ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | ২০২১ সালে দেশে জনসংখ্যা ১৭ কোটি ছাড়িয়ে যাবে

২০২১ সালে দেশে জনসংখ্যা ১৭ কোটি ছাড়িয়ে যাবে

mostofa20151214155111

নিউজ ডেস্ক : ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে কাজ করছে সরকার। এসময় দেশে জনসংখ্যা ১৭ কোটি ছাড়িয়ে যাবে। একইসঙ্গে কর্মসক্ষম লোকের সংখ্যা দাঁড়াবে চার কোটি ৯৩ লাখ। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

সোমবার রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) আয়োজিত ‘আদমশুমারি ও গৃহগণনা-২০১১’ এর  প্রাপ্তি শীর্ষক এক সেমিনার এসব তথ্য জানায়। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

প্রতি ১০ বছর অন্তর আদমশুমারি অনুষ্ঠিত হয়। সর্বশেষ ২০১১ সালে আদমশুমারি হয় দেশে। সেই তথ্যের আলোকে প্রতি পাঁচ বছর অন্তর দেশের জনসংস্যা কি পরিমাণ বাড়বে তা তুলে ধরা হয়েছে প্রতিবেদনে।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, ২০১১ সালে দেশে জনসংখ্যা ছিলো ১৪ কোটি ৯৪ লাখ। যা ২০১৬ সালে দাঁড়াবে ১৬ কোটিতে। ২১ সালে ১৭ কোটি ১৭ লাখ পর্যায়ক্রমে ৪১ সালে ২০ কোটি ৫৬ লাখ এবং ৬১ সালে ২২ কোটি ৩৪ লাখে পৌঁছাবে জনসংখ্যা।

সেমিনারে বলা হয়, বর্তমানে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) এর ওয়েবসাইটে ১৯টি জেলা ও একটি সিটি করপোরেশনের তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। প্রতিটি ইউনিয়ন/ওয়ার্ডের মৌজা পর্যন্ত সব ধরনের তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। শিগগিরই সব জেলা ও সিটি কর্পোরেশনের তথ্য দেয়া হবে।

অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে দেশ ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত হবে। এ জন্য কৃষিকে গুরুত্ব দিয়ে পরিকল্পনা গ্রহণ এবং বাস্তবায়নের কাজ চলছে।

একই সঙ্গে ২০৪০ সালের মধ্যে আমাদের দক্ষিণে মালয়েশিয়া অস্ট্রেলিয়াসহ সব দেশগুলোকে ছাড়িয়ে উন্নয়নের দিক থেকে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশে। তিনি বলেন, টেকসই উন্নয়নের জন্য প্রয়োজন সঠিক ডাটাবেজ দরকার তা সংগ্রহে কাজ করছে সরকার।

মন্ত্রী বলেন, অন্যান্য দেশ যেখানে ২০৩০ সালকে দারিদ্র বিমোচনের টার্গেট হিসেবে নিয়েছে সেখানে বাংলাদেশ এই সময়ের মধ্যে দারিদ্রের হার জিরো টলারেন্সে নামিয়ে আনতে সক্ষম হবে। তখন বাংলাদেশে অনুবীক্ষণ যন্ত্র লাগিয়েও আর দরিদ্র লোক খুঁজে পাওয়া যাবে না ।

সেমিনারে আরো উপস্থিত ছিলেন; পরিসংখ্যান ও তথ্য বিভাগের সচিব কানিজ ফাতেমা, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. শামছুল আলম, ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাংলাদেশের হেড অব ডেলিগেশন পিওরি মায়াধন, ইউএনএফপিএ বাংলাদেশের প্রতিনিধি আর্জেন্টিনা মেটাবেল বিবিএস এর ডিরেক্টর জেনারেল মোহাম্মদ আব্দুল য়ওয়াজেদ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*