খাতুনগঞ্জে কমছে পেঁয়াজের দাম

onion-20171116104525

নিউজ ডেক্স : সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকা-চট্টগ্রামসহ সারাদেশে অস্থির হয়ে উঠে পেঁয়াজের বাজার। দুই মাসের ব্যবধানে নভেম্বরে দেশি পেঁয়াজ ১০০ এবং আমদানি করা পেঁয়াজ ৭০ থেকে ৭৫ টাকায় বিক্রি হয়। তবে আশার কথা হলো দেশের অন্যতম বৃহৎ পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের দাম কমছে।

জানা গেছে, চট্টগ্রামে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে। গত দু’দিনে চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে কেজিতে পেঁয়াজের দাম কমেছে ১৫ থেকে ২০ টাকা। যা পাইকারি বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৩৫ টাকা থেকে ৪০ টাকায় কেজি দরে। তবে খুচরা বাজারে এখনও এর প্রভাব পড়েনি।

ক্যাবের সহ-সভাপতি এসএম নাজের হোসাইন জানান, এটা ব্যবসায়ীদের কারসাজি ও সরকারের মনিটরিং না থাকায় খুচরা বাজারে দাম কমার প্রভাব পড়ছে না। অসাধু ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে কিছুদিন পরপরই পণ্যের দাম বাড়িয়ে অতিরিক্ত মুনাফা হাতিয়ে নিচ্ছে।

এদিকে রাজধানীর বৃহৎ কাঁচাবাজার কারওয়ান বাজারেও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। খুচরা পেঁয়াজ বিক্রেতা মো. হোসাইন আলী বলেন, কোরবানির ঈদ থেকে পেঁয়াজের দাম বাড়ছেই। পাইকারি ব্যবসায়ীরা বাজারে পেঁয়াজ সংকট দেখিয়ে দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। তাই খুচরা বাজারেও বেশি দামেই বিক্রি করতে হচ্ছে।

কারওয়ান বাজারের পাইকারি এক পেঁয়াজ ব্যবসায়ী জানান, বাজারে পুরান পেঁয়াজ শেষের দিকে। নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসতে শুরু করেছে। তাই বাজারে দেশি পেঁয়াজের ঘাটতি রয়েছে। ফলে দাম একটু বাড়তির দিকে। নতুন পেঁয়াজ এলেই দাম কমবে। – জাগো নিউজ