ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | সাতকানিয়ায় বিজিবি’র ব্যাচ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত

সাতকানিয়ায় বিজিবি’র ব্যাচ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত

78

এলনিউজ২৪ডটকম : বিজিবি একটি দক্ষ, চৌকষ ও এবং প্রশিক্ষিত বাহিনী। একটি বলিষ্ঠ ও দক্ষ বাহিনী গড়ে তোলার জন্য সবচেয়ে বেশী প্রযোজন কঠোর প্রশিক্ষন, সৎচরিত্র, মানসিক দৃঢতা, অধ্যাবসায়, শৃঙ্খলাবোধ এবং সঠিক নেতৃত্ব। বর্তমান সরকার বিজিবি’র সদস্যদেও জীবন মান উন্নয়নের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বিজিবি’র সদস্যদের ছেলে মেয়েরা যাতে সঠিকভাবে লেখাপড়া করতে পৃথকভাবে ছাত্র নিবাস ও ছাত্রী নিবাস নির্মানের কাজ চলছে। দেশের প্রায় সাড়ে ৫শ’ কিলো মিটার অরক্ষিত সীমান্ত এলাকা ছিল। বর্তমানে ভারত ও মায়ানমারের সাথে অরক্ষিত সীমান্তের ১১০ কি.মি. কমিয়ে আনা হয়েছে। ক্রমান্বয়ে অরক্ষিত সীমান্ত নিয়ন্ত্রনে আনা হবে। ৯ জুন মঙ্গলবার সকাল ১০টায় চট্টগ্রামের সাতকানিয়া বায়তুল ইজ্জত বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ এর ৮৬-তম ব্যাচ রিক্রুটদের সমাপনী কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ এ কথা বলেন। বিজিবি‘র একমাত্র প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান বর্ডার গার্ড ট্রেনিং সেন্টার এন্ড স্কুলে অনুষ্ঠিত সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির সঙ্গে অভিবাদন মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বায়তুল ইজ্জত বর্ডার গার্ড ট্রেনিং সেন্টার এন্ড স্কুলের কমান্ড্যান্ট কর্নেল লুৎফুল কবির ভূঞা। কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ চা বোর্ড চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল আজমল কবীর, চট্টগ্রাম ডিজিএফআই অধিনায়ক ব্রিগেডিয়ার জনোরেল মো. নজরুল ইসলাম, বান্দরবান ৬৯ পাদাতিক ব্রিগেট কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নকিব আহমদ চৌধুরী। তাছাড়া চট্টগ্রাম অঞ্চলের সামরিক ও বিজিবি উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বেসামরিক প্রশাসন ও পুলিশ কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। কুচকাওয়াজে প্যারেড কমান্ডার ছিলেন মেজর মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম ও প্যারেড এ্যাডজুটেন্ট ছিলেন সহকারী পরিচালক মো. ছোরহাব উদ্দিন।
সকাল ৮ঘটিকা হতে পর্যায়ক্রমে মার্কারদের প্যারেডে যোগদান, বাদক দলের মাঠে প্রবেশ, রিক্রুটদের প্যারেড মাঠে প্রবেশ, জাতীয় ও বিজিবি পতাকাবাহী দলের প্রবেশ, প্রধান অতিথির আগমন ও প্যারেড পরিদর্শন, রিক্রুটদের শপথ গ্রহণ, পুরস্কার বিতরণ, প্রধান অতিথির ভাষণ, সংঘবদ্ধ কুচকাওয়াজ, বাদকদলের মার্চ প্রভৃতি আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে সকাল সাড়ে ১১ টায় অনুষ্ঠানমালা সমাপ্ত হয়। প্রধান অতিথি ৮৬তম রিক্রুট ব্যাচে মোট ১০৯৩ জন নবীন সৈনিকদের মধ্য হতে কুচকাওয়াজে৩মো. নুরুন্নবী, শারীরিক উৎকর্ষতায় মো. রফিকুল ইসলাম, ফায়ারিংয়ে মো. আজিজুল হক, সংগীন যুদ্ধে মো. হাবিবুল ইসলাম ও সর্ব বিষয়ে সেরা রিক্রুট হিসেবে মো. ওবাইদুর রহমানকে পুরস্কার প্রদান করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*