাবদ্ধ এলাকাগুলোর দোকানপাট, শপিংমলের নিচতলায়।    

আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালের নিচতলায় যথারীতি হাঁটু-পানি জমে। জরুরি কিছু শয্যা ও সেবা দোতলায় স্থানান্তর করা হলেও দুর্ভোগ লেগেই ছিল রোগী, স্বজন, চিকিৎসক ও সেবিকাদের। পানি জমেছিল আগ্রাবাদের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের সামনের সড়কেও। বৈরী আবহাওয়ার কারণে বন্ধ ছিল চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙরে বড় জাহাজ থেকে ছোট জাহাজে পণ্য খালাস বা লাইটারিং। বন্দরের এনসিটি, সিসিটি, ৪ নম্বর গেট এলাকার নিচু ইয়ার্ডে বৃষ্টির পানি জমেছিল।

সরেজমিন দেখা গেছে, প্রবর্তক মোড়, বহদ্দারহাট,  দুই নম্বর গেট,  জিইসি, চকবাজার কাঁচা বাজার, কাতালগঞ্জ, বাদুরতলা, মোগলটুলি, বেপারী পাড়া, সরাইপাড়া, হালিশহর, শান্তিবাগ আবাসিক এলাকা, ঈদগাঁ ডিটি রোড, বাকলিয়া ডিসি রোড, পাঁচলাইশ, কমার্স কলেজ রোড, সিডিএ আবাসিকের কয়েকটি সড়কে হাঁটু পানি। এর বাইরে জামালখান ওয়ার্ডের মুহুরি লেন (সিকদার হোটেলের পাশের গলি), গোয়ালপাড়াসহ কিছু নতুন নতুন এলাকায় জলজট সৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে।

ভারী বর্ষণের আশঙ্কা : আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বাংলাদেশ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় পশ্চিমা লঘুচাপের সঙ্গে পূবালী বায়ুর সংমিশ্রণের ফলে চট্টগ্রাম, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও রোববার (৬ জুন) বিকেল ৪টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ভারী (২৪ ঘণ্টায় ৪৪-৮৮ মিমি) থেকে অতি ভারী (৮৯ মিমি বা তার বেশি) বর্ষণ হতে পারে।  

পাহাড়ধসের আশঙ্কায় মাইকিং : চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন নগরের ফরেস্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউট এলাকা, মতিঝর্না, বাটালি হিল, একে খান পাহাড়, টাংকির পাহাড়, আমিন জুট মিলস এলাকা, রউফাবাদ, খুলশী, পাহাড়তলী, ফয়’স লেক এলাকার পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসকারীদের সরে যেতে মাইকিং করেছে। আগ্রাবাদ, চান্দগাঁও, বাকলিয়া ও কাট্টলী সার্কেলে আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে।




বজ্রপাতের বিকট শব্দে ব্যবসায়ীর মৃত্যু

নিউজ ডেক্স : ফটিকছড়ির নাজিরহাটে বজ্রপাতের বিকট শব্দে শফি সওদাগর (৫৫) নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে।

আজ রবিবার (৬ জুন) নাজিরহাট পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের এবিসি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শফি ওই এলাকার আব্দুল হামিদ সর্দার বাড়ির মৃত আব্দুল আজিজের পুত্র।

জানা যায়, এবিসি স্কুল সংলগ্ন স্থানে নিহত শফি সওদাগরের একটি চায়ের দোকান রয়েছে।
ঘটনার দিন দুপুরে প্রাইমারী স্কুলের সামনের পুকুরে গোসল সেরে তিনি দোকানে ফিরছিলেন।

এ সময় বিকট শব্দে বজ্রপাত হলে দৌড়ে একটি দোকানে আশ্রয় নেন তিনি।পরে বুকে ব্যথা শুরু হলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়।

অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চট্টগ্রামের মেড়িকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। চট্টগ্রামে নেয়ার পথে তার মৃত্যু ঘটে। স্থানীয় কাউন্সিলর আবুল মনছুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আজাদী অনলাইন




লকডাউন বাড়ল ১৬ জুন পর্যন্ত

নিউজ ডেক্স : করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে চলমান ‘লকডাউন’ বা বিধি-নিষেধ আগামী ১৬ জুন পর্যন্ত বাড়িয়েছে সরকার। আজ রবিবার (৬ জুন) এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

এতে বলা হয়েছে, করোনা সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় আগের সব বিধি-নিষেধের সময়সমীমা আজ ৬ জুন মধ্যরাত থেকে ১৬ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত বর্ধিত করা হলো। বাংলানিউজ

মন্ত্রিপরিষদের মাঠ প্রশাসন সমন্বয় অধিশাখার উপ-সচিব মো. রেজাউল ইসলাম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সব পর্যটনস্থল, রিসোর্ট, কমিনিউটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে। জনসমাবেশ হয় এ ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠান (বিবাহত্তোর অনুষ্ঠান, জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি ইত্যাদি) রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান বন্ধ রাখতে হবে।

খাবার দোকান, হোটেল রেস্তোরাঁগুলো সকাল ৬ টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খাদ্য বিক্রয় ও সরবরাহ করতে পারবে এবং আসন সংখ্যার অর্ধেক রেখে গ্রহিতাদের সেবা দিতে পারবে।কোভিড-১৯ উচ্চঝুঁকি সম্পন্ন জেলাগুলোতে জেলা প্রশাসকরা সংশ্লিষ্ট কারিগরি কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে স্ব স্ব এলাকায় সংক্রমণ প্রতিরোধে বিধি মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবেন।

এছাড়া আন্তঃজেলাসহ সব ধরনের গণপরিবহণ আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে। তবে অবশ্যই যাত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে মাক্স পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।

এর আগে আজ রবিবার (৬ জুন) মধ্যরাত পর্যন্ত ‘লকডাউন’ বাড়ানো হয়েছিল। তবে, দেশে করোনার ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ ঠেকাতে ইতোমধ্যে সীমান্তবর্তী কয়েকটি জেলায় পুরোপুরি বা আংশিক লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। তবুও কমানো যাচ্ছে না আক্রান্ত-মৃত্যুর হার।

চলতি বছর করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ৫ এপ্রিল থেকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত ঢিলেঢালা লকডাউন হলেও সংক্রমণ আরও বেড়ে যাওয়ায় ১৪ এপ্রিল থেকে ‘কঠোর লকডাউন’ ঘোষণা করে সরকার। পরে সিটি করপোরেশন এলাকায় গণপরিবহন চলাচলের অনুমতি দেয়া হয়। তবে দূরপাল্লার বাস, লঞ্চ এবং ট্রেন চলাচল ঈদ পর্যন্ত বন্ধ ছিল। পরে ২৪ মে থেকে গণপরিবহন চলার অনুমতি দেওয়া হয়।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ শুরু হলে ১৮ মার্চ থেকে সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়। আর ২৬ মার্চ থেকে টানা ৬৬ দিন অফিস বন্ধ থাকে। আগামী ১২ জুন পযর্ন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ঘোষণা করা আছে।