নুসরাতের জন্মদিনে ছোট ভাইয়ের আবেগঘন স্ট্যাটাস ভাইরাল

rafi0-20191121105507

নিউজ ডেক্স : ফেনীর সোনাগাজীর আলোচিত মাদরাসাছাত্রী নিহত নুসরাত জাহান রাফির জন্মদিন ছিল গতকাল বুধবার (২০ নভেম্বর)। ১৯৯৯ সালের এই দিনে নুসরাত সোনাগাজী পৌরসভার উত্তর চরচান্দিয়া গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম একে এম মুছা আর মায়ের নাম শিরিনা আক্তার।

নুসরাতের জন্মদিনের স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে তার ছোট ভাই রাশেদুল হাসান রায়হান ফেসবুক একটি আবেগঘন পোস্ট দিয়েছেন।

তিনি লিখেছেন, ‘রায়হান তুই আপুরে কি গিফট দিবি- গত বছরের এই দিনে, এই কথাটি বলে, আজ তুই চিরনিদ্রায় শায়িত। দু চোখের অশ্রু ছাড়া দেয়ার মতো কিছুই নেই। শুভ জন্মদিন আপুনি।’

রায়হানের এই স্ট্যাটাসটি পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

rafi01-20191121105451

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ২৭ মার্চ সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন নিপীড়নের দায়ে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ৬ এপ্রিল ওই মাদরাসা কেন্দ্রের সাইক্লোন শেল্টারের ছাদে নিয়ে অধ্যক্ষের সহযোগীরা নুসরাতের শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়। ১০ এপ্রিল রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা যান নুসরাত জাহান রাফি।

এ ঘটনায় মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাকে প্রধান আসামি করে আটজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনকে আসামি করে নুসরাতের ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান ৮ এপ্রিল সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

নুসরাত হত্যা মামলায় পুলিশ ও পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাসহ ২১ জনকে বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতার করে। পরে ২৯ মে ১৬ জনকে আসামি করে ৮০৮ পৃষ্ঠার অভিযোগপত্র দাখিল করে পিবিআই।

গত ২৪ অক্টোবর (বৃহস্পতিবার) আলোচিত নুসরাত হত্যা মামলার ১৬ আসামির সবাইকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের নির্দেশ দেন ফেনীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামুনুর রশিদ। আসামিদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানাও করা হয়।