ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | সাতকানিয়ায় ফের ছাত্রলীগের দু’গ্রপের সংঘর্ষ : আটক ৪

সাতকানিয়ায় ফের ছাত্রলীগের দু’গ্রপের সংঘর্ষ : আটক ৪

34

এলনিউজ২৪ডটকম : সাতকানিয়ায় ছাত্রলীগের দু’গ্র“পের মধ্যে ২২ মে শুক্রবার বিকাল পৌনে ৪টা সময় ফের সংঘর্ষ হয়েছে। ঘটনাটি ঘটে উপজেলার বাজালিয়া বাস ষ্টেশন এলাকায়। এ সময় তাঁরা বান্দরবান-কেরানীহাট সড়কে ব্যারিকেড দিলে প্রায় আধ ঘন্টা যানচলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ ও বিজিবি’র সদস্যরা এসে ব্যারিকেড তুলে নিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। উল্লেখ্য, গত বৃহষ্পতিবার একই এলাকায় দু’গ্র“পের সংঘর্ষের জের ধরে এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে বলে জানা যায়।
জানা যায়, বিকালে বান্দরবান মনসুর গ্র“পের নেতাকর্মীরা বান্দরবান কেরানীহাট সড়কে অতর্কিতভাবে গাড়ী ভাংচুর করলে আজাদ গ্র“পের কর্মীরা সড়কে ব্যারিকেড দেয়। এ সময় মনসুর গ্র“পের নেতাকর্মীরা আজাদ গ্র“পের উপর চড়াও হয়। তাঁরা ৩ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। তবে কেউ গুলিবিদ্ধ হয়নি। গাড়ী ভাংচুরের সময় মাহিন্দ্রা অটোরিক্সার ২ যাত্রী আনোয়ারা বেগম (৪৫) ও জন্নাত আরা বেগম (৩৫) আহত হন। মনসুর গ্র“পের কর্মীরা ৫টি মাহিন্দ্রা অটোরিক্সা ভাংচুর করে। আহতদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, বাজালিয়া এলাকায় আজাদ গ্র“পের স্থানীয় নেতৃত্ব দিচ্ছেন মোস্তাক ও আবদুল আজিজ। অপরদিকে মনসুর গ্র“পের নেতৃত্ব দিচ্ছেন সজিব ও রাশেদ। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অপরাধে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে চন্দনাইশ উপজেলার দিয়ারকুল এলাকার নুরুল আলমের ছেলে মো. নাঈম (২৩), সাতকানিয়া পুরানগড় এলাকার জাকির হোসেনের ছেলে আনোয়ার হোসেন (২২), বাজালিয়া এলাকার আবদুল আলম চৌধুরীর ছেলে সজিব চৌধুরী (১৯) ও একই এলাকার মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে মো. সোহেল (২৪)কে আটক করে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে আজাদ সিকদার বলেন, মনসুর গ্র“পের সজিব ও জামায়াত ক্যাডার রাশেদ গাড়ী ভাংচুর ও গুলি চালায়। অপরদিকে মনসুরুল ইসলাম মনসুর বলেন, এ ঘটনার আমি জড়িত নই, ঘটনার সময় আমি এলাকায় ছিলাম না, আমি কিছুই জানি না। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে সাতকানিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মো. ফরিদ উদ্দিন খন্দকার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে ঘটনার সাথে জড়িত ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*