Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | করোনার টেস্ট কমানোর নির্দেশ ট্রাম্পের

করোনার টেস্ট কমানোর নির্দেশ ট্রাম্পের

image_printপ্রিন্ট করুন

আন্তর্জাতিক ডেক্স : নমুনা পরীক্ষা বেশি বেশি হওয়ার কারণেই যুক্তরাষ্ট্রে অনেক বেশি রোগী পাওয়া যাচ্ছে বলে আবারও দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ জন্য সংশ্লিষ্টদের করোনা টেস্টের হার কমিয়ে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। ট্রাম্পের মতে, করোনা টেস্ট হচ্ছে অনেকটা দু’ধারি তলোয়ারের মতো, এর কারণেই তার দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেশি মনে হচ্ছে।

শনিবার ওকলাহোমার টুলসা শহরে নির্বাচনী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এসময় সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘যখন এত বেশি পরীক্ষা করা হবে, তখন অনেক বেশি রোগী শনাক্ত হবে। এ কারণে আমার লোকদের বলেছি, পরীক্ষা কমিয়ে দিতে।’

তবে পরীক্ষা কমানোর বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের এ দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তা। তিনি বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ‘তিনি (ট্রাম্প) অবশ্যই মজা করছিলেন। করোনা পরীক্ষায় আমরা বিশ্বকে নেতৃত্ব দিচ্ছি, ইতোমধ্যেই আড়াই কোটির বেশি পরীক্ষা করা হয়েছে।’

এদিন ট্রাম্প বলেন, চীন ও ইউরোপ ভ্রমণকারীদের প্রবেশ বন্ধ করে দেয়ায় তার সিদ্ধান্তের কারণে যুক্তরাষ্ট্রে হাজার হাজার মানুষের প্রাণরক্ষা হয়েছে। কিন্তু এমন ‘বিস্ময়কর কাজের’ পরেও মিডিয়া তাকে প্রাপ্য ক্রেডিট দিচ্ছে না, বরং ভুয়া খবর প্রচার করছে।

বিশ্বের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় সবার শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ওয়ার্ল্ডোমিটারসের হিসাবে সেখানে অন্তত ২৩ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ১ লাখ ২১ হাজারেরও বেশি। দেশটির দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্যগুলোতে এখনও উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে সংক্রমণ।

এ অবস্থায় বিশেষজ্ঞরা পর্যাপ্ত সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বললেও আগামী নভেম্বরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে গত কয়েক মাসের মধ্যে বৃহত্তম জনসমাবেশ করলেন ট্রাম্প। এদিন তার অনেক সমর্থকই মাস্ক না পরেই সমাবেশে অংশ নেন। ফলে সেখান থেকে আবারও করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

গত সোমবার বয়স্ক নাগরিকদের সহযোগিতা-বিষয়ক এক সভাতেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট দাবি করেন, করোনা টেস্ট কমিয়ে দিলেই রোগীর সংখ্যা কমে যাবে। এর আগে, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে শরীরে জীবাণুনাশক ইনজেকশন নেয়ার মতো অদ্ভুত পরামর্শ দিয়েও বেশ সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন তিনি। সূত্র: রয়টার্স

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!