Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | সাতকানিয়ায় বিয়েতে মাংস কম দেওয়া নিয়ে মারামারি

সাতকানিয়ায় বিয়েতে মাংস কম দেওয়া নিয়ে মারামারি

নিউজ ডেক্স : চুয়াডাঙ্গার পর এবার চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় একটি বিয়েতে আসা বরযাত্রীদের মাংস কম দেওয়ায় বর ও কনে পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) সাতকানিয়া উপজেলার কালিয়াইশ ইউনিয়নের নিরিবিলি কমিউনিটি সেন্টারে দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।  বর মো. শাহজাহান সাতকানিয়ার উপজেলার ছাদাহা ইউনিয়নে বাসিন্দা। কনের বাড়ি নোয়াখালীর সুবর্ণচর হলেও বেশকিছু দিন ধরে চন্দনাইশ উপজেলায় স্থানীয়ভাবে বসবাস করেন।  

জানা গেছে, বরপক্ষকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী খাবার সরবরাহ করতে পারেনি কনে পক্ষ। বিষয়টি নিয়ে কনেপক্ষ আর বরপক্ষের বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে দুপক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।  

ঘটনাস্থলে থাকা সাতকানিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোল্লা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, একটি কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ের অনুষ্ঠান চলাকালে দুই পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে। দুপুরে ৯৯৯ এ ফোন পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে গিয়ে জানতে পারি মাংস নিয়ে দেওয়া নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। এতে বাকবিতণ্ডা এক পর্যায়ে তা রূপ নেয় সংঘর্ষে।  

তিনি আরও বলেন, বিষয়টি এখনও মীমাংসা হয়নি। স্থানীয় চেয়ারম্যানকে আসতে বলা হয়েছে। তিনি বিষয়টির সমাধান করবেন।  এখনও বরপক্ষ কনেকে তুলে নেয়নি বলেও জানান তিনি।  

এদিকে সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, বিয়ে বাড়িতে মাংস নিয়ে ভুল বুঝাবুঝি নিয়ে মারামারি হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে ছিল। কোন পক্ষ অভিযোগ করেনি। হয়তো ঘটনাটি সমাধানের দিকে যাচ্ছে।

ছাদাহা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. মোশাদ হোসেন চৌধুরী বলেন, বিয়ে বাড়িতে দুই পক্ষের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। এতে বরও আহত হয়। বিষয়টি সুরহা করতে উভয় পক্ষকে নিয়ে বসেছি। সমাধান হলে বর কনেকে নিয়ে বাড়ি ফিরবে। বাংলানিউজ  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*