ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | ১৫০ দেশ বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দিয়েছে

১৫০ দেশ বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দিয়েছে

mahmud20170228201316

নিউজ ডেক্স : বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর আনুষ্ঠানিকভাবে মোট ১৫০টি দেশ স্বীকৃতি দিয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

তিনি বলেন, বাংলাদেশকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসাবে সর্বপ্রথম ভুটান স্বীকৃতি দেয়। ভুটান এবং ভারত উভয় দেশই বাংলাদেশকে ৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে স্বীকৃতি দিয়েছিল। অপরদিকে সর্বশেষ দেশ হিসেবে চীন বাংলাদেশকে ১৯৭৫ সালের ৩১ আগস্ট স্বীকৃতি দেয়।

জাতীয় সংসদে মঙ্গলবার টেবিলে উত্থাপিত এম আবদুল লতিফের (চট্টগ্রাম-১১) এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বর্তমান সরকারের দুই মেয়াদে বিদেশে ১৬টি নতুন মিশন চালু

তানভীর ইমামের (সিরাজগঞ্জ-৪) আরেক প্রশ্নের জবাবে মাহমুদ আলী জানান, পরিবর্তিত বিশ্ব ব্যবস্থায় বাংলাদেশের কূটনৈতিক কর্মকাণ্ড এখন বহুমাত্রিক। স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশের জন্য একটি সমন্বিত, কার্যকর ও বেগবান পররাষ্ট্র নীতি পরিচালনা এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠাতার মাধ্যমে সরকারের গৃহীত রূপকল্পের আলোকে ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের দেশে উত্তরণের লক্ষ্যে বর্তমান সরকার বিভিন্ন ধরনের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

বর্তমান সরকারের দুই (২০০৯-বর্তমান) মেয়াদে বিদেশে ১৬টি নতুন মিশন চালু করা হয়েছে। যার মধ্যে ২০০৯ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ১০টি (ব্রাসিলিয়া, কুনমিং, গ্রীস, মুম্বাই, মিলান, বৈরুত, পোর্ট লুইস, মেক্সিকো, লিসবন ও ইস্তাম্বুল) এবং ২০১৪ সাল হতে বর্তমান সময় পর্যন্ত ৬টি (ভিয়েনা, ওয়ারশ, কোপেনহেগেন, আদ্দিস আবাবা, আবুজা ও আলয়িার্স)।

তিনি আরও জানান, সম্প্রতি রুমানিয়ার বুখারেস্ট এ আরও একটি পূর্ণাঙ্গ দূতাবাস স্থাপনের সমস্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে এবং খুব শিগগিরই এ দূতাবাসের কার্যক্রম শুরু হবে। এছাড়া আরও ৭টি নতুন মিশন চালুর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। এগুলো হলো- আফগানিস্তানের কাবুল, সুদানের খার্তুম, সিয়েরালিওনের ফ্রিটাউন, ভারতের গুয়াহাটি ও চেন্নাই, অস্ট্রেলিয়ার সিডনি এবং কানাডার টরন্টো।

টিপু সুলতানের (বরিশাল-৩) আরেক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, বর্তমানে বিশ্বের ৭টি দেশে বাংলাদেশের নিজস্ব দূতাবাস ভবন রয়েছে। এ দেশগুলো হলো চীন (বেইজিং), বেলজিয়াম (ব্রাসেলস), ভারত (নয়াদিল্লি ও কলকাতা), যুক্তরাজ্য (লন্ডন), যুক্তরাষ্ট্র (ওয়াসিংটন ডিসি ও নিউইয়র্ক), দক্ষিণ আফ্রিকা (প্রিটোরিয়া) এবং জাপান (টোকিও)।

এছাড়া নিজস্ব ভবন নির্মাণের জন্য বর্তমানে ৩টি প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন রয়েছে। সেগুলো হলো- সৌদি আরব (রিয়াদ), তুরস্ক (আঙ্কারা) ও পাকিস্তান (ইসলামাবাদ)। আরও ৪টি দেশে চ্যান্সারি ভবন নির্মাণের জন্য প্রকল্প প্রক্রিয়াধীন। সেগুলো হলো- জার্মানি (বার্লিন), নেপাল (কাঠমান্ডু), অস্ট্রেলিয়া (ক্যানবেরা) এবং ব্রুনাই (বন্দরসেরি বেগওয়ান)।

পাশাপাশি নিউইয়র্ক কনস্যুলেট জেনারেল, এ্যাথেন্স ও কোপেনহেগেন-এর জন্য চ্যান্সারি ভবন ক্রয়ের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

সংসদকে তিনি আরও জানান, যে সব দেশে বাংলাদেশ দূতাবাসের জন্য নিজস্ব জমি নেই, প্রয়োজনীয়তা এবং অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সে সব দেশে পর্যায়ক্রমে বাংলাদেশ দূতাবাসের জন্য জমি ক্রয় করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*