Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | চট্টগ্রামে আইসোলেশান ওয়ার্ডে মারা যাওয়া নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন না

চট্টগ্রামে আইসোলেশান ওয়ার্ডে মারা যাওয়া নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন না

image_printপ্রিন্ট করুন

নিউজ ডেক্স : চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডি’তে আইসোলেশান ওয়ার্ডে মারা যাওয়া নারী নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন না।

তার নমুনা পরীক্ষা করে ফল ‘নেগেটিভ’ এসেছে বলে বুধবার জানিয়েছেন চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বী মিয়া। বিডিনিউজ

বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) আইসোলেশনে থাকা ওই নারী মঙ্গলবার রাতে মারা যান। ষাট বছর বয়সী ওই নারীর শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল, তিনি ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপেও ভুগছিলেন।

দক্ষিণ চট্টগ্রামের অসুস্থ ওই নারীকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের হৃদরোগ বিভাগ থেকে বিআইটিআইডিতে পাঠানো হয়েছিল।

ঢাকার বাইরে যে সব স্থানে করোনাভাইরাসের পরীক্ষা চলছে, তার একটি চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটের বিআইটিআইডি।

এদিকে, বুধবার আরও আটজনের নমুনা পরীক্ষা করে কারও দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব মেলেনি বলে জানালেন বিআইটিআইডির ল্যাব ইনচার্জ ডা. শাকিল আহমেদ।

তিনি বলেন, ছয় দিনে মোট ৪২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। এদের কারোরই করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।চট্টগ্রাম জেলার হোম  কোয়ারেন্টাইনে থাকা লোকের সংখ্যা কমে ৯২৮ জনে নেমেছে বলে জানান সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বী।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের হিসেব অনুযায়ী, চট্টগ্রাম জেলায় গত ১ মার্চ থেকে বিদেশ প্রত্যাগত আছেন ৩৯ হাজার ২৮৩জন। এদের মধ্যে ঠিকানা ও অবস্থান চিহ্নিত করা গেছে মাত্র ৯৭৩ জনের। এদেরকেই হোম কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। যে সংখ্যা নেমে দাঁড়িয়েছে ৯২৮ জনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!